মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বন্দুকযুদ্ধে তিনজন নিহত

প্রকাশিত : ৩ নভেম্বর ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর উত্তরখানে পুলিশের সঙ্গে এবং গাজীপুর ও ঝিনাইদহে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তিনজন নিহত হয়েছে। উত্তরখানে নিহতের নাম মোঃ রাজীব (২৮), গাজীপুরে নিহত সন্ত্রাসীর নাম রফিক এবং ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে মা-মেয়ে পুড়িয়ে হত্যার প্রধান আসামি কামাল শেখ।

র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে গাজীপুরের গজারী বন এলাকায় সন্ত্রাসী রফিক এবং ঝিনাইদহের

কালীগঞ্জে মা ও মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামাল শেখ নিহত হয়েছে। এ সময় গাজীপুর থেকে বিদেশী পিস্তল, গুলিসহ ম্যাগজিন, চাপাতি এবং ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। খবর নিজস্ব সংবাদদাতার।

গাজীপুরে নিহত সন্ত্রাসী রফিকুল ইসলাম ওরফে রফিক (৩৪) সদর উপজেলার বনগ্রাম এলাকার মৃত ফনি পাগলা ওরফে ইব্রাহিম খাঁর ছেলে। রফিকুলের বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় অস্ত্র ও চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অভিযোগে একাধিক মামলা রয়েছে।

র‌্যাব-১’র পোড়াবাড়ি ক্যাম্পের সিনিয়র সহকারী পরিচালক জিয়াউর রহমান সাংবাদিকদের জানান, রবিবার দিনগত রাত দেড়টার দিকে সদর উপজেলার ভাওয়াল জাতীয় উদ্যানের পাশে কুমারখাদার গজারী বন এলাকায় কয়েক অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী অবস্থান করছে এমন তথ্যের ভিত্তিতে র‌্যাব-১ ’র একটি টহল সেখানে অভিযান চালায়। এ সময় র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা র‌্যাব সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুড়লে র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়ে। এতে ঘটনাস্থলে রফিকুল ইসলাম নামের ওই যুবক গুলিবিদ্ধ হয় এবং অন্য সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। বন্দুকযুদ্ধে র‌্যাবের দু’সদস্য এসআই নাসির (৩৫) ও নায়েক আবুল হোসেন (৪৫) আহত হয়েছেন। পরে আহত রফিককে উদ্ধার করে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ব্যাপারে হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক আব্দুস সালাম সরকার বলেন, নিহত যুবককে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তার বুকে ও পেটের বামপাশে গুলির একাধিক চিহ্ন ছিল।

এদিকে সোমবার ভোররাতে ঝিনাইদহ-যশোর সড়কের কড়াইতলা নামক স্থানে র‌্যাব চেকপোস্ট বসিয়ে একটি মোটরসাইকেল থামানোর চেষ্টা করলে গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় মিলন সাহা নামে এক র‌্যাব সদস্য আহত হয়েছে।

ঝিনাইদহ র‌্যাবের অধিনায়ক মেজর মোহাম্মদ সুরুজ মিয়া বলেন, রাতে র‌্যাবের একটি টহলদল ঝিনাইদহ-যশোর সড়কে চেকপোস্ট বসায়। ভোরের দিকে একটি মোটরসাইকেলে ৩ জন যাচ্ছিল। তাদেরকে থামতে বললে তারা র‌্যাবের চেকপোস্ট লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে পালানোর চেষ্টা করে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি চালায়। সে সময় মোটরসাইকেলের পেছন থেকে গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন পড়ে যায়। বাকি দুজন পালিয়ে যায়। আহত ব্যক্তির কাছে ১টি গুলিভর্তি পিস্তল পাওয়া যায়। তাকে উদ্ধার করে কালীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত র‌্যাবের কনস্টেবল মিলন সাহাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। তিনি আরও জানান, সকাল ৯টার পর হাসপাতালে মৃতদেহ দেখে স্থানীয় লোকজন নিহত ব্যক্তিকে শনাক্ত করে। গত ২০ অক্টোবর ভোররাতে কালীগঞ্জে ঘরে পেট্রোল ছিটিয়ে আগুন দিয়ে মা-মেয়েকে পুড়িয়ে হত্যা মামলার প্রধান আসামি কামাল শেখ বলে তারা জানায়।

এদিকে পুলিশ জানায়, নিহত রাজীব তাঁতীবাজারে গয়নার দোকানের কর্মীকে গুলি করে ২৫ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের হোতা। সোমবার পুলিশ ও মেডিক্যাল সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

পুলিশ জানায়, রাজধানীর উত্তরখান তুরাগ নদীর তীরে আসামি-পুলিশের বন্দুকযুদ্ধে মোঃ রাজীব নামে এক যুবক নিহত হয়েছে। নিহত রাজীব ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকায় বসবাস করতেন। এ সময় পুলিশ তার মৃতদেহের পাশ থেকে চার রাউন্ড গুলিভর্তি পিস্তল উদ্ধার করে। উত্তরখান থানার ওসি মোঃ ইউনুস আলী জানান, রবিবার রাতে রাজীবকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক সোমবার ভোরের দিকে অন্য আসামিদের ধরতে তাকে নিয়ে অভিযান চালানো হয়। তুরাগ নদীর কাছে শহীদনগর এলাকায় এলে সন্ত্রাসীরা তাকে ছাড়িয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এ সময় আসামি পক্ষরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পুলিশ আত্মরক্ষার্থে গুলি চালায়। এতে রাজীব গুলিবিদ্ধ হয়। পরে তাকে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে নিয়ে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন। পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ মর্গে পাঠায়।

ওসি জানান, পুরনো ঢাকার কোতোয়ালির তাঁতীবাজারে একটি স্বর্ণের দোকানে ২৫ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের নায়ক ছিল রাজীব। পুরনো ঢাকার কোতোয়ালি জোনের পুলিশের জ্যেষ্ঠ সহকারী কমিশনার মুহাম্মদ আহাদুজ্জামান জানান, পুরনো ঢাকার তাঁতীবাজার ও ইসলামপুর এলাকায় কয়েকটি ছিনতাইয়ের মূল আসামি রাজীব। তিনি জানান, দুর্গাপূজার সময় এক সোনার দোকানের কর্মচারীকে গুলি করে ২৫ লাখ টাকা ছিনিয়ে নেয়া হয়। রাজীব ওই ঘটনার হোতা। ওসি জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোতোয়ালি থানা পুলিশ রবিবার রাত ১০টার দিকে রাজীবকে দক্ষিণখান এলাকার এক গলি থেকে আটক করে। এরপর তার অন্য সহযোগীদের ধরতে তাকে নিয়ে সোমবার ভোরেরদিকে অভিযানে বের হয় কোতোয়ালি থানা পুলিশ। তুরাগ নদীর পাশে শহীদনগর এলাকায় এলে পুলিশের দিকে গুলি চালায় রাজীবের লোকজন। পুলিশও পাল্টা জবাব দেয়। গোলাগুলির এক ফাঁকে রাজীব দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করে। পরে গোলাগুলি থামলে পুলিশ তল্লাশি শুরু করে। সেখানে রাজীবকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে একটি ক্লিনিকে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

প্রকাশিত : ৩ নভেম্বর ২০১৫

০৩/১১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: