১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

কুড়িগ্রামে রাস্তা সংস্কার ও সোলার স্থাপন না করেই বরাদ্দ আত্মসাত


স্টাফ রিপোর্টার, কুড়িগ্রাম ॥ নাগেশ্বরীতে কাজ না করে কাবিখা প্রকল্পের ২০ টন চাল আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সংশ্লিষ্ট দফতরে লিখিত অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী। অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার ভিতরবন্দ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের ‘চন্ডিপুর ঈদগাহ মাঠ হতে ভাঙ্গামোড় মসজিদ পর্যন্ত রাস্তা সংস্কার ও মসজিদে সোলার স্থাপন’ প্রকল্পে ২০১৪-১৫ অর্থবছরে কাবিখা বিশেষ বরাদ্দ প্রকল্প-১ এর ২০ টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। যার মূল্য প্রায় ৭ লাখ টাকা। ভিতরবন্দ ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল বাতেন কোন কাজ না করে ভুয়া প্রকল্প দেখিয়ে সম্পূর্ণ বরাদ্দ আত্মসাত করেন। বিষয়টির সুষ্ঠু তদন্ত চেয়ে স্থানীয় লোকজন বিভিন্ন দফতরে লিখিত অভিযোগ করেছেন। সরেজমিন গিয়ে দেখা গেছে, চন্ডিপুর-বামনপাড়া সড়ক সংস্কার করা হয়নি, সুকানদীঘি, ডাকনীরপাঠ, হাতিবান্ধা, বামনের ভিটা, চন্ডিপুর, জসিমিয়া জামে মসজিদে কোন সোলার প্যানেল দেয়া হয়নি। অথচ প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে অন্য এলাকার মসজিদের ছবি জমা ও রাস্তা সংস্কার দেখিয়ে সম্পূর্ণ বরাদ্দ উত্তোলন করা হয়েছে।

চন্ডিপুর মসজিদ কমিটির সভাপতি প্রভাষক সাইদুল ইসলাম লিটন বলেন, তিনি জানেন না অথচ তাদের মসজিদে সোলার প্যানেল স্থাপন দেখিয়ে সরকারী বরাদ্দ আত্মসাত করা হয়েছে। ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান নিয়ে এ মিথ্যাচার গ্রহণযোগ্য নয়। চন্ডিপুর গ্রামের সোবাহান আলী, রুমন মিয়া, সেলিম, মাছুম আলী, বাবলু রহমান, হযরত আলী মোল্লা, একাব্বর আলীসহ অনেকে বলেন, চন্ডিপুর-বামনপাড়া কাঁচা সড়কটি সংস্কারের অভাবে চলাচল অযোগ্য। ১নং ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল বাতেনের সঙ্গে মুঠোফোনে অনেকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। নাগেশ্বরী উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আকরাম হোসেন এ বিষয়ে কথা বলতে রাজি হননি।