২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

অস্ট্রেলীয় ক্রিকেট দলের সফর বাতিল সিদ্ধান্তে চরমপন্থা বিজয়ী হয়েছে ॥ জয়


বিডিনিউজ ॥ অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দলের বাংলাদেশ সফর বাতিলের ‘রাজনৈতিক সিদ্ধান্তে’ চরমপন্থার ‘জয়’ হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়। অস্ট্রেলিয়ার সংবাদপত্র ‘দ্য এজ’ এর মতামত বিভাগে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এক নিবন্ধে এ মন্তব্য করেন প্রধানমন্ত্রীপুত্র। ‘এতে কোন সন্দেহ নেই যে, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এ সিদ্ধান্তে রাজনীতি ছিল। এটি ছিল একটি বাজে রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত।’

দুই টেস্টের একটি সিরিজ খেলতে গত ৯ অক্টোবর বাংলাদেশে আসার কথা ছিল অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের। কিন্তু ‘সম্ভাব্য নিরাপত্তা ঝুঁকির তথ্য পাওয়ার’ কথা জানিয়ে ১ অক্টোবর সফর স্থগিতের ঘোষণা দেয় দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

তাদের নিরাপত্তা প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে এসে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিরাপত্তা সংস্থাগুলোর সঙ্গে বৈঠক করে। প্রতিনিধি দলের ছয় দিনের সফরে সরকারের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত নিরাপত্তা প্রতিশ্রুতিও দেয়া হয়। তবে তাতে সন্তুষ্ট হয়নি তারা।

এ প্রসঙ্গ টেনে জয় লিখেছেন- ‘সম্ভাব্য সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়ার পরও মাঠের বাইরের একটি বিষয়কে প্রাধান্য দেয়ায় তা শুধু সন্ত্রাসবাদীদেরই বিজয়ী করেছে। তারা এটাই চেয়েছিল। এতে হার হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার, সেই সঙ্গে আমার নিজের দেশেরও।’ এতে জয় আরও লেখেন- ‘এটি দুঃখজনক যে, খেলাধুলার ওপর রাজনীতি চলছে।’

২০০০ সাল থেকে নির্বিঘœভাবে বাংলাদেশে টেস্ট ক্রিকেট আয়োজনের বিষয়টি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রীর ছেলে বলেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার কাছ থেকে উদ্বিগ্ন হওয়ার বার্তা পাওয়ার পরই সরকার বর্তমান নিরাপত্তা ব্যবস্থার পাশাপাশি অতিরিক্ত নিরাপত্তারও ব্যবস্থা করে, যা শুধু কোন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানের অন্য কোন দেশ ভ্রমণের সময়ই দেখা যায়। তবুও অস্ট্রেলিয়া তাদের সফর বাতিল করে। আর ওই দিনই সন্ত্রাসবাদীদের হুমকির জয় হয়।’ খেলাধুলাকে ‘শান্তির বড় বাহন’ অভিহিত করে তিনি বলেন, ‘সর্বোপরি দুঃখজনক হলো সন্ত্রাসবাদের কাছে শান্তির বড় বাহনের পরাজয়। এটা হওয়া উচিত হয়নি, ভবিষ্যতেও উচিত হবে না।’

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সফর বাতিল বাংলাদেশের খেলোয়াড় বা ভক্তদের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক মহলকেও হতাশ করেছে মন্তব্য করে জয় বলেন, ‘শুধু আমিই যে এমনটা বলছি তা নয়। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দলের অধিনায়ক স্টিভ স্মিথ এ বিষয়ে স্পষ্টভাবে বলেছেন যে, তিনি এবং তার দলের সদস্যরা বাংলাদেশের সঙ্গে খেলার জন্য অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন।’

সফর বাতিলের পর অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট কিংবদন্তি ইয়ান চ্যাপেলের একটি মন্তব্যও লেখায় উদ্ধৃত করেন জয়। ইয়ান চ্যাপেল বলেছিলেন- ‘একই পরিস্থিতি যদি ভারতে সফরের আগে তৈরি হতো, তাহলে কী হতো? উত্তরটা সম্ভবত এই যেÑ খেলা চলত।’

লেখায় নিজেকে একজন ক্রিকেটভক্ত ও সচেতন নাগরিক হিসেবে তুলে ধরে অস্ট্রেলিয়ার সফর বাতিলের সিদ্ধান্তের সঙ্গে দ্বিমত পোষণ করেন জয়। তিনি লেখেন- ‘আমি বলি, তাদের খেলতে দাও। সহিংসতার কোন হুমকির কাছে মাথা নোয়ানো ঠিক নয়। বরং উচিত ক্রীড়াশক্তিকে কাজে লাগিয়ে আমাদের দুটি সংস্কৃতি ও মহাদেশের মধ্যে সেতুবন্ধন রচনা করা।’

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: