মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ভুল অপারেশনে রোগীর মৃত্যু ॥ তদন্তে অনুপস্থিত ডাক্তার

প্রকাশিত : ১ নভেম্বর ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ জেলার নাগেশ্বরীর জনতা ক্লিনিক ও মেডিক্যাল ইনস্টিটিউটে ভুল অপারেশনে রোগী মৃত্যুর ঘটনায় কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জনের নেতৃত্বে তিন সদস্যের দল তদন্ত করেছে। শুক্রবার সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ ও রোগীর স্বজনের সঙ্গে কথা বলেন তদন্তকারীরা। এ সময় অভিযুক্ত চিকিৎসক আমিনুর রহমান উপস্থিত ছিলেন না। তিনি বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত রয়েছেন। সবকিছু মিলে হতাশ সিভিল সার্জন।

কুড়িগ্রাম সিভিল সার্জন জয়নাল আবেদীন জানান, তদন্ত হলো। ফিরে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রতিবেদন দেয়া হবে। অভিযুক্ত চিকিৎসক আমিনুর রহমানের অনুপস্থিতির বিষয়ে তিনি বলেন, তাকে অফিসিয়ালি নোটিসের মাধ্যমে উপস্থিত থাকতে বলা হয়। তিনি আসেননি। চাকরি করেন অনেক দূরে বরিশালে। এখানে এসে কি করে অপারেশন করেন তা বোধগম্য নয়। ক্লিনিকের বিষয়ে বলেন, অনেক কিছুতে হতাশ আমরা। বাকিটা পরে দেখা যাবে। তদন্ত দলের অন্য দুই সদস্যরা ছিলেন, কুড়িগ্রাম সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. অজয় ও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা. নজরুল ইসলাম।

গত ২২ অক্টোবর সন্ধ্যায় জনতা ক্লিনিক ও মেডিক্যাল ইনস্টিটিউটে পৌর এলাকার মাজারপাড়া গ্রামের ইলেক্ট্রিশিয়ান আতাউর রহমানের স্ত্রী শরিফা বেগমের পিত্তথলিতে পাথর অপারেশন করেন বরিশাল শেরেবাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে কর্মরত ডাঃ আমিনুর রহমান। ২৪ অক্টোবর সন্ধ্যায় রোগীর অবস্থার অবনতি হলে ক্লিনিক কর্তৃপক্ষ মাইক্রোবাসে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠালে যাওয়ার পথে রোগী মারা যায়।

প্রকাশিত : ১ নভেম্বর ২০১৫

০১/১১/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: