২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

চট্টগ্রাম ওয়াসার এমডি তিন ঘণ্টা অবরুদ্ধ


স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ শ্রমিকদের পদ বিলুপ্তির প্রক্রিয়া চলছে এমন অভিযোগে চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রকৌশলী একেএম ফজলুল্লাহকে বৃহস্পতিবার তিন ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে রাখে শ্রমিক-কর্মচারীরা। তারা মিছিলে-স্লোগানে এই সংকোচন প্রক্রিয়া বন্ধের দাবি জানায়। সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত চলে এ কর্মসূচী। এ সময় ‘দুনিয়ার মজদুর এক হও’, ‘দুর্নীতিবাজ প্রশাসন মানি না, মানব না’ ইত্যাদি স্লোগানে প্রকম্পিত হয় ওয়াসা ভবন।

শ্রমিক-কর্মচারী ইউনিয়নের সভাপতি সালাউদ্দিন চৌধুরী এ বিষয়ে বলেন, দাতা সংস্থার প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর ১১৭ শ্রমিকের পদ বিলুপ্তির পাঁয়তারা করছে প্রশাসন। অথচ প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীতে পদ বাড়ানো হচ্ছে। এরই প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা ওয়াসার এমডিকে অবরুদ্ধ করে রাখে। তিনঘণ্টা পর ওয়াসার এমডি পদ বিলুপ্তি না করার দাবিটি বিবেচনার আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা কাজে যোগ দেন।

ওয়াসার এমডি একেএম ফজলুল্লাহ বলেন, প্রতিষ্ঠানটিকে নতুন আঙ্গিকে সাজাতে বিশ্বব্যাংক ও জাইকার একটি প্রতিনিধি দলকে কোন্ কোন্ পদ রাখা প্রয়োজন সে বিষয়ে একটি স্টাডি করতে কাজ দেয়া হয়েছে। তাদের প্রতিবেদন পাওয়ার পর নতুন নিয়োগের ক্ষেত্রে সেটি বাস্তবায়ন করা হবে। এ প্রক্রিয়ায় পদ বিলুপ্ত হবে এমন আশঙ্কা থেকে শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেছে। তিনি বলেন, প্রতিবেদন দেয়ার পর নতুন নিয়োগের ক্ষেত্রে এটি প্রযোজ্য হবে। পুরনোদের কেউ চাকরিচ্যুত হবে না। কারও পদ বিলুপ্তও হবে না।

বাসর রাতে বরের আত্মহত্যা

সংবাদদাতা, নাটোর, ২৯ অক্টোবর ॥ বাসর রাতে স্ত্রীকে ফেলে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন আব্দুর রহিম নামে এক প্রবাসী যুবক। বুধবার রাতে সদর উপজেলার ঋষি নওগাঁ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। জানা গেছে, আব্দুর রহিম দুবাইতে কাজ করতেন। গত ঈদ-উল-আযহায় তিনি বাড়িতে আসেন। এরপর রহিমের বিয়ের জন্য পাত্রী খুঁজতে শুরু করেন পরিবারের লোকজন। বুধবার রাতে লক্ষ্মীপুর খোলাবাড়িয়া পশ্চিমপাড়া গ্রামের মজিবর রহমানের অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া মেয়ের সঙ্গে তার বিয়ে দেয়া হয়। কিন্তু কনের বয়স কম হওয়ায় রেজিস্ট্রি ছাড়াই কালেমা পড়িয়ে মেয়েটিকে রহিমের বাড়িতে আনা হয়। এরপর বাসর রাতের কোন এক ফাঁকে স্ত্রী ঘুমিয়ে পড়লে রহিম ঘর থেকে বের হয়ে গাছের সঙ্গে গলায় দড়ি পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন। অন্য একটি সূত্র জানায়, আব্দুর রহিমের পার্শ্ববর্তী গ্রামে অন্য একটি মেয়ের সঙ্গে বিয়ে ঠিক হলেও অজ্ঞাত কারণে তা ভেঙ্গে যায়। সে কারণেও ছেলেটি বিষাদগ্রস্ত ছিল।

রাঙ্গামাটিতে কঠিন চীবর দান উৎসব পালিত

নিজস্ব সংবাদদাতা, রাঙ্গামাটি, ২৯ অক্টোবর ॥ ধর্মীয় নানা আচার অনুষ্ঠানে মধ্য দিয়ে রাঙ্গামাটির আসামবস্তি বুদ্ধাংকুর বিহারে বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় অনুষ্ঠান দানোত্তম কঠিন চীবর দানোৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে। দু’দিনব্যাপী ১৬তম দানোত্তম কঠিন চীবর দান উৎস বৃহস্পতিবার সমাপ্ত হয়েছে। বুদ্ধাংকুর বৌদ্ধ বিহার ও রাঙ্গামাটি বড়ুয়া জনকল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে এ উৎসব পালিত হয়েছে।