মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৬ আশ্বিন ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

রাদওয়ানস্কার কাছে হেরে বিধ্বস্ত সিমোনা

প্রকাশিত : ৩০ অক্টোবর ২০১৫
রাদওয়ানস্কার কাছে হেরে বিধ্বস্ত সিমোনা
  • সেমিফাইনালে মারিয়া শারাপোভা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ডব্লিউটিএ ফাইনালসের রাউন্ড রবিনের তৃতীয় ম্যাচেও হারলেন সিমোনা হ্যালেপ। বৃহস্পতিবার তাকে পরাজয়ের স্বাদ উপহার দিলেন পোল্যান্ডের এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কা। এর ফলে টুর্নামেন্ট থেকেই ছিটকে পড়লেন শীর্ষ বাছাই হ্যালেপ। রাউন্ড রবিনের শেষ ম্যাচে কঠিন লড়াইয়ে রাদওয়ানস্কা ৭-৬ (৭/৫) এবং ৬-১ গেমে পরাজিত করেন রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপকে। তবে রাদওয়ানস্কা ডব্লিউটিএ ফাইনালসের সেমিফাইনালে যেতে পারবে কী না তা নির্ভর করছে শারাপোভা-পেনেত্তা ম্যাচের উপর। সেই ম্যাচে পেনেত্তা হারলেই কেবল শেষ চারের টিকেট নিশ্চিত করবেন পোলিশ টেনিস তারকা এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কা। তবে হ্যালেপ হার মানায় কপাল খুলে গেল শারাপোভার। এক ম্যাচ আগেই সেমিফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করে ফেললেন তিনি। যে কারণে পেনেত্তার বিপক্ষে স্বস্তি নিয়েই কোর্টে নামেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের সাবেক নাম্বার ওয়ান তারকা মারিয়া শারাপোভা।

মৌসুমের শেষ বড় টুর্নামেন্ট বিএনপি পরিবাস ডব্লিউটিএ ফাইনালস। বছরের চার গ্র্যান্ডসøামের পরই বিবেচনা করা হয় এই ইভেন্টকে। বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ আট প্রমীলা খেলোয়াড় খেলার সুযোগ পান এই ইভেন্টে। সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টের শীর্ষ বাছাই হিসেবে খেলতে নামেন সিমোনা হ্যালেপ। আমেরিকান তারকা সেরেনা উইলিয়ামস এবার খেলছেন না এই টুর্নামেন্টে। মূলত মৌসুমের পুরোটা সময়ই কোর্টে দারুণ লড়াই উপহার দেয়া সেরেনা নিজেকে ক্লান্ত বলে দাবি করেছেন। যে কারণে ইউএস ওপেনের পর আর কোর্টে নামেননি তিনি। মৌসুমের শেষ মেজর টুর্নামেন্টের পর চায়না ওপেন এবং উহান ওপেন থেকেও সরে দাঁড়ান সেরেনা।

২১ গ্র্যান্ডসøামজয়ী আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি সেরেনা না খেলার কারণে শীর্ষ বাছাই হিসেবে সিঙ্গাপুরে কোর্টে নামেন সিমোনা হ্যালেপ। শুরুটা বেশ ভালভাবেই করেছিলেন তিনি। ইতালিয়ান তারকা ফ্লাভিয়া পেনেত্তাকে সরাসরি সেটে পরাজিত করে। কিন্তু পারফর্মেন্সের সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারেননি হ্যালেপ। টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুই নাম্বারে থাকা এই রোমানিয়ান দ্বিতীয় ম্যাচেই হার মানেন। রুশ সুন্দরী মারিয়া শারাপোভার কাছে হারলে তৃতীয় ম্যাচটি ছিল তার বাঁচা-মরার লড়াই। আর সেখানেই ব্যর্থ হলেন ২৪ বছর বয়সী এই তারকা। বুধবার এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কার বিপক্ষে ম্যাচের প্রথম সেটটা দারুণভাবেই লড়াই করে যান তিনি। যদিওবা শেষ পর্যন্ত তার সঙ্গী হয় পরাজয়ের লজ্জা। আর দ্বিতীয় সেটে হ্যালেপকে তো দাঁড়াতেই দেয়নি পোলিশ তারকা। যে কারণে তিন ম্যাচের দুটিতে হেরে লজ্জাজনকভাবেই বিদায় নিতে হয় হ্যালেপকে। সেইসঙ্গে স্বপ্নের এই টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে পড়ে হতাশা প্রকাশ করেন তিনি। অন্য গ্রুপে দাপট অব্যাহত রেখেছেন গারবিন মুগুরুজা। বুধবার স্প্যানিশ এই টেনিস তারকা সহজেই হারান জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবারকে। সেইসঙ্গে সেমিফাইনালে এক পা দিয়েও রাখেন তিনি। কারবার আর মুগুরুজা দুজনই নিজেদের প্রথম ম্যাচে জয় দিয়ে শুরু করেন। যে কারণে দ্বিতীয় ম্যাচটি দুই জনের জন্যই গুরুত্বপূর্র্ণ ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত মুগুরুজাই ধরে রেখেছেন জয়ের ধারাবাহিকতা। দ্বিতীয় ম্যাচে স্প্যানিশ এই টেনিস তারকা ৬-৪ এবং ৬-৪ গেমে হারান জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবারকে। তরুণ প্রতিভাবান খেলোয়াড় কারবারকে হারাতে মুগুরুজার সময় লাগে ১ ঘণ্টা ৩৯ মিনিট। ম্যাচ শেষে উচ্ছ্বসিত মুগুরুজা বলেন, ‘ম্যাচের আগে থেকেই জানতাম তার বিপক্ষে লড়াইটা বেশ কঠিন হবে। শেষ পর্যন্ত সেটাই হয়েছে। তবে দুজনই অবিশ্বাস্য টেনিস খেলেছি।’ ডব্লিউটিএ ফাইনালসে এবারই প্রথমবারের মতো খেলার সুযোগ পান মুগুরুজা। আর সুযোগের সদ্ব্যবহারও করতে চান তিনি। টুর্নামেন্টের সব ম্যাচেই জয়ের প্রত্যয় তার কণ্ঠে। এ বিষয়ে টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের দুইয়ে উঠে আসা এই স্প্যানিয়ার্ড বলেন, ‘এখানে এসে আমি দারুণভাবেই অনুপ্রাণিত হয়েছি।

প্রকাশিত : ৩০ অক্টোবর ২০১৫

৩০/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: