১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ফিফা সভাপতি নির্বাচনে আট প্রার্থী


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সেপ ব্লাটার কিংবা মিশেল প্লাতিনি দু’জনেরই হয়তো ফিফার সঙ্গে আজীবনের সম্পর্কচ্ছেদ হয়ে যাচ্ছে। কারণ ফিফা নির্বাচন পেছানোর কোন সম্ভাবনা আর পরিলক্ষিত হচ্ছে না, সে বিষয়ে কোন আলোচনাও হচ্ছে না। এ দু’জনকেই অবৈধ আর্থিক লেনদেনের জন্য তিন মাসের জন্য সব ধরনের ফুটবল কর্মকা- থেকে নিষিদ্ধ করেছে ফিফার এথিকস কমিটি। সভাপতি পদ হারিয়েছেন ব্লাটার। অবশ্য প্লাতিনি-ব্লাটার দু’জনেই নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে আপীল করেছেন। ইতোমধ্যেই প্লাতিনির সে আপীল খারিজ করে দেয়া হয়েছে। ২৬ ফেব্রুয়ারি ফিফা সভাপতি নির্বাচনে ব্লাটারের সম্ভাব্য উত্তরসূরি হিসেবে সবচেয়ে এগিয়ে ছিলেন প্লাতিনি। এখন তাকে কোন হিসেবের মধ্যেই রাখা হচ্ছে না। ইতোমধ্যেই আসন্ন সেই নির্বাচনে ফিফা আনুষ্ঠানিকভাবে ৮ প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে। এর মধ্যে অবশ্য প্লাতিনির নামটাও আছে।

উয়েফা সভাপতি প্লাতিনির আপীল খারিজ হওয়া বিষয়ে তার প্রতিনিধি জানিয়েছেন ফিফা আপীল কমিটি থেকে এখন পর্যন্ত নির্দিষ্ট করে বলা হয়নি খারিজের বিষয়টি। আর এটা নিয়ে তারা প্লাতিনির সঙ্গে যোগাযোগও করেনি। আর এরপর প্লাতিনির আইনজীবীরা দাবি করেছেন আপীলের মাধ্যমে সঠিকভাবে শুনানি হলে প্লাতিনি তার সব ক্ষমতা এবং অধিকার ফিরে পাবেন। তবে প্লাতিনির কি ঘটবে সেটা সময়ই বলে দেবে। এসব নিয়ে চিন্তা না করে ফিফা প্রস্তুত হচ্ছে আগামী প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য। আগামী ফেব্রুয়ারিতে বিশেষ কংগ্রেস আহ্বান করা হয়েছে অনেক আগেই। আর ২৬ ফেব্রুয়ারি ভোটাভুটির মাধ্যমে নির্বাচন করা হবে পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। সেজন্য ৮ প্রার্থীর নামও আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়ে দিয়েছে ফিফা। অবশ্য এ তালিকায় প্লাতিনির নামটাও আছে। কারণ তিনি অনেক আগেই মনোনয়ন নিয়েছেন। ৬০ বছর বয়সী প্লাতিনি নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরার পর নির্বাচন করার জন্য খুব কমই সময় পাবেন হাতে।

এ আটজনের মধ্যে সবচেয়ে কম বয়সী ৩৯ বছর বয়সী প্রিন্স আলী বিন আল হুসেন। জর্দানের রাজা কিং আব্দুল্লাহর ছোট ভাই তিনি। প্রিন্স আলী দেশের স্পেশাল ফোর্সের সদস্য, প্যারাশ্যূট জাম্পার। তিনি ২০১১ সাল থেকেই এখন পর্যন্ত ফিফা নির্বাহী কমিটির সদস্য হিসেবে আছেন। প্রিন্স আলী হিজাব পরিহিত অবস্থায় মহিলাদের ফুটবল খেলার অধিকার আদায় করার বিষয়ে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছিলেন। তিনি সবসময়ই ফিফার স্বচ্ছতা আরও বাড়িয়ে জাতীয় ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনগুলোর জন্য আরও রাজস্ব প্রদানের দাবি করে আসছেন। ২০১৮ বিশ্বকাপ রাশিয়াতে এবং ২০২২ সালে কাতারে হওয়ার বিষয়ে ভোটাভুটির সময়ও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছিলেন তিনি। ওমান, অস এ্যাঞ্জেলেস ও ব্রাজিলে নিযুক্ত ফরাসী কূটনৈতিক জেরেমি শ্যাম্পেনও আছেন অন্যতম প্রার্থী হিসেবে। তিনি ১৯৯৮ বিশ্বকাপ আয়োজকদের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করেছেন। ১৯৯৯ সালে তিনি ফিফার সঙ্গে যুক্ত হন। এরপর সহকারী মহাসচিব হয়েছিলেন ৫৭ বছর বয়সী এ ফরাসী নাগরিক। ২০১০ সালে তিনি ফিফা ছেড়ে যান। এ বছর হওয়া ফিফা সভাপতি নির্বাচনে ব্লাটারের প্রতিদ্বন্দ্বী হতে চেয়েছিলেন শ্যাম্পেন। কিন্তু সেজন্য প্রয়োজনীয় ৫ জাতীয় ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের সমর্থন পাননি।

আসন্ন নির্বাচনের সবচেয়ে বিস্ময়কর প্রার্থিতা হচ্ছে ৫১ বছর বয়সী ডেভিড নাখিদ। ত্রিনিদাদ ও টোবাগো দলের সাবেক এ অধিনায়ক সুইজারল্যান্ডের দল গ্রাসহপার্সের হয়ে খেলেছেন। বেলজিয়ামের ওয়েরজেম ও যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইংল্যান্ড রেভুল্যুশনের হয়েও খেলেছেন। বর্তমানে বেশ কয়েকটি একাডেমি গড়ে ফুটবলের উন্নয়নে কাজ করছেন তিনি। আরেক বড় প্রতিদ্বন্দ্বী দক্ষিণ আফ্রিকার টোকিও সেক্সওয়েল। গত শনিবার তিনি প্রার্থিতা নিয়ে আলোচনায় চলে এসেছেন। সাবেক এ রাজনীতিবিদ ও ধনকুবের সেক্সওয়েল দক্ষিণ আফ্রিকার প্রয়াত মহান নেতা নেলসন ম্যান্ডেলার সঙ্গে কারাভ্যন্তরে পাশাপাশি কাটিয়েছেন। সন্ত্রাসবাদের জন্য ১৮ বছরের কারাদ- হয়েছিল তার। এর মধ্যে ১৩ বছরই রোবেন আইল্যান্ডে বন্দীদশা ছিল তার। প্রথম কোন আফ্রিকান হিসেবে বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর হতে চান তিনি। তিনি ২০১০ দক্ষিণ আফ্রিকা বিশ্বকাপ বিডিং দলের অন্যতম সদস্য ছিলেন এবং ফিফার বর্ণবাদ ও বৈষম্য বিরোধী কমিটির হয়ে কাজ করেছেন। তিনি ফিফার মিডিয়া কমিটিরও সদস্য। বাহরাইনের শেখ সালমান বিন ব্রাহিম আল খলিফার অবশ্য ভাবমূর্তি বেশ ভাল। তিনি মোহাম্মদ বিন হাম্মামের বিদায়ের পর এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশনের দায়িত্বে আসীন হয়েছেন। ২০০০ সালে উয়েফাতে যোগ দেয়া ৪৫ বছর বয়সী সুইস আইনজীবী জিয়ান্নি ইনফ্যান্টিনো ও লাইবেরিয়ান ফুটবল এ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মুসা বিলিতিও লড়বেন সভাপতি নির্বাচনে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: