মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ১০ আশ্বিন ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

পুঁজিবাজারে ৭৬ ভাগ কোম্পানির দরপতন

প্রকাশিত : ১ নভেম্বর ২০১৫, ০৫:১৯ পি. এম.

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চলতি মাসের প্রথম কার্যদিবসে দেশের উভয় পুঁজিবাজারে সূচকের নিম্নমুখী প্রবণতায় শেষ হয়েছে লেনদেন। এই নিয়ে টানা পাঁচ দিনের মতো প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক একচেঞ্জে সূচকের পতন ঘটলো। রবিবারে সকালে শুরু থেকেই বিক্রয় চাপে ক্রমাগত পড়তে থাকে সূচক। শেষ বেলাতেও যা অব্যাহত ছিল। দিনশেষে উভয় বাজারেই সূচকের পাশাপাশি কমেছে অধিকাংশ কোম্পানির শেয়ার দর। আর টাকার অংকে আগের দিনের তুলনায় লেনদেনও কমেছে। দিনটিতে ডিএসইতে মোট ৭৬ শতাংশ কোম্পানির দর পতন হয়েছে।

পর্যালোচনায় দেখা গেছে, প্রান্তিক প্রতিবেদন প্রকাশ করা অধিকাংশ কোম্পানির মুনাফা বেড়েছে। পাশিপাশি জুন ক্লোজিং কোম্পানিগুলো লভ্যাংশ আগের বছরের তুলনায় কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে। কিন্তু এর প্রভাব বাজারে পড়ছে না। বরং প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের শেয়ার ক্রয়ে নিষ্কিয়তা, বড় মূলধনী শেয়ারের অব্যাহত দরপতন, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের শেয়ার বিক্রির গুজব এবং সর্বশেষ ব্যাংকের এক্সপোজার লিমিট নিয়ে নিয়ন্ত্রক সংস্থার সমন্বয় সভাকে কেন্দ্র করে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের মধ্যে এক ধরণের সংশয়, আস্থাহীনতা কাজ করছে বলে মনে করছেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

সকালে ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরে দিনশেষে ডিএসইর সার্বিক সূচক আগের দিনের চেয়ে ৪৯ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৪ হাজার ৫১৪ পয়েন্টে। আর ডিএসই শরিয়াহ সূচক ১১ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৮১ পয়েন্টে এবং ডিএসই-৩০ সূচক ১৬ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ১ হাজার ৭০৯ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ৩১৭টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৪৮টির, কমেছে ২৪২টির আর অপরিবর্তিত রয়েছে ২৭টি কোম্পানির শেয়ার দর। ডিএসইতে লেনদেন হয়েছে ২৬৭ কোটি ৮৪ লাখ ১৯ হাজার টাকা।

ডিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : খুলনা পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, ইফাদ অটোস, শমরিতা হসপিটাল, কেডিএস এক্সেসরিজ, শাহজিবাজার পাওয়ার, বে´িমকো ফার্মা, আমান ফিড, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল ও সিভিও পেট্রো কেমিক্যাল।

দরবৃদ্ধির সেরা কোম্পানিগুলো হলো : মিরাকল ইন্ড্রাস্টিজ, শমরিতা হসপিটাল, জাহিন স্পিনিং, দেশ গার্মেন্টস, ন্যাশনাল ফিড মিলস, জেমিনি সী ফুড, এ্যাপেক্স স্পিনিং, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, জিএসপি ফাইনান্স ও ইফাদ অটোস।

দর হারানোর সেরা কোম্পানিগুলো হলো : সামাতা লেদার, হাক্কানী পাল্প, কোহিনূর কেমিক্যাল, ফাইন ফুডস, বিডি ওয়েল্ডিং, ঝিল বাংলা, আজিজ পাইপস, কে অ্যান্ড কিউ, ইমাম বাটন ও শাইনপুকুর সিরামিক।

এদিকে দিনশেষে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) সাধারণ মূল্য সূচক ১০৪ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে ৮ হাজার ৩৮৭ পয়েন্টে। দিনভর লেনদেন হওয়া ২২৯টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৭টির, কমেছে ১৮৬টির ও দর অপরিবর্তিত রয়েছে ১৬টির। যা টাকার অংকে লেনদেন হয়েছে ১৬ কোটি ৯৪ লাখ ৯৫ হাজার টাকা।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, কেডিএস এক্সেসরিজ, সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল, বে´িমকো ফার্মা, শাহজিবাজার পাওয়ার, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, শমরিতা হসপিটাল, ইউনাইটেড এয়ার, ন্যাশনাল ফিড ও আমান ফিড।

প্রকাশিত : ১ নভেম্বর ২০১৫, ০৫:১৯ পি. এম.

০১/১১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: