মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

মুখোমুখি ঢাকা মোহামেডান-ইস্ট বেঙ্গল

প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০১৫
মুখোমুখি ঢাকা মোহামেডান-ইস্ট বেঙ্গল
  • শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ক্লাব কাপ ফুটবল সেমিফাইনালে জিততে
  • চায় আজ দুই দলই

রুমেল খান, চট্টগ্রাম থেকে ॥ সমস্যা অনেক। তারপরও অদ্যম মনোবল, স্বদেশী দর্শক-সমর্থন আর ঐতিহ্যবাহী জার্সির ভারকে সম্বল করেই ‘শেখ কামাল আন্তর্জাতিক ফুটবল টুর্নামেন্ট’-এর ফাইনালে নাম লেখাতে চায় ঢাকা মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। আজ সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটে এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় সেমিতে তারা মোকাবেলা করবে ভারতের কিংফিশার ইস্ট বেঙ্গল ক্লাবের।

এই টুর্নামেন্টে আফগানিস্তানের ডি স্পিন ঘার বাজান ফুটবল ক্লাবের কাছে ১-০ গোলে হেরে ধাক্কা খেয়েছিল পরাভূত হয় ‘ব্ল্যাক এ্যান্ড হোয়াইট’ খ্যাত ঢাকা মোহামেডান। দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য তারা শ্রীলঙ্কার সলিড এসসিকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে ঘুরে দাঁড়ায়। তৃতীয় ম্যাচে তারা ২-১ গোলে হারায় কলকাতা মোহামেডানকে। সেই সঙ্গে ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ হিসেবে সেমিতে নাম লেখায়।

পক্ষান্তরে ‘বি’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে ইস্ট বেঙ্গল ২-১ গোলে চট্টগ্রাম আবাহনীকে হারিয়ে শুভসূচনা করে। পাকিস্তানের করাচী ইলেকট্রিককে ৩-১ গোলে হারায় দ্বিতীয় ম্যাচে। শেষ ম্যাচে তারা গোলশূন্য ড্র করে ঢাকা আবাহনীর সঙ্গে। সেই সঙ্গে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে উন্নীত হয় সেমিতে। মোহামেডানের কোচ কাজী জসিম উদ্দিন জোসি বলেন, ‘প্রথম ম্যাচে হেরে ব্যাকফুটে। দ্বিতীয় ম্যাচ জিতে উদ্যম ফিরে পাই। তৃতীয় ম্যাচে ভীষণ চাপে থেকেও জিতেছি। কারণ ওই ম্যাচে দলের বেশকিছু খেলোয়াড় অসুস্থ ছিল। তারপরও ওরা যেভাবে মনোবলকে কাজে লাগিয়ে ম্যাচটা বের করে এনেছে, তাতে আমি খুবই খুশি, গর্বিত। তাদের প্রচেষ্টা ছিল অসাধারণ। এছাড়া ওই ম্যাচে কার্ড সমস্যায় বিদেশী খেলোয়াড় মাইকেলও খেলতে পারেনি।’

প্রতিপক্ষ ইস্ট বেঙ্গল সম্পর্কে জোসি বলেন, ‘তারা এ আসরের সবচেয়ে ভারসাম্যপূর্ণ দল। সমীহ জাগানিয়া দল। ওদের প্লাস পয়েন্ট হচ্ছে ওরা সারাবছর প্রচুর ম্যাচ খেলে, যেটা আমাদের নেই। তাই ম্যাচ টেম্পারমেন্টে ওরা আমাদের চেয়ে এগিয়ে। আমার দলে অনেক সমস্যা আছে। তবে আমার নীতি হচ্ছে- মরার আগে মরবো না। জেতা অসম্ভব নয়। ওদের বিরুদ্ধে ঢাকা আবাহনী যেভাবে প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছে, তা দেখে আমি ভরসা পাচ্ছি। তাছাড়া দর্শকরাই আমাদের অনুপ্রেরণা। আমার মেয়ে বলেছে, সে মোহামেডানের জন্য রোজা রাখছে। ৩০ তারিখ পর্যন্ত রাখবে! ইস্ট বেঙ্গল খেলে লম্বা আর আমরা খেলি ছোট পাসে। ওদের খেলার ভিডিও দেখে ম্যাচের রণকৌশল ঠিক করবো।’ সেমির আগে যে দুই দিন সময় পাওয়া গেছে, এর মধ্যে দলের খেলোয়াড়দের অনেকেই সুস্থ হয়ে উঠবেন বলে আশাবাদী জোসি। তবে যাদের জ্বর হয়েছে, তাদের খেলার সম্ভাবনা নেই বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। দলের সাত খেলোয়াড়দের মধ্যে জন্ডিস হয়েছে জুয়েলের। চোখে ইনফেকশন হয়েছে বিপুলের। সোহেল রানার মাথায় সেলাই পড়েছে ১২টি! জ্বরে আক্রান্ত মোবারক, ইব্রাহিম, জীবন। মোহামেডানের অধিনায়ক অরূপ কুমার বৈদ্য বলেন, ‘প্রথম লক্ষ্য ছিল সেমিফাইনাল খেলা। সেটা অর্জিত হয়েছে। সেমির প্রতিপক্ষ নিয়ে ভাবিত নই। আমরা মোহামেডান নই, বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছি।’ ইস্ট বেঙ্গলের কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য্য বলেন, ‘লক্ষ্যপূরণের অনেকটাই কাছাকাছি চলে এসেছি। আশা করি ফাইনালে উঠতে পারবো। তবে তাই বলে প্রতিপক্ষকে মোটেও খাটো করছি না। ওরা খুবই ভাল দল। সেই হিসেব করেই খেলবো।’

মোহামেডানের চেয়ে ইস্টবেঙ্গলে খেলোয়াড়রা অভিজ্ঞতায় অনেক পিছিয়ে বলে অভিমত বিশ্বজিতের, ‘তবে আমরা ভাল খেলবো বলে আশাবাদী। এখানে আসার আগে ভারতের মিডিয়া আমাদের অবজ্ঞা করে বলেছিল আমরা এই টুর্নামেন্টে বেশিদূর যেতে পারবো না। কারণ দলের সেরা ১৪ খেলোয়াড় আইএসএলে খেলছে। কিন্তু আমরা সেমিতে উঠে প্রমাণ করেছি, তাদের ধারণা ভুল ছিল।’

এদিকে অবসান ঘটছে সব জল্পনার অবসান। ইস্ট বেঙ্গলে যোগ দিতে মঙ্গলবার বাংলাদেশ উড়ে এসেছেন ডু ডং। লাল-হলুদের কোরিয়ান স্ট্রাইকার এখন অনেক সুস্থ। তবে সেমিফাইনালে খেলানো যাবে কি না, সেটা ডংকে দেখার পরেই ঠিক করবেন কোচ বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য। এই আসরে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই চট্টগ্রাম আবাহনীর বিরুদ্ধে ম্যাচে খেলতে গিয়ে চোট পেয়ে ভারতে ফিরে গিয়েছিলেন ডং।

ইস্ট বেঙ্গল অধিনায়ক দীপক কুমার ম-ল বরেন, ‘ভাল লাগছে সেমিতে উঠতে পেরে। আপ্রাণ চেষ্টা করব ফাইনালে উঠতে। এখানকার মাঠ কিছুটা অসমতল হলেও শক্ত নয়। খেলে আরাম পাওয়া যায়।’ এখন দেখার বিষয়, আজকের সেমির দ্বৈরথে বিজয়ীর হাসি হাসে কোন দল।

প্রকাশিত : ২৮ অক্টোবর ২০১৫

২৮/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: