১৪ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

সাকা-মুজাহিদের রিভিউ আবেদনের ফলাফল নিয়ে চট্টগ্রামে নানা জল্পনা


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ মানবতাবিরোধী অপরাধে ফাঁসির দ-প্রাপ্ত বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী (সাকা চৌধুরী) ও জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল আলী আহসান মুজাহিদের মামলার রিভিউ শুনানির দিন আজ সোমবার। এ নিয়ে চট্টগ্রামের রাজনৈতিক অঙ্গনে, বিশেষ করে সাকা চৌধুরীর নির্বাচনী এলাকা রাঙ্গুনীয়া ও রাউজানের মানুষের মধ্যে এখন চলছে নানা জল্পনা। পাশাপাশি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী রয়েছে সতর্কাবস্থায়। আজই পরিষ্কার হয়ে যাবে এই দুই যুদ্ধাপরাধীর শেষ পরিণতি। এ নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের রাজনৈতিক দলসমূহ আশা করছে শেষ পর্যন্ত ফাঁসির রায় বহাল থেকে এই দুই যুদ্ধাপরাধীর সর্বোচ্চ দ- কার্যকর হবে।

সর্বোচ্চ আদালতে আজ সোমবারই নির্ধারিত হয়ে যাবে সাকা চৌধুরীর ভাগ্য। এ্যাটর্নি জেনারেল এবং আইন বিশেষজ্ঞরা আশা করছেন শেষ পর্যন্ত এই যুদ্ধাপরাধীর পার পাওয়ার কোন সুযোগ নেই। তার আইনজীবীর পক্ষ থেকে ৫ পাকিস্তানী নাগরিকের সাক্ষ্য গ্রহণের আবেদন থাকলেও রিভিউ পর্যায়ে এসে তা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন আইনজীবীরা। যদি তাই হয়, বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সাকা চৌধুরীকে ফাঁসির দড়িতেই ঝুলতে হবে। আর কবে নাগাদ এ দ- কার্যকর হতে পারে এই নিয়েও চলছে নানা আলোচনা। চলতি নবেম্বরের মধ্যেই সাকা চৌধুরীর দ- কার্যকর হতে পারে এমন গুঞ্জন রয়েছে। আবার অনেকেই মনে করছেন, এত তাড়াহুড়ো না হলেও আগামী বিজয় দিবসের আগে অবশ্যই এই রায় কার্যকর হবে। এদিকে, সাকা চৌধুরীর ফাঁসির দ- চূড়ান্ত পর্যায়েও বহাল থাকলে চট্টগ্রামে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটবে কিনা তা নিয়ে সতর্কাবস্থায় রয়েছে পুলিশ প্রশাসন। বিশেষ করে তার জন্মভূমি রাউজান এবং নির্বাচনী এলাকা রাঙ্গুনীয়া ও ফটিকছড়ির ওপর রয়েছে সর্বোচ্চ নজরদারি। ওই এলাকায় পর্যাপ্তসংখ্যক পুলিশ ও র‌্যাব মোতায়েন রয়েছে। তবে অনেক আশঙ্কা থাকলেও শেষ পর্যন্ত সাকা চৌধুরীর দ- বহাল ও কার্যকর হলে কিছুই ঘটবে না বলে মনে করছে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি।