১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

চবির ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা


চবির ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা

চবি সংবাদদাতা ॥ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন্ন ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে কোনো গোষ্ঠী যাতে বিশৃঙ্খলা বা সহিংসতা সৃষ্টি করতে না পারে সে লক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সহ সংশ্লিষ্ট সব পক্ষকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এ লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের উদ্যেগে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, র‌্যাব-৭, হাটহাজারী উপজেলা প্রশাসন, পিডিবি, সড়ক ও জনপথ বিভাগ এবং চট্টগ্রাম রেল কর্তৃপক্ষের সাথে বৈঠক হয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের। এতে যৌথভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় বিস্তারিত পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০ টি স্পটে মোাতয়েন থাকবে পুলিশ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের গার্ড।

ভর্তি পরীক্ষা উপলক্ষে নগরীর বটতলী স্টেশন থেকে শাটল ট্রেন যথাক্রমে সকাল ৬.১৫টা, ৭.৩০টা, ৮.৩০, দুপুর ১২টা, ৩.০০টা, ৪.০০টা ও রাত ৮.৩০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে। এছাড়া ক্যাম্পাস থেকে সকাল ৭.২৫টা, ৯.০০টা, ১.০৫টা, ১.৩০টা, ৪.৫০টা, বিকাল সাড়ে ৫টা ও রাত ৯.৪০ মিনিটে শহরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে।

এদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে চলচলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ সবাইকে সার্বক্ষনিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রদত্ত পরিচয়পত্র বহনের জন্য নির্দেশ দিয়েছে প্রশাসন। এ বিষয়ে চবি প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে যাতে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেজন্য র‌্যাব, পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থা সমুহের সদস্যরা ক্যাম্পাসে ও ক্যাম্পাসের বাইরে বিভিন্ন কেন্দ্রে কাজ করবেন। আর এ সব বিষয় সমন্বয় করবে প্রক্টরিয়াল বডি।’ তিনি বলেন, ‘ভর্তি পরীক্ষা চলাকালী শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে বিশ্ববিদ্যালয় প্রদত্ত পরিচয় পত্র সার্বক্ষণিকভাবে সাথে রাখার নির্দেশনা দেয়া হবে। এর ফলে পরিচয়পত্র ব্যতীত কোনো বহিরাগতকে সন্দেহজনকভাবে ক্যাম্পাসে দেখা গেলে তার বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ ভর্তিচ্ছুরা বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে থাকতে পারবে কি না এ বিষয়ে হল কর্তৃপক্ষই সিদ্ধান্ত নেবে বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য ১ নবেম্বর ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে।

সম্পর্কিত: