মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৮ আশ্বিন ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

৫ দিন পরে পুঁজিবাজারে সূচক বাড়ল

প্রকাশিত : ৩ নভেম্বর ২০১৫
  • লেনদেন প্রায় ৩শ’ কোটি টাকা

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ অবশেষে দরপতন থেমেছে দেশের পুঁজিবাজারে। টানা পাঁচ দিন শেয়ার বিক্রির চাপে সূচকের পতনের পর সোমবার দেশের উভয় পুঁজিবাজারে সূচক বেড়েছে। দিনটিতে প্রথম দুই ঘণ্টায় সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় লেনদেন হলেও শেষ দুই ঘণ্টায় পুঁজিবাজার ঘুরে দাঁড়ায়। সূচকের এই বৃদ্ধির ফলে পতনের বৃত্ত থেকে বের হয়ে আসতে সক্ষম হয় বাজার। বেশিরভাগ কোম্পানির দর বাড়ায় সূচক বাড়লেও দিনটিতে লেনদেন খুব বেশি পরিবর্তন আসেনি। প্রধান বাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে দিনটিতে প্রায় ৩শ’ কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে।

বাজার পর্যালোচনায় দেখা গেছে, সোমবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স বেড়েছে ২১.২০। দিনশেষে সূচক গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৪ হাজার ৫৩৬.০৫ পয়েন্টে। এর আগে গত পাঁচ দিনের পতনে সূচক কমেছিল ১৩৫ পয়েন্ট। এতে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স সাড়ে ৪ হাজার পয়েন্টের নিচে নেমে আসার উপক্রম হয়েছিল। তবে সোমবার বাজার ঘুরে দাঁড়ানোর কারণে সাড়ে ৪ হাজার পয়েন্টের উপরে অবস্থান করছে সূচক। ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ৩১৮ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দিনশেষে দর বেড়েছে ১৬৫, কমেছে ১০২ ও অপরিবর্তিত রয়েছে ৫১টির দর।

পুঁজিবাজারে লেনদেন ৩শ’ কোটি টাকার ঘরেই সীমাবদ্ধ হয়ে পড়েছে। সোমবার দিনশেষে লেনদেন হয়েছে ২৯০ কোটি ৫২ লাখ টাকা। রবিবারের তুলনায় লেনদেন বেশি হয়েছে ২২ কোটি ৬৮ লাখ টাকা।

ডিএসইর প্রধান খাতগুলোর মধ্যে প্রকৌশল, জ্বালানি, খাদ্য, ওষুধ ও রসায়ন খাতের বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দর বাড়লেও মিশ্রাবস্থায় লেনদেন শেষ হয়ে ব্যাংক, বস্ত্র ও বীমা খাতে। দিনটিতে প্রকৌশল খাতের মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৬৬ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ২২ দশমিক ৭৫ ভাগ। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে ওষুধ এবং রসায়ন খাতটি। পুরোদিনে খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৪৮ কোটি টাকা, যা মোট লেনদেনের ১৬ দশমিক ৫৩ ভাগ। তৃতীয় অবস্থানে ছিল জ্বালানি এবং শক্তি খাতটি। খাতটির মোট লেনদেনের পরিমাণ দাঁড়ায় ৩৩ কোটি ৬৬ লাখ টাকা, যা মোট লেনদেনের ১১ দশমিক ৫৮ ভাগ।

সোমবারে লেনদেনের শীর্ষে রয়েছে ইফাদ অটোস। দিনশেষে কোম্পানিটির ২৫ কোটি ৭৮ লাখ ৩১ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে থাকা স্কয়ার ফার্মার লেনদেন হয়েছে ১৮ কোটি ২২ লাখ ৭২ হাজার টাকা। ১০ কোটি ২৯ লাখ ৫৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেনে তৃতীয় স্থানে রয়েছে গ্রামীণফোন। এরপরে রয়েছে লাফার্জ সুরমা, বেক্সিমকো ফার্মা, কেডিএস এক্সেসরিজ, মোজাফ্ফর হোসাইন স্পিনিং মিলস, কাশেম ড্রাইসেল, শমরিতা হসপিটাল, খুলনা পাওয়ার।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সিএসসিএক্স ৫৩.৩৬ পয়েন্ট বেড়ে দিনশেষে ৮ হাজার ৪৪০.৭৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। লেনদেন হয়েছে ২০ কোটি ৪০ লাখ টাকা। লেনদেনে অংশ নেয়া কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১১৭টির, কমেছে ৮৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ২৬টির দর।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো- লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, কেডিএস এক্সেসরিজ, ইফাদ অটোস, শাহজিবাজার পাওয়ার, অলিম্পিক ইন্ড্রাস্টিজ, সাইফ পাওয়ার, বেক্সিমকো ফার্মা, সি এ্যান্ড এ টেক্সটাইল, বেক্সিমকো ও ফার কেমিক্যাল।

প্রকাশিত : ৩ নভেম্বর ২০১৫

০৩/১১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: