২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

রাজশাহীতে শেষ হলো ঠাকুর নরোত্তমের তিরোভাব মহোৎসব


স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী ॥ প্রথম প্রহরে দধিমঙ্গল ও দুপুরে ভোগ আরতির মধ্যে দিয়ে সোমবার রাজশাহীর গোদাগাড়ীর খেতুরীধামে শেষ হলো তিনদিনব্যাপী ঠাকুর নরোত্তম দাসের তিরোভাব তিথি মহোৎসব। শনিবার সন্ধ্যায় শুভ অধিবাসের মধ্যে দিয়ে আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়। রবিবার অরুণোদয় হতে অষ্ট প্রহরব্যাপী তারক ব্রহ্মনাম সংকীর্ত্তনের মাধ্যমে পালিত হয় উৎসবের মূল আনুষ্ঠানিকতা।

বৈষ্ণব ধর্মাবলাম্বীদের বিশ্বে চতুর্থতম ও বাংলাদেশের একমাত্র এই ধামে অহিংসার মহান সাধক ঠাকুর নরোত্তম দাসের তিরোভাব তিথি মহোৎসবে যোগ দিতে সপ্তাহের শুরু থেকে প্রায় ছয় লাখ ভক্তের আগমন ঘটে খেতুরীধামে। তিন দিনের ধর্মীয় আনুষ্ঠানিকতা শেষে সোমবার দুপুর থেকেই দেশ-বিদেশের হাজার হাজার ভক্ত খেতুরীধাম ত্যাগ করতে থাকেন।

ভারতের মুর্শিদাবাদ থেকে এসেছিলেন নারায়ণ ভট্টাচার্য। সোনামসজিদ স্থলবন্দর হয়ে মঙ্গলবার সকালে রওনা দেন তিনি। মন্দির ত্যাগের আগে তিনি বলেন, সনাতন ধর্মে গয়া-কাশি ও বৃন্দাবনের পরের স্থান খেতুরীধাম। এই ধর্মের মোট ৬টি ধামের মধ্যে খেতুরের স্থান চতুর্থতম। একমাত্র খেতুরীধাম ছাড়া বাকি সব ধামগুলোই ভারতবর্ষে। ওইসব ধাম গমন শেষে খেতুরীধাম না আসলে তীর্থযাত্রা অসম্পূর্ণই থেকে যায়।

এদিকে বৈষ্ণব ধর্মাবলাম্বীদের মহাগুরু লোকনাথ গোস্বামীর একমাত্র শিষ্য ঠাকুর নরোত্তম দাসের তিরোভাব তিথিকে ঘিরে এবার উৎসবস্থল ও পার্শ্ববর্তী পাঁচ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা, ওয়াচ টাওয়ার ও ৫টি সিসি ক্যামেরার মাধ্যমে নিরাপত্তা গ্রহণ করা হয়।

মানিকগঞ্জে বিদ্যুতস্পৃষ্টে কৃষকের মৃত্যু

নিজস্ব সংবাদদাতা, মানিকগঞ্জ, ২ নবেম্বর ॥ সাটুরিয়া উপজেলায় বিদ্যুতস্পৃষ্ট হয়ে বাচ্চু মিয়া (৪৮) নামে এক কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার সকালে উপজেলার বরাইদ ইউনিয়নের পাতিলাপাড়া এলাকায় ওই দুর্ঘটনাটি ঘটে। বাচ্চু মিয়া ওই এলাকার মৃত মাগল শেখের ছেলে । পেশায় সে একজন কৃষক। বাড়ির গাছের ডালপালা পরিষ্কার করার সময় অসাবধনতার কারণে ডালপালাসহ তিনি বিদ্যুতস্পৃষ্ট হন।