মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৭ আগস্ট ২০১৭, ২ ভাদ্র ১৪২৪, বৃহস্পতিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

চার ট্রলারসহ ৩৭ জেলেকে অপহরণ করেছে মাস্টার বাহিনী

প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০১৫
  • বঙ্গোপসাগরে গণডাকাতি

সংবাদদাতা, পাথরঘাটা, বরগুনা, ২৭ অক্টোবর ॥ পাথরঘাটা থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে বঙ্গোপসাগরে ফেয়ারওয়ে বয়ার কাছে মাছ ধরার সময় পাথরঘাটার অর্ধ শতাধিক ট্রলারে ডাকাতি করে ৪ ট্রলারসহ ৩৭ জেলেকে অপহরণ করেছে সুন্দরবনের জলদস্যু মাস্টার বাহিনী। সোমবার রাতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতির সময় দস্যুরা জেলেদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে এলাপাতাড়ি লাঠিপেটা করলে শতাধিক জেলে আহত হয়। এর মধ্যে ৭১ জনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বরগুনা জেলা ট্রলার শ্রমিক ইউনিয়ন ও ট্রলার মালিক সমিতি খবরটি নিশ্চিত করেছেন। দস্যুদের কবল থেকে ফিরে আসা জেলেরা জানান, মুক্তিপণ বাবদ প্রত্যেক জেলের জন্য ২ লাখ টাকা করে দাবি করেছেন দস্যুরা। অপহৃত ট্রলারসহ জেলেদের সবার বাড়ি পাথরঘাটা বিভিন্ন গ্রামে।

বরগুনা জেলা ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী জেলেদের বরাত দিয়ে জানান, পাথরঘাটার মাছধরা ট্রলারসহ বিভিন্ন এলাকার শতাধিক ট্রলার ফেয়ারওয়ে বয়ার কাছে ইলিশ শিকারের উদ্দেশে বঙ্গোপসাগরে জাল ফেলে অবস্থান করছিল। এ সময় সুন্দরবনের জলদস্যু মাস্টার বাহিনীর পরিচয় দিয়ে ৪টি ট্রলার নিয়ে অস্ত্রের মুখে জেলেদের জিম্মি করে ফেলে। এর পর প্রত্যেক ট্রলার থেকে মাছ ও মাঝিদের উঠিয়ে নিয়ে যায় এবং ট্রলারের মাছ ও যন্ত্রাংশ নেয়ার জন্য পাথরঘাটার ৩টি ট্রলার নিয়ে গেছে। তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত তারা পাথরঘাটার ৩৭ জেলের নাম ঠিকানা জানতে পেরেছে। তিনি জানান, শতাধিক ট্রলারে ডাকাতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ট্রলার মালিক ছগির মেম্বর জানান, তাদের ৫৩ ট্রলার থেকে দস্যুরা ট্রলারের যন্ত্রাংশসহ ২ কোটি টাকার মাছ ও রসদ সামগ্রী নিয়ে গেছে। অপহৃত জেলেদের মধ্যে যাদের নাম জানা গেছে তারা হলেন, স্বপন মিয়া, কুদ্দুস, হারুন, শাহিন, রফিক, আলতাফহোসেন, মোসাররফ, রিয়াজ, বাদল, আঃ হালিম, বাদশা মিয়া, দুলাল হোসেন, আল আমীন, কালাম, বেলাল, ছগির, বাদল, এনায়েত, ছগির, ফারুকের নাম জানা গেছে। অপহৃত ট্রলার, এফবি রিয়াজ, এফবি সিরাজুল, এফবি রিনা।

এ ব্যাপারে বরগুনার পাথরঘাটা কোস্টগার্ড স্টেশন কমান্ডার লে. রউফ জানান, ডাকাতির ব্যাপারে আমরা তাৎক্ষণিক জেনেছি এবং আমরা ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই জলদস্যুরা ঘটনাস্থাল ত্যাগ করেছে। তবে অপহৃত জেলে ও ট্রলার উদ্ধারের জন্য আমরা সুন্দরবনে র‌্যাবসহ ৮টি টিম কাজ করছি।

পাথরঘাটা ॥ কলাপাড়ায় ছয় জেলেকে অপহরণ নিজস্ব সংবাদদাতা জানান, দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে এফবি এলমা ট্রলারে ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা ট্রলারসহ ছয় জেলেকে মুক্তিপণের দাবিতে অপহরণ করে নিয়ে গেছে। এরা হচ্ছেন মাঝি রুহুল আমিন, জেলে শুক্কুর মিস্ত্রী, শানু, আল-আমিন, বজলু ও নাঈম। এর মধ্যে শুক্কুরের বাড়ি বরগুনায়। অপর জেলেদের বাড়ি কলাপাড়ায়। ফেরত আসা জেলে জসিম জানায়, মঙ্গলবার ভোর আনুমানিক চারটার সময় একদল জলদস্যু তাদের ওপর সশস্ত্র হামলা চালায়। অস্ত্রের মুখে ট্রলারের ১৭ জেলেকে জিম্মি করে ফেলে। মারধর করে ১১ জনকে তারা অন্য ট্রলারে তুলে দেয়। বাকি ছয়জনকে ট্রলার, মাছ ও জ্বালানিসহ অপহরণ করে নেয়।

প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০১৫

২৮/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: