১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

দুই পাহারাদার হত্যা সিলেটে ১০৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা, কেউ গ্রেফতার হয়নি


স্টাফ রিপোর্টার, সিলেট অফিস ॥ কোম্পানীগঞ্জে দুই পাহারাদারকে হত্যা করে জলমহাল দখলের ঘটনায় বিএনপি নেতা তোরাব আলীসহ ১০৬ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন শিমুলতলা নোয়াগাঁও অগ্রগামী মৎস্যজীবী সমবায় সমিতির সভাপতি আবদুল হক সরকার। রবিবার সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে লাশ দুটির ময়নাতদন্ত শেষে সন্ধ্যায় কোম্পানীগঞ্জ থানায় এ মামলা দায়ের করেন তিনি। তবে ঘটনার দু’দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ জড়িতদের গ্রেফতার কিংবা ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করতে পারেনি।

শনিবার বিকেলে তোরাব আলীর নেতৃত্বে সন্ত্রাসীরা এলোপাতাড়ি গুলি ছুঁড়ে জলমহালটি নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেয়।

মামলায় বাদী উল্লেখ করেছেন, ‘ছোট দুলাইন সিংগাইর’ নামের জলমহালটির সংস্কার ও উন্নয়নের স্বার্থে ২০১০ সালে ভূমি মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনে সিলেটের জেলা প্রশাসন থেকে ৬ বছর মেয়াদী ইজারা গ্রহণ করে শিমুলতলা নোয়াগাঁও অগ্রগামী মৎস্যজীবী সমবায় সমিতি। কিন্তু পরবর্তীতে বিভিন্ন সময় স্থানীয় সন্ত্রাসীরা এ জলমহাল দখল করার পাঁয়তারা করে। এর ধারাবহিকতায় শনিবার বিকেলে স্থানীয় বিএনপি নেতা তোরাব আলী, কালা মিয়া, খসরু, তাজ উদ্দিনসহ অন্যরা গিয়ে এলোপাতাড়ি গুলি ছুড়ে তাদের দখলে নেয় জলমহালটি। এ সময় তাদের গুলিতে শেখ ফরিদ ও আবদুল খালিক নামের জেলা প্রশাসন পক্ষের ইজারাদের দুই পাহারাদার নিহত হয়। গুলিবিদ্ধ হয় আরও অন্তত ১২ জন।

জানতে চাইলে কোম্পানীগঞ্জ থানার ওসি দেলোয়ার হোসেন এজাহার পাওয়ার কথা স্বীকার করে মামলা রেকর্ড হওয়ার প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান। তিনি জানান, এ ঘটনায় কেউ গ্রেফতার হয়নি এবং কোন অস্ত্রও উদ্ধার হয়নি। তবে বাদী পক্ষের অভিযোগ, ইউনুস আলী মেম্বার নামের একজনকে আটক করা হলেও তাকে ছেড়ে দেয় পুলিশ।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: