মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ আগস্ট ২০১৭, ৮ ভাদ্র ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

ফিওরেন্টিনাকে হটিয়ে শীর্ষে রোমা

প্রকাশিত : ২৭ অক্টোবর ২০১৫

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ফিওরেন্টিনাকে হটিয়ে ইতালিয়ান সিরি এ লীগের শীর্ষে উঠল এস রোমা। রবিবার মোহাম্মদ সালাহ ও গারভিনহোর দুর্দান্ত পারফর্মেন্সের সৌজন্যে তারা ২-১ গোলে হারায় ফিওরেন্টিনাকে। সেইসঙ্গে লীগ টেবিলের শীর্ষ স্থানটাও দখল করে তারা। চলতি মৌসুমের প্রথম ৯ ম্যাচ শেষে ২০ পয়েন্ট নিয়ে সবার উপরে অবস্থান করছে গিয়ালোরোসিরা। আর রোমার কাছে হেরে দুই পয়েন্ট পিছিয়ে তিনে অবস্থান করছে ফিওরেন্টিনা। সমান সংখ্যক ম্যাচে নেপোলির সঙ্গে সমান ১৮ পয়েন্ট নিয়ে গোল ব্যবধানে পেছনে থাকার কারণে তিনে অবস্থান তাদের।

এদিন আর্জেন্টাইন তারকা গঞ্জালো হিগুয়েইনের একমাত্র গোলে শিয়েভোকে হারিয়ে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসে নেপোলি। আর শনিবার পালের্মোর সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে লীগের শীর্ষে ওঠার সুযোগ হাতছাড়া করে ইন্টার মিলান। নয় ম্যাচ শেষে তাদের সংগ্রহ ১৮। অবস্থান চতুর্থ। সমান পয়েন্ট নিয়ে মিলানের পরেই বসবাস লাতযিওর। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস রোমার চেয়ে আট পয়েন্ট পিছিয়ে ১২তম স্থানে রয়েছে। যদিও আর্জেন্টাইন পাওলো ডিবালা ও ক্রোয়েশিয়ান মারিও মানজুকিচের গোলে রবিবার তারা ২-০ গোলে হারায় আটলান্টাকে। মানজুকিচের গোলটিতেও সহায়তা করেছেন ডিবালা। চলতি মৌসুমের নয় ম্যাচে তুরিনের জায়ান্ট ক্লাবটির এটি ছিল তৃতীয় জয়। চলতি মৌসুমের শুরু থেকেই অসাধারণ নৈপুণ্য প্রদর্শন করে এসেছে রোমা। যে কারণে সিরিয়ায় বর্তমানে চালকের আসনে তারা। কিন্তু তারপরও এখনও নিজেদের ফেবারিট মানছেন না দলের ফরাসী কোচ রুডি গার্সিয়া। এ বিষয়ে ম্যাচ শেষের সাক্ষাতকারে তিনি বলেন, ‘আমরা এখানে শীর্ষস্থানটি দখল করতেই এসেছি। সে কারণেই ম্যাচের পরিকল্পনা অনুযায়ী ম্যাচটি জিততে পেরে আমরা খুশি। খেলোয়াড়রা সঠিক পথেই আছে। আমাদের নিজেদের ওপর বিশ্বাস আছে, কিন্তু আমাদের এটা ধরে রাখতে হবে। কারণ এখনও মৌসুমের অনেক পথ বাকি।’ এ সময় গারভিনহো এবং সালাহর প্রশংসা করে তিনি আরও বলেন, ‘রক্ষণভাগেও অবদান রাখার পাশাপাশি নিজেদের দারুণভাবে প্রমাণ করেছে গারভিনহো ও সালাহ। তারা আজ সত্যিই দুর্দান্ত খেলেছে।’ সাবেক ক্লাব ফিওরেন্টিনার মাটিতে ফিরে আসাটা মিসরীয় তারকা সালাহর জন্য খুব একটা সুখকর ছিল না। কারণ এখনও গ্রীষ্মকালীন দল বদলে তার ক্লাব পরিবর্তন নিয়ে বিতর্ক রয়ে গেছে। সে বল পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই পুরো স্টেডিয়াম উল্লাসে ভেসে উঠে। সাত মিনিটে মিডফিল্ডার রাদজা নাইগোলানের পাস থেকে কার্লিং শটের মাধ্যমে ফিওরেন্টিনার গোলরক্ষক সিপরিয়ান টাটারুসানুকে পরাস্ত করেন সালাহ। এই গোলের পরে সালাহ অবশ্য কোন ধরনের উদযাপন করেননি। এরপর স্বাগতিকরা কয়েকটি গোলের সুযোগ নষ্ট করে। ফাকুনডো রোনাগিলা ও নিকোলা কালিনিচের প্রচেষ্টায় অল্পের জন্য গোলের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। ৩৪ মিনিটে গারভিনহোর গোলে ব্যবধান দ্বিগুণ করার পাশপাশি নিজেদের আরও এগিয়ে নিয়ে যায় রোমা। বিরতির পরেও আক্রমণাত্মক কৌশল ধরেই খেলা চালিয়ে যাচ্ছিল ফিওরেন্টিনা। কিন্তু ফিনিশারের অভাবে তারা কাক্সিক্ষত গোলের দেখা পায়নি। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে বদলি খেলোয়াড় খুমা বাবাকার এক গোল পরিশোধ করলে তা আর পরাজয় ঠেকাতে পারেনি।

প্রকাশিত : ২৭ অক্টোবর ২০১৫

২৭/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

খেলার খবর



শীর্ষ সংবাদ: