২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ক্যান্সার প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধির পরামর্শ


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ক্যান্সার প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করার পরামর্শ দিয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খান। তিনি বলেন, ক্যান্সার একটি দুরারোগ্য ব্যাধি। এ রোগের চিকিৎসাও বেশ ব্যয়বহুল। যথাযথ চিকিৎসা করাতে না পেরে অকালে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন অনেক রোগী। তবে প্রাথমিক পর্যায়ে শনাক্ত করা গেলে ক্যান্সার প্রতিরোধ করা সম্ভব। শনিবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশ সোসাইটি অব কলপোসকপিক এ্যান্ড সার্ভিক্যাল প্যাথলজির (বিডিএসসিসিপি) প্রথম বার্ষিক সাধারণ সভা ও জাতীয় বৈজ্ঞানিক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বাংলাদেশ সোসাইটি ফর কল্পোস্কোপি এ্যান্ড সারভাইক্যাল প্যাথলজির প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডাঃ সাবেরা খাতুনের সভাপতিত্বে সম্মেলনে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় অধ্যাপক ডাঃ শাহলা খাতুন, অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল বায়েছ ভূঁইয়া, অধ্যাপক এ.জি.ই নাহার রহমান। সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অবসটেটিক্স এ্যান্ড গাইনোকোলজিক্যাল সোসাইটি অব বাংলাদেশের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক রওশন আরা। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বিডিএসসিসিপির সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ আশরাফুন্নেসা। ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন বিএসএমএমইউর প্যাথলজি বিভাগের অধ্যাপক ডাঃ মোহাম্মদ কামাল। এর আগে সকাল ৮টায় স্তন ক্যান্সার প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক গেটের সামনে শাহবাগের প্রধান সড়কে একটি পিংক (গোলাপী) শো অনুষ্ঠিত হয়।

শিশু গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিষয়ক আন্তর্জাতিক সম্মেলন ॥ এদিকে শনিবার সকাল ১০টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ব্লকের নিচ তলায় শহীদ ডাঃ মিলন হলে বাংলাদেশ সোসাইটি ফর প্যাডিয়াট্রিক গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি এ্যান্ড নিউট্রিশনের উদ্যোগে ২য় আন্তর্জাতিক প্যাডিয়াট্রিক (শিশু) গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি কনফারেন্স এ্যান্ড সায়েন্টিফিক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেমিনারে প্রধান মাননীয় উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খান। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সোসাইটি ফর প্যাডিয়াট্রিক গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি এ্যান্ড নিউট্রিশনের সভাপতি অধ্যাপক এমএফএইচ নাজির।