২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

চিটাগাং সিমেন্ট মামলার রায় ৮ নবেম্বর


অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ ১৯৯৬ সালে পুঁজিবাজার কেলেঙ্কারির ঘটনায় আলোচিত চিটাগাং সিমেন্টের (বর্তমানে হাইডেলবার্গ সিমেন্ট) শেয়ার কারসাজি মামলার রায় আগামী ৮ নবেম্বর ঘোষণা করা হবে। আসামিপক্ষের আইনজীবীদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হওয়ায় মঙ্গলবার দুপুরে রায় ঘোষণার এ দিন ধার্য করেন পুঁজিবাজার মামলা নিষ্পত্তিতে গঠিত ট্রাইব্যুনালের বিচারক হুমায়ুন কবীর। এ মামলার আসামি হলেন ডিএসইর সাবেক প্রেসিডেন্ট রকিবুর রহমান, আবু তৈয়ব এবং এ এস এম শহিদুল হক বুলবুল।

মঙ্গলবার রকিবুর রহমান এবং এ এস শাহিদুল হক বুলবুলের আইনজীবী মোহাম্মদ মহসিন রশিদ ট্রাইব্যুনালে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ করেন। এ ছাড়া আবু তৈয়বের পক্ষে যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন সিনিয়র আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। তাদের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হওয়ার পর ট্রাইব্যুনাল রায়ের তারিখ ঘোষণা করেন। এ সময় আদালতে আসামিরা ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন বিএসইসির আইনজীবী মাসুদ রানা খান।

মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়েছে, আসামিরা ১৯৯৬ সালে চিটাগাং সিমেন্টের পরিচালক ছিলেন। ভারতীয় ও ইরানী বিনিয়োগকারীরা কোম্পানির শেয়ার কিনবে বলে আসামিরা মূল্য সংবেদনশীল তথ্য ছড়িয়ে শেয়ার মূল্য প্রভাবিত করেন। এ ব্যাপারে পরবর্তীকালে চিটাগাং সিমেন্টের পক্ষ থেকে সন্তোষজনক কোনো জবাব পাওয়া যায়নি। এর পর কোম্পানির একজন পরিচালক বড় অংকের শেয়ার হস্তান্তরের সঙ্গে সম্পৃক্ত ছিলেন। তবে কী পরিমাণ ও কোন ব্যক্তি এ কাজ করেছেন তা ১৯৯৬ সালের তদন্ত প্রতিবেদনে উল্লেখ নেই। এ ছাড়া বিএসইসির নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও রকিবুর রহমান এবং এ এস শহিদুল হক বুলবুল পরিচালক পদ থেকে পদত্যাগ করেননি। যা সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ অর্ডিন্যান্স-১৯৬৯ এর ১৭ ধারা অনুসারে কারসাজি বলে মনে করে গঠিত তদন্ত কমিটি।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: