১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

এক সন্তান নীতি থেকে সরছে চীন


বহু দশক ধরে কঠোরভাবে ‘এক সন্তান নীতি’ অনুসরণের পর চীন অবশেষে তা বাতিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন থেকে চীনের সব দম্পতি দুটি সন্তান নিতে পারবেন বলে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানিয়েছে। খবর বিবিসি অনলাইনের।

ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির তরফ থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে বৃহস্পতিবার এই ঘোষণা দেয়া হয়েছে। চীনে বিতর্কিত এক সন্তান নীতি ১৯৭৯ সালে চালু করা হয়েছিল। লক্ষ্য ছিল চীনে জন্মহার কমানো এবং জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার কমিয়ে আনা। কিন্তু সাম্প্রতিক বছরগুলোতে চীনে এই নীতি পরিবর্তনের জন্য চাপ তৈরি হচ্ছিল। বিশেষ করে যেভাবে চীনের জনসংখ্যায় তরুণদের তুলনায় প্রবীণদের সংখ্যা বাড়ছে তা নীতি-নির্ধারক মহলকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে।

ধারণা করা হচ্ছে, এক সন্তান নীতির কারণে দেশটিতে অন্তত ৪০ কোটি শিশুর জন্ম নিরোধ করা গেছে। যেসব দম্পতি এই এক সন্তান নীতি লঙ্ঘন করেছে, তাদের জন্য জরিমানা থেকে শুরু করে কর্মচ্যুতি এমনকি জোর করে গর্ভপাত ঘটানোর মতো কঠোর সাজার বিধান ছিল। কিন্তু বিগত দশকগুলোতে ক্রমাগত এই নীতি কিছুটা শিথিল করা হচ্ছিল। কারণ বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা প্রকাশ করছিলেন, এই নীতির কারণে চীনে কর্মক্ষম মানুষের সংখ্যা দ্রুত কমে যাচ্ছে।