২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

মুন্সীগঞ্জে ‘জ্ঞানপীঠ’ স্বদেশ গবেষণা কেন্দ্রের যাত্রা শুরু


স্টাফ রিপোর্টার, মুন্সীগঞ্জ ॥ মুন্সীগঞ্জে ‘জ্ঞানপীঠ’ স্বদেশ গবেষণা কেন্দ্রের যাত্রা শুরু হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন বাংলা একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক এমেরিটাস ড. আনিসুজ্জামান। অগ্রসর বিক্রমপুর ফাউন্ডেশন এই কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠা করেছে। মালপাড়ায় দ্বিতল এই ভবনের নিচতলার সভাকক্ষে ফাউন্ডেশনের সভাপতি ড. নূহ-উল আলম লেনিনের সভাপতিত্বে আলোচনায় সভার আয়োজন করা হয়। অংশ নেন বিএমএর সাবেক সভাপতি অধ্যাপক ডাঃ রশিদ-ই-মাহবুব, বাংলাদেশ ইতিহাস সমিতির সাধারণ সম্পাদক ড. আশা ইসলাম নাঈম, জেলা প্রশাসক সাইফুল হাসান বাদল, বিশিষ্ট প্রতœতত্ত্ববিদ অধ্যাপক ড. সুফী মোস্তাফিজুর রহমান, বিজ্ঞানী ও সাহিত্যিক পূরবী বসু, ‘জ্ঞানপীঠ’ স্বদেশ গবেষণা কেন্দ্রের নির্বাহী সভাপতি অধ্যাপক সুখেন চন্দ্র ব্যানার্জী, ফাউন্ডেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম ও মুন্সীগঞ্জ কেন্দ্রের সভাপতি অধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর হাসান। অনুষ্ঠানে বিশিষ্ট প্রতœতত্ত্ববিদ অধ্যাপক ড. সুফী মোস্তাফিজুর রহমান এবং বিজ্ঞানী ও সাহিত্যিক পূরবী বসুকে ‘জ্ঞানপীঠ’ পদকে ভূষিত করা হয়। তাঁরা প্রত্যেকে এই পদকের পাশাপাশি ৫০ হাজার টাকা করে পাবেন। পরের বছর থেকে একজন করে গুণী শিক্ষককে এই পদকে ভূষিত করা হবে। এবং এই পদকের সঙ্গে এক লাখ টাকা পুরস্কার প্রদান করা হবে। ‘জ্ঞানপীঠ’ ভবনটি সভাকক্ষ শিল্পী আব্দুল হাই, গবেষণা ও পাঠকক্ষের অন্য চারটি কক্ষের নামকরণ করা হয় সত্যেন সেন, নলিনী কান্ত ভট্টশালী, ফয়েজ আহম্মেদ ও পূরবী বসুর নামে। অনুষ্ঠানে জাতীয় ও স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গও অংশ নেন।

অধ্যাপক আনিসুজ্জামান বলেন, অগ্রসর বিক্রমপুর মুন্সীগঞ্জের পথযাত্রীই শুধু নয় বাংলাদেশের অগ্রযাত্রীর বীজ বহন করছে।

আলোচনার আগে বিক্রমপুরের নানা ঐতিহ্য, সম্ভাবনা, গবেষণা এবং অগ্রসর বিক্রমপুরের নানা কর্মকা- নিয়ে একটি প্রামাণ্য চিত্র মাল্টি মিডিয়ার মাধ্যমে বড় পর্দায় উপস্থাপন করা হয়। জাতীয় সঙ্গীতের মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরুর পরই কেন্দ্রের শিল্পীরা গান গেয়ে অতিথিদের বরণ করে নেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: