১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

ব্লাটার বোমায় ফিফায় ফের তোলপাড়


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বোমা ফাটালেন সেপ ব্লাটার। ২০১৮ সালে রাশিয়া যে বিশ্বকাপ আয়োজক হবে তা ভোটাভুটির আগেই সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়ে ছিল বলে জানালেন ফিফা থেকে ৯০ দিনের জন্য বরখাস্ত হওয়া সংগঠনের সাবেক সভাপতি সেপ ব্লাটার। শুধু তাই নয়, ২০২২ সালের কাতার বিশ্বকাপ নিয়েও ভোটাভুটির আগেই এক ধরনের বোঝাপড়া হয়ে গিয়েছিল বলেও জানালেন তিনি। রাশিয়ার সংবাদ সংস্থা ‘তাস’কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে এমন চাঞ্চল্যকর তথ্যই দিলেন সুইজারল্যান্ডের তুখোড় সংগঠক সেপ ব্লাটার। যা নিয়ে বিশ্ব ফুটবলে এখন তোলপাড় শুরু হয়েছে।

সাক্ষাতকারে ব্লাটার বলেন, ‘২০১০ সালেই ভবিষ্যতের বিশ্বকাপগুলোর আয়োজক নিয়ে এক ধরনের আলাপ আলোচনা হয়েছিল। সেখানেই ফিফা কর্মকর্তারা এক অর্থে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছিলেন যে, ২০১৮ আর ২০২২ সালের বিশ্বকাপ হবে বিশ্বের সবচেয়ে বড় দুই রাজনৈতিক শক্তি রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রে। বড় দেশগুলোর মধ্যে রাশিয়া যেহেতু কখনই বিশ্বকাপ আয়োজন করেনি তাই ২০১৮ সালের বিশ্বকাপ আয়োজন রাশিয়াতে হবে এমন কথাবার্তা পাকা হয়েছিল। আর তারপর ২০২২ সালের বিশ্বকাপ হবে যুক্তরাষ্ট্রে। রাশিয়ার ব্যাপারে ফিফার নির্বাহী কমিটির ভোট আলাপ মাফিকই গিয়েছিল। কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেত্রে আগে সিদ্ধান্তের পরও ভোটাভুটির শেষ মুহূর্তে বেঁকে বসে নির্বাহী কমিটির ইউরোপীয় কয়েকজন সদস্য। যে কারণে শেষে পূর্বের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসতে হয় ফিফাকে। এরপর ২০২২ সালের বিশ্বকাপ আয়োজনের জন্য নির্বাচিত হয় কাতার।’

আর কাতারকে বিশ্বকাপ আয়োজক করার বিষয়েও বিভিন্ন মহলের সুপারিশ ছিল বলে জানান ব্লাটার। এ ক্ষেত্রে ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজির বিশেষভাবে হস্তক্ষেপ ছিল বলেও দাবি তার। তাছাড়া কাতারের ক্রাউন প্রিন্সের সঙ্গে সারকোজির এক মধ্যাহ্নভোজে উয়েফা প্রধান মিশেল প্লাতিনিও ছিলেন বলে দাবি করেন ৭৯ বছর বয়সী ব্লাটার। দুর্নীতির দায়ে প্লাতিনি এবং ব্লাটার দু’জনই তিন মাসের জন্য ফিফার দায়িত্ব থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত। যে কারণে ২০১৫ সাল ফিফার জন্য একটি কেলেঙ্কারির বছর। এই বছরের শুরুতেই টানা পঞ্চমবারের মতো ফিফার সভাপতি নির্বাচিত হন ব্লাটার। কিন্তু কর্তমর্তাদের নানা দুর্নীতির অভিযোগ ও সুইস পুলিশ কর্তৃক কয়েকজন উর্ধতন কর্মকর্তা আটক হওয়ার পর সভাপতির পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি। তবে ইতোমধ্যেই নতুন করে সভাপতি নির্বাচের সব ধরনের প্রস্তুতি শুরু হয়ে গেছে। আগামী ফেব্রুয়ারি মাসের ২৬ তারিখে অনুষ্ঠিত হবে ফিফার নির্বাচন। রবার্ট গুয়েরিন এবং অনেকের অক্লান্ত পরিশ্রমে ফুটবল একটি আন্তর্জাতিক খেলা হিসেবে সংগঠিত হয় ১৯০৪ সালে। সে বছর ১৯ মার্চ আনুষ্ঠানিকভাবে ফিফা সভাপতির দায়িত্বভার গ্রহণ করেন ফরাসী নাগরিক রবার্ট গুয়েরিন। এরপর পেরিয়ে গেছে ১১১ বছর। ফুটবলের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা পেয়েছে মাত্র ৮ সভাপতি। এর মধ্যে ফরাসী নাগরিক জুলে রিমে ৩৩ বছর এই পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২৪ বছর এই পদে ছিলেন ব্রাজিলিয়ান হুয়াও হ্যাভলেঞ্জ। এছাড়া ব্রিটিশ নাগরিক স্টেনলি রুজ ১৩ বছর, ড্যানিয়েল বার্লি ১২ বছর এবং আর্থার ড্রিউরি ৬ বছর এ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। সর্বশেষ বরখাস্ত হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত প্রায় ১৭ বছর ধরে ফিফা সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন সুইস নাগরিক সেপ ব্লাটার। তার বরখাস্ত হওয়ার মধ্য দিয়েই ফিফা এক নতুন যুগে প্রবেশ করতে যাচ্ছে। তবে বর্তমানে ফিফা যে সঙ্কটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে তার জন্য মিশেল প্লাতিনিকেই দায়ী করেছেন ব্লাটার।