২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ভিয়ানোভেন্সের কাছেও হোঁচট বার্সিলোনার


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইনজুরির কারণে এমনিতেই নেই প্রাণভোমরা লিওনেল মেসি। পাশাপাশি অপর দুই তারকা নেইমার ও লুইস সুয়ারেজকে দেয়া হয়েছিল বিশ্রাম। যার মাসুলও দিতে হয়েছে বার্সিলোনাকে। বুধবার রাতে স্প্যানিশ কোপা ডেল রে ফুটবলের শেষ ৩২ এর প্রথম লেগের ম্যাচে দুর্বল ভিয়ানোভেন্সের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে কাতালানরা। ২০০৪ সালের পর এই প্রথম কোপা ডেল’রেতে নিজেদের প্রথম ম্যাচে গোল করতে ব্যর্থ হলো বার্সিলোনা।

স্পেনের তৃতীয় বিভাগের এই দলের কাছে হোঁচট খাওয়ায় শিরোপা ধরে রাখার লড়াইটা মোটেও ভাল হলো না বার্সার। ম্যাচের প্রায় পুরোটা সময়ই বলের দখল নিজেদের কাছে রাখতে পারলেও গোলের দেখা পায়নি লুইস এনরিকের দল। ম্যাচে বার্সা অবশ্য মাঠে নেমেছিল দ্বিতীয় সারির দল নিয়ে। কোচ এনরিকে বিশ্রাম দিয়েছিলেন নেইমার, সুয়ারেজসহ দলের বেশ কয়েকজন তারকা খেলোয়াড়কে। ভিয়ানোভেন্সের মাঠ রোমেরো কুয়ের্ডার দর্শক ধারণক্ষমতা মাত্র তিন হাজার। কিন্তু বার্সিলোনার মতো বড় দলের খেলা দেখতে স্টেডিয়ামে হুমড়ি খেয়ে পড়েছিলেন স্পেনের ছোট্ট এই ক্লাবটির সমর্থকরা। প্রায় ১০ হাজার দর্শক পুরো ম্যাচে গলা ফাটিয়েছেন তাদের খেলোয়াড়দের সমর্থনে। তাদের এই সমর্থন সফল হয়েছে শেষ পর্যন্ত।

দ্বিতীয় লেগের খেলায় অবশ্য দর্শক সমর্থনের এই সুবিধা থাকবে বার্সিলোনার। আগামী ২ ডিসেম্বর ন্যুক্যাম্পে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে জয় পেলেই শেষ ষোলোর লড়াই নিশ্চিত হয়ে যাবে গতবারের শিরোপাজয়ী বার্সার। আক্রমণভাগে ‘এমএসএন’ এর অনুপস্থিতিতে প্রতিপক্ষের মাঠে শুরুতে ভুগলেও ধীরে ধীরে তা কাটিয়ে উঠতে থাকে অতিথিরা। কিছুটা অগোছালো হলেও মাঝে মধ্যে আক্রমণ শাণিয়েছেন মুনির এল হাদ্দাদি, সান্ড্রো রামিরেসরা। ম্যাচের ২০ মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত বার্সিলোনা। কিন্তু রিজার্ভ বেঞ্চ থেকে মূল দলে ঢোকা মিডফিল্ডার জেরার্ড গোলরক্ষককে কাটিয়েও লক্ষ্যভ্রষ্ট শট নেন। ৩১ মিনিটে পথমার্ধের সেরা সুযোগটি পায় কাতালানরা। ডি বক্সের মধ্যে মার্ক বাট্টার শট প্রতিপক্ষের এক ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে ফিরলেও বল এসে পড়ে মুনির এল হাদ্দাদির পায়ে। তরুণ এই স্ট্রাইকারের ফিরতি শট ক্রসবারের ওপর দিয়ে চলে যায়।

অন্যদিকে শুরু থেকেই ধারণার বিপরীতে বেশ গোছানো ফুটবল খেলে পুঁচকে ভিয়ানোভেন্স। ৪৩ মিনিটে দুর্ভাগ্য বাদ না সাধলে এগিয়েই যেত স্বাগতিকরা। ডিফেন্ডার মিগুয়েল ত্রিনিদাদের শট ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হলে রক্ষা পায় বার্সিলোনা। বিরতির পরও আধিপত্য বিস্তার করে খেলে এনরিকের দল। তবে কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায়নি। তৃতীয় বিভাগের একটি দলের বিপক্ষে ড্র করে মাঠ ছাড়লেও ম্যাচ শেষে সন্তুষ্টিই প্রকাশ করেছেন বার্সিলোনার গোলরক্ষক জর্ডি মাসিপ। তিনি বলেন, গোল হজম করতে না হওয়ায় আমরা খুশি। আমরা ভালো নৈপুণ্যই দেখিয়েছি। মাঠের পরিস্থিতি খেলায় অনেক প্রভাব রেখেছে। অখুশি নন কোচ লুইস এনরিকেও। তিনি বলেন, দলের পারফর্মেন্সে আমি খুশি। সাধারণত মাঠে কম সময় কাটানো একজন খেলোয়াড়ের জন্য ম্যাচ খেলাটা সহজ নয়। আপনার ছন্দ কম থাকবে। বিশেষ করে বার্সিলোনার ‘বি’ দলের যে খেলোয়াড়রা এই ম্যাচে খেলেছেন, তাদের পারফর্মেন্সে সন্তুষ্ট এনরিকে।

এক সাক্ষাতকারে বার্সিলোনার সাবেক সভাপতি জোয়ান লাপোর্টা বলেছেন, লিওনেল মেসি কখনই স্পেনের ক্লাবটি ছেড়ে যাবেন না। তবে নেইমারকে বিক্রি করা হলেও হতে পারে বলে মনে করেন তিনি। হাঁটুর চোট নিয়ে মাঠের বাইরে থাকা মেসিকে পেতে সম্প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের কয়েকটি ক্লাব। জোর গুঞ্জন, স্পেনের কর ব্যবস্থা নিয়ে বিরক্ত আর্জেন্টিনা অধিনায়ক হয়ত বার্সিলোনা ছাড়তেও পারেন। এ প্রসঙ্গে কথা বলেছেন ৫৩ বছর বয়সী লাপোর্টা। তিনি বলেন, মেসি কখনই বার্সা ছাড়বে না। এটা আমাদের প্রতীক ও আমাদের হৃদয়ের অংশ। বার্সার সভাপতি থাকা অবস্থায় আমি অনেক প্রস্তাব পেয়েছি। উল্লেখযোগ্য হলো ইন্টার, যারা কিনা তার রিলিজ ক্লজের অর্থও দিতে চেয়েছিল। আমি সবসময়ই তা নাকচ করে দিয়েছি। তার মতে, নেইমারের জন্য এটা আলাদা বিষয়। ক্লাবের অর্থনৈতিক অবস্থা ভাল নয়। ভারসাম্য আনতে বর্তমান সভাপতিকে অবশ্যই খেলোয়াড় বা সম্পদ বিক্রি করতে হবে।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: