২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

পুঁজিবাজারে ৫৫.৮৪ ভাগ কোম্পানির দর কমেছে


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) মঙ্গলবার মূল্যসূচকের পতনে লেনদেন শেষ হয়েছে। অপর বাজার চট্টগ্রম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে সূচকের মিশ্র প্রবণতায়। এদিন উভয় বাজারেই আগের দিনের তুলনায় লেনদেন কমেছে। দিনটিতে প্রধান বাজারে আবারও ওয়েবসাইটে গোলযোগ দেখা দেয়। কোন কারণ ছাড়াই আবারও যান্ত্রিক বিভ্রাটে ইন্টারনেটে লেনদেন করা বিনিয়োগকারীদের ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। দুপুর ১২টা ৪৭ মিনিট থেকে প্রায় সোয়া ঘণ্টা ডিএসইর ওয়েবসাইটে কোন তথ্য হালনাগাদ হয়নি। তবে এ সময়ে ডিএসইর মূল সার্ভার চালু থাকার কারণে লেনদেনে সমস্যা হয়নি। কিন্তু ব্রোকারেজ হাউসের বাইরে থাকা বিনিয়োগকারীদের তথ্য পেতে নানা সমস্যায় পড়তে হয়েছে। ফলে সার্বিক লেনদেনেও কিছুটা নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে বলে বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, মঙ্গলবার ডিএসইতে ৩২৪ কোটি ৬৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের চেয়ে ১০ কোটি টাকা বা ৩ শতাংশ কম লেনদেন। আগের দিন এ বাজারে লেনদেন হয়েছিল ৩৩৪ কোটি ৯৫ লাখ টাকার শেয়ার।

এদিন ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩১৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৯২টির, কমেছে ১৭৭টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৮টির শেয়ার দর।

সকালে বেশিরভাগ কোম্পানির দর বাড়ার কারণে সার্বিক সূচক কিছুটা বেড়েছিল। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই শেয়ার বিক্রির চাপ বাড়তে থাকে। ফলে সূচকের তীর নিচে নেমে যায়। দিনশেষে ডিএসইএক্স বা প্রধান মূল্য সূচক ১৯ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৫১৩ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ৩ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ৯০ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৭১৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হচ্ছে- বেক্সিমকো ফার্মা, কাশেম ড্রাইসেলস, স্কয়ার ফার্মা, এমারেল্ড অয়েল, সিঙ্গার বিডি, সাইফ পাওয়ারটেক, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, রিজেন্ট টেক্সটাইল মিলস, বিএসআরএম স্টিলস এবং ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স।

ডিএসইর দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলোÑ কাসেম ড্রাইসেল, জিকিউ বলপেন, ফিক্সড বাংলাদেশ ফার্স্ট বাংলাদেশ ফান্ড, এ্যাপেক্স ট্যানারি, প্রাইম টেক্স, সিঙ্গার বিডি, এলআরগ্লোবাল ১ম মিউচুয়াল ফান্ড, বিডি ল্যাম্পস, ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্স ও রেনউইক যজ্ঞেশ্বর।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : রিজেন্ট টেক্সটাইল, আইএসএন, সিমটেক্স, মডার্ন ডাইং, এইম ফার্স্ট ১ম মিউচুয়াল ফান্ড, ব্যাংক এশিয়া, ৪র্থ আইসিবি, প্রাইম লাইফ, মাইডাস ফাইন্যান্স ও তসরিফা ইন্ড্রাস্টিজ।

মঙ্গলবার ঢাকার বাজারের মতো অপর লেনদেনের সঙ্গে সব ধরনের সূচকই কমেছে। দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ২১ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৬ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৩ হাজার ৮১৩ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৩৫টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৩টির, কমেছে ১১৫টি এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৭টির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : রিজেন্ট টেক্সটাইল, ফার কেমিক্যাল, সিঙ্গার বাংলাদেশ, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, সিমটেক্স, কাসেম ড্রাইসেল, তিতাস গ্যাস, ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড, বেক্সিমকো ও ইউনাইটেড এয়ার।