২৩ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৪ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

প্রশ্ন নাসিমের খালেদা জিয়া কি তারেকের হাতে বন্দী?


বিশেষ প্রতিনিধি ॥ বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া লন্ডনে তার ছেলে তারেক রহমানের হাতে বন্দী কি না এমন সংশয় ও সন্দেহ প্রকাশ করে আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, খালেদা জিয়া এখন নিজের ইচ্ছায় কোন সিদ্ধান্ত নিতে পারছেন কি না, জানি না। তিনি তার ছেলের হাতে বন্দী হয়ে আছেন কি না, এ ব্যাপারেও যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে। ছেলের অঙ্গুলিহেলনেই চলছেন খালেদা জিয়া। তাই সবাইকে সাবধান থাকতে হবে। চক্রান্ত চলছে, চক্রান্ত চলবে। শেখ হাসিনার কর্মীরা রাজপথে থেকে যেকোন চক্রান্ত মোকাবেলা করবে।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বাংলাদেশে কৃষক লীগের ‘কৃষক বাঁচাও, দেশ বাঁচাও দিবস’ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় তিনি এই মন্তব্য করেন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ক’দিন আগে দু’জন বিদেশী নাগরিক হত্যা করা হয়েছে। তাজিয়া মিছিলের ওপর হামলা করে নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল কিংবা টিআইবি যাই-ই বলেন, মনে রাখতে হবে এদের বক্তব্যে গভীর ষড়যন্ত্র আছে। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সবসময় প্রতিপক্ষের সঙ্গে সামনা-সামনি রাজনৈতিক লড়াইয়ে বিশ্বাস করে। কিন্তু বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করা হয়েছে পেছনের দরজা দিয়ে। জাতীয় চার নেতাকে হত্যা করা হয়েছে কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দী থাকা অবস্থায়। আর গত দু’বছরে বিএনপি-জামায়াত জোট কাপুরুষের মতো শত শত নিরীহ মানুষকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যা করেছে।

খালেদা জিয়া লন্ডনে চিকিৎসা নিতে যাওয়ার পর থেকে বাংলাদেশে একের পর ঘটনা ঘটে চলছে এমন দাবি করে নেতাকর্মীদের উদ্দেশে ১৪ দলের কেন্দ্রীয় এই মুখপাত্র বলেন, চিকিৎসার নামে একজন নেত্রী লন্ডনে বসে আছেন আর বাংলাদেশে একের পর এক ঘটনা ঘটে চলছে। এর কারণ এবং অশুভ লক্ষণকে মনে রাখতে হবে। তিনি বলেন, আগামী নবেম্বর গুরুত্বপূর্ণ মাস। এ মাসে নেতাকর্মীদের সবাই সাবধান ও সতর্ক থাকবেন। ওদের চক্রান্ত চলছে। এই নবেম্বর মাসে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার দ- কার্যকর হবে এমন আশাবাদও ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, যদি কোন চক্রান্ত হয় আর শেখ হাসিনা ডাক দেন, তখন রাস্তায় ও মাঠে নেমে পড়বেন চক্রান্তকারীদের মোকাবেলা করার জন্য।

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া ও তার দলের নেতৃবৃন্দের উদ্দেশে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেন, লন্ডনে বসে ষড়যন্ত্র না করে দেশে আসুন, সামনে থেকে লড়াই করুন। আমরা সামনে থেকে লড়াইয়ে বিশ্বাস করি। কিন্তু পেছন থেকে চক্রান্ত করবেন না। এর ফল ভাল হবে না। বাংলার জনগণ আবারও ২০১৯ সালের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে রায় দেবেন এমন প্রত্যয় ব্যক্ত করে তিনি বলেন, শেখ হাসিনা বিদ্যুত সঙ্কট সমাধান করেছেন। জঙ্গী দমন করেছেন। কৃষককে সার-বীজ দিয়েছেন। মানুষকে বাঁচিয়েছেন। তাই যদি সাহস থাকে ২০১৯ সালে নির্বাচনে লড়াই করেন। বাংলার জনগণ ভোটের মাধ্যমে আবারও দেখিয়ে দেবে, তারা শেখ হাসিনার সঙ্গেই আছে।

কৃষক লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ড. আবদুর রাজ্জাক, কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট খন্দকার শামসুল হক রেজা, শেখ জাহাঙ্গীর আলম, উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি প্রমুখ।