২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

পটিয়ায় দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্রে নতুন মেশিন স্থাপন


নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া ॥ বাংলাদেশ দুগ্ধ উৎপাদনকারী সমবায় ইউনিয়ন লিমিটেড (মিল্ক ভিটা) পরিচালিত চট্টগ্রামের পটিয়া দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্রে নতুন মেশিন স্থাপন করা হয়েছে। সোমবার রাতে পাঁচ হাজার লিটারের পরিবর্তে ১০ হাজার লিটার দুধ ধারণক্ষমতাসম্পন্ন মেশিনটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন মিল্ক ভিটার পরিচালক ও বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ সমবায়ী নাজিম উদ্দিন হায়দার।

এই উপলক্ষে পটিয়া দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্র প্রাঙ্গণে অফিস ইনচার্জ মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মিল্ক ভিটার পরিচালক নাজিম উদ্দিন হায়দার। বিশেষ অতিথি ছিলেনÑ সমাজসেবক হাজী সেলিম হক, আশিয়া বাংলা বাজার প্রাথমিক দুগ্ধ সমবায় সমিতির সভাপতি মোঃ ছালেহ জহুর, ইছানগর সমবায় সমিতির সভাপতি জাহিদ সওদাগর, জুলধা সমবায় সমিতির সভাপতি হাজী শাহ আলম, বিনিনিহারা সমবায় সমিতির সভাপতি হারুনুর রশিদ ছিদ্দিকী, উত্তর দেয়াং সমবায় সমিতির সভাপতি মুছা আদর্শ, শিকলবাহা চৌমুহনী সমবায় সমিতির সভাপতি হাজী নুরুল ইসলাম, ডাঙ্গাচর সমবায় সমিতির সভাপতি নেপাল দাশ, মোঃ করিম, মোঃ শাহজাহান, জাফর ইকবাল, হাজী মোঃ শরীফ, মোঃ ফোরকান, মোঃ মহিউদ্দিন, সালাহ্ উদ্দিন, মজিবুর রহমান (পারভেজ)।

মিল্ক ভিটার পরিচালক নাজিম উদ্দিন হায়দার বলেন, খামারিদের সুবিধার্থে ২০১৩ সালে পটিয়া দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠা করা হয়, যার ধারণক্ষমতা ছিল পাঁচ হাজার লিটার। খামারিদের দাবির প্রেক্ষিতে ১০ হাজার লিটার ধারণক্ষমতাসম্পন্ন দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্রে নতুন মেশিনটি স্থাপন করা হয়েছে। তিনি (মিল্ক ভিটার পরিচালক) অভিযোগ করেন, পটিয়া দুগ্ধ শীতলীকরণ কেন্দ্রটি পূর্ণাঙ্গ কারখানায় বাস্তবায়নের অপেক্ষায় রয়েছে। কিন্তু কিছু মিষ্টির দোকারি দুগ্ধশিল্পকে ধ্বংস করতে নিম্নমানের পাউডার আমদানি করে পানি দিয়ে তা তরল করে বাজারজাত করছে। এসব চক্রান্তকারীর বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে তিনি প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানান।