২৩ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

অনিয়মকারীদের ডাটাবেস হচ্ছে॥ গবর্নর


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ব্যাংক ও আর্থিক খাতে সুশাসন প্রতিষ্ঠায় কোন রকমের ছাড় দেয়া হবে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নর ড. আতিউর রহমান। ব্যাংকিং খাতে যারা অনিয়মের সঙ্গে জড়িত তাদের বিস্তারিত তথ্য নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকে ডাটাবেস তৈরি করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন তিনি। শনিবার দুপুরে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে বেসরকারী প্রাইম ব্যাংক ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে শিক্ষাবৃত্তি প্রদান অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. আতিউর বলেন, ব্যাংক খাতে যে জঞ্জাল বছরের পর বছর পর জমা হয়ে আছে, তা অল্প সময়ের মধ্য দূর করা বেশ কঠিন। তবে কার্পেটের নিচে যে ময়লা জমেছে, সেই ময়লা আমরা এখন বের করার চেষ্টা করছি। আর এটা করছি বলেই পরিবেশ ধুলাময় হচ্ছে এবং সেটাকে অনেকেই ভুল বুঝেন। তিনি বলেন, ব্যাংকিং খাতে বিশেষ করে পরিচালনা পর্ষদের সদস্য যারা নিজেদের আইন ও বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম কানুন মানতে চাচ্ছেন না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এই প্রক্রিয়া চলছে এবং চলবে। তিনি আরও বলেন, ডাটাবেস তৈরি হলে অনিয়মকারীদের থেকে সতর্ক থাকা যাবে। একই সঙ্গে তাদের কাজে নেয়া থেকে অবহেলার সুযোগ তৈরি হবে। অনুষ্ঠানে প্রাইম ব্যাংকের চেয়ারম্যান আজম জে চৌধুরী বলেন, কিছু বেসরকারী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের নাম করে অর্থ নিয়ে ঠিক জায়গায় কাজে লাগাচ্ছে না। আবার অনেকেই শেয়ার ব্যবসায় অর্থ বিনিয়োগ করছে। চুরির ঘটনাও ঘটছে। আমাদের এই দুর্বৃত্তায়ন ঠেকাতে হবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, প্রাইম ব্যাংক ফাউন্ডেশন শিক্ষা সহায়তা কর্মসূচীর আওতায় ২০০৭ সাল থেকে এ পর্যন্ত ২৪৪৫ জন মেধাবী শিক্ষার্থীকে বৃত্তি প্রদান করেছে। শিক্ষাবৃত্তির পাশাপাশি ইংলিশ মিডিয়াম স্কুল, জেনারেল ও আই হসপিটাল, নার্সিং ইনস্টিটিউট, ক্রিকেট ক্লাব প্রতিষ্ঠা করেছে ব্যাংকটি। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শিক্ষাবিদ ও প্রাইম ব্যাংক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান নাদির খান, উপদেষ্টা এ কিউকে তালুকদার, প্রধান নির্বাহী ড. ইকবাল আনোয়ার, প্রাইম ব্যাংক পরিচালনা পর্ষদের পরিচালক নাজমা হক প্রমুখ। শনিবার অপর এক অনুষ্ঠানে গবর্নর বলেন, অনলাইন লেনদেনের প্রযুক্তি রিয়েল টাইম গ্রস সেটেলমেন্ট (আরটিজিএস) চালুর ফলে এখন বড় অঙ্কের লেনদেনের ক্ষেত্রে দীর্ঘসময় অপেক্ষা করতে হবে না। এর মধ্য দিয়ে দেশের লেনদেন ব্যবস্থাপনা এক নতুন উচ্চতায় উন্নীত হলো যা অগ্রগতির একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ। ‘বাংলাদেশে লেনদেন প্রক্রিয়ার উন্নতি : আরটিজিএস) শীর্ষক সেমিনারটি বাংলাদেশ ব্যাংক ও এশিয়ান উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি) আয়োজন করে। গবর্নর বলেন, আরটিজিএসর মাধ্যমে আন্তঃব্যাংক লেনদেন সহজ ও স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় দ্রুত সম্পন্ন হবে। রেমিটেন্স প্রেরণকারীরাও এ সেবা পাবেন। তাদের পাঠানো কষ্টার্জিত অর্থ এখন তাৎক্ষণিকভাবে দেশে পৌঁছে যাবে। সেমিনারে আরও বক্তব্য রাখেন এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর কাজুহিকো হিগুচি, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গবর্নর নাজনীন সুলতানা, অর্থ মন্ত্রণালয়ের ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব ড. মোঃ আসলাম আলম ও মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ ড. বিরুপাক্ষ পাল।

বক্তারা বলেন, আরটিজিএস বাস্তবায়নের মাধ্যমে দেশে আন্তঃব্যাংক লেনদেনে নতুন মাত্রা সংযোজিত হলো। দেশের অভ্যন্তরে বৃহত আন্তঃব্যাংক লেনদেনগুলো তাৎক্ষণিক নিষ্পত্তি হবে। এ ব্যবস্থার ফলে কল মানি মার্কেটের লেনদেনগুলো তাৎক্ষণিক ঝুঁকিবিহীন ও অনলাইনে নিষ্পত্তি সহজ হবে।