১৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৮, ৬ ফাল্গুন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকা-ে যুদ্ধ বেধে যেতে পারে ॥ চীনের নৌবাহিনী প্রধান

প্রকাশিত : ১ নভেম্বর ২০১৫

দক্ষিণ চীন সাগরে মার্কিন যুদ্ধ জাহাজের টহল ঘটনায় বেজিং হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, ওয়াশিংটনের আক্রমণাত্মক কর্মকা-ে যুদ্ধের সূচনা ঘটতে পারে। অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্র-চীনের টহল ঘটনার ব্যাপারে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) শুক্রবার ওয়াশিংটনের পক্ষ নিয়েছে। ইইউয়ের এ সিদ্ধান্তে আগামী সপ্তাহে পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এশিয়া-ইউরোপ মিটিংয়ে (এসিম) বেজিংয়ের সঙ্গে ব্রাসেলসের আলোচনা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। খবর ডেইলি এক্সপ্রেস অনলাইন ও ওয়েবসাইটের।

চীনা নৌবাহিনী প্রধান এ্যাডমিরাল উ শেংলি এক ভিডিও কনফারেন্সকালে তার মার্কিন প্রতিপক্ষ এ্যাডমিরাল জন রিচার্ডসনের সঙ্গে উত্তেজনাপূর্ণ কথাবার্তার সময় ওই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। একটি মার্কিন যুদ্ধজাহাজ মঙ্গলবার প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ স্প্রেটলি দ্বীপপুঞ্জে বেজিংয়ের একটি অন্যতম কৃত্রিম দ্বীপের ১২ নটিক্যাল মাইলের মধ্যে চলে আসার পর এ উত্তেজনাপূর্ণ সংলাপ হয়। শেংলি এক বিবৃতিতে বলেন, যুক্তরাষ্ট্র এ ধরনের ঝুঁকিপূর্ণ আক্রমণাত্মক কর্মকা- অব্যাহত রাখলে সমুদ্র ও আকাশে উভয়পক্ষের রণাঙ্গনের সৈন্যদের মধ্যে অত্যন্ত কঠিন পরিস্থিতির এমনকি ছোটখাটো ঘটনারও সৃষ্টি হতে পারে যা থেকে বেঁধে যায় যুদ্ধ। তিনি বলেন, আমি প্রত্যাশা করি, চীনা ও মার্কিন নৌবাহিনীর মধ্যে ভাল পরিস্থিতি বজায় থাকবে, এমনটাই পোষণ করে যুক্তরাষ্ট্র। ইইউয়ের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্র নৌচলাচলের স্বাধীনতা প্রয়োগ করছে। তিনি বলেন, বিরোধপূর্ণ চীন সাগরে বেজিংয়ের কৃত্রিম দ্বীপ নির্মাণের পরিকল্পনার ব্যাপারে উদ্বিগ্ন ইইউ।

প্রকাশিত : ১ নভেম্বর ২০১৫

০১/১১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বিদেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: