১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সুয়ারেজের হ্যাটট্রিকে বার্সিলোনার আয়েশি জয়


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রাণভোমরা লিওনেল মেসির অভাব বুঝতেই দিচ্ছেন না নেইমার ও লুইস সুয়ারেজ। আর্জেন্টাইন অধিনায়ক না থাকলেও দাপুটে জয়যাত্রা অব্যাহত আছে বার্সিলোনার। রবিবার স্প্যানিশ লা লিগার ম্যাচে কাতালানরা পিছিয়ে পড়েও ৩-১ গোলে পরাজিত করে এইবারকে। বার্সার হয়ে হ্যাটট্রিক করেন উরুগুইয়ান তারকা সুয়ারেজ। এর ফলে ন্যুক্যাম্পে অভিষেকের এক বছর স্মরণীয় করতে পেরেছেন সাবেক লিভারপুল তারকা।

জয় পেয়েছে সাবেক চ্যাম্পিয়ন এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদও। নিজেদের মাঠ ভিসেন্টে ক্যালডেরনে এ্যাটলেটিকো ২-১ গোলে পরাজিত করে ভ্যালেন্সিয়াকে। জ্যাকসন মার্টিনেজ ও ইয়ানিক ফেরেইরা ক্যারাসকোর প্রথমার্ধের গোলে দিয়াগো সিমিওনের দলের জয় নিশ্চিত হয়। পরশুর আরেক ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদ ৪-০ গোলে লেভান্তেকে হারায়। লাস পালমাস ও ভিয়ারিয়ালের মধ্যকার ম্যাচটি গোলশূন্য ড্র হয়। দারুণ জয়ে পয়েন্ট তালিকায় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের সমকক্ষতা পেয়েছে বার্সিলোনা। নয়টি করে ম্যাচ শেষে বার্সা ও রিয়াল দু’দলেরই ভা-ারে জমা সমান ২১ পয়েন্ট করে। তবে গোল গড়ে এগিয়ে থেকে এক নম্বরে রিয়াল ও দুই নম্বরে বার্সা। ১৯ পয়েন্ট নিয়ে এরপরই আছে এ্যাটলেটিকো।

ম্যাচের শুরুতে ক্যান্সারে আক্রান্ত সাবেক খেলোয়াড় ও কোচ জোহান ক্রুইফের সম্মানে বার্সিলোনার সব খেলোয়াড় কমলা টি-শার্ট গায়ে দিয়ে মাঠে প্রবেশ করে। কিন্তু ন্যুক্যাম্পের দর্শকরা ম্যাচের শুরুতে বড়সড় ধাক্কাই খায়। ইনফর্ম স্ট্রাইকার গঞ্জালো টমাসের ১০ মিনিটের গোলে এগিয়ে যায় অতিথি এইবার। কোকোর আগের প্রচেষ্টা রুখে দিয়ে এইবারকে হতাশ করা কাতালান গোলরক্ষক ক্লডিও ব্রাভো আর আটকাতে পারেননি টমাসকে। চলতি মৌসুমে এটা তার ষষ্ঠ গোল। ইনজুরি আক্রান্ত লিয়নেল মেসির স্থানে খেলতে নামা তরুণ ফরোয়ার্ড সন্ড্রো রামিরেজের জন্য ম্যাচটি অবশ্য একটু কঠিনই ছিল। তবে ২১ মিনিটে বার্সিলোনার বিতর্কিত সমতার গোলটিতে ২০ বছর বয়সী এই তরুণ বড় ভূমিকা রাখেন। সার্জিও বসকুয়েটসের বলে তার দুর্দান্ত ভলি থেকে সুয়ারেজের জোরালো হেডের গোলটি নিয়ে অফসাইডের বিতর্ক সৃষ্টি হয়। বিরতির তিন মিনিট পর নেইমারের ভাসানো পাস থেকে বার্সাকে এগিয়ে নেন সুয়ারেজ। ৮৫ মিনিটে আবারও নেইমারের নিয়ন্ত্রিত পাস থেকে সুয়ারেজ নিজের হ্যাটট্রিক ও দলের জয় নিশ্চিত করেন। এর আগে অবশ্য জ্যাভিয়ের মাশ্চেরানোর লালকার্ড বার্সিলোনাকে দুশ্চিন্তায় ফেলেছিল। এই কার্ডে আর্জেন্টাইন ডিফেন্ডারের সামনে হয়ত চার ম্যাচ বহিষ্কারাদেশের খ—গ আসতে পারে। আর সেটা হলে ২১ নবেম্বর রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ এল ক্ল্যাসিকো খেলা হবে না তার। ঠিক এক বছর আগে ২৫ অক্টোবর ২০১৪ সালে বার্সিলোনার হয়ে ন্যুক্যাম্পে অভিষেক হয়েছিল সুয়ারেজের। এ কারণে ম্যাচ শেষে উদযাপনটা একটু অন্যরকমই ছিল উরুগুইয়ান তারকার। নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে সুয়ারেজ বলেন, এভাবে জয় পাওয়াটা অন্যরমকম এক অনুভূতি। আমার জন্য তো বিশেষ বটেই, কারণ এই দিনেই ঠিক এক বছর আগে আমার অভিষেক হয়েছিল। আমরা আবারও ম্যাচের শুরুতে পিছিয়ে পড়েছিলাম। এভাবে পিছিয়ে পড়াটা একটু কঠিন, কিন্তু সঠিক সময়ে আমরা ফিরে এসেছি।

পরশু ম্যাচের এক পর্যায়ে আচমকা মাঠে প্রবেশ করেন এক সমর্থক। লক্ষ্য নেইমারের সান্নিধ্য পাওয়া। কেননা দৌড়ে এসে তিনি ব্রাজিলিয়ান অধিনায়কের সঙ্গে সেলফি তোলায় ব্যস্ত হয়ে পড়েন। এ সময় নেইমার কিছুটা বিব্রতবোধ করলেও ভক্তের অনুরোধে সায় দিয়ে সেলফি তোলেন। পরে তোলা সেই ছবিটি আবার দেখেনও ২৩ বছর বয়সী এই তারকা। তবে খেলার মাঠে আইন অমান্য করে প্রবেশ করা ওই সমর্থককে নিরাপত্তাকর্মীরা এসে নিয়ে যান।

সর্বাধিক পঠিত:
পাতা থেকে: