১৩ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৭ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

দলীয়ভাবে স্থানীয় সরকার নির্বাচন সহিংসতা ও বিশৃঙ্খলা বাড়াবে ॥ এরশাদ


নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল, ২৬ অক্টোবর ॥ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, নির্বাচন কমিশন মেরুদ-হীন হয়ে পড়েছে। সরকার স্থানীয় নির্বাচন কেন দলীয়ভাবে করতে চাচ্ছে? এতে সহিংসতা ও বিশৃঙ্খলা বাড়বে। এভাবে নির্বাচন করে চিরদিন তারা ক্ষমতায় থাকতে চায়। কিন্তু এভাবে কোনদিন নির্বাচন করা যায় না। দেশে এখন অপশাসন, হত্যা, গুমের রাজনীতি চলছে। আরেক দল বিএনপির তো এখন অস্তিতই খুঁজে পাওয়া যায় না। বর্তমান এমপিরা শিশুকে গুলি করে, ইয়াবা সম্রাট হয়। এতে সরকারের দুূর্নাম হচ্ছে। হঠাৎ করে বিদেশীরা শান্তিপূর্ণ দেশে কেন রেড এ্যালার্ট জারি করে দিচ্ছে। দুই বিদেশী এবং পুলিশকে হত্যা করা হয়েছে। এতেই বোঝা যায়, আইনশৃঙ্খলার চরম অবনতি হয়েছে। যে পুলিশ আমাদের রক্ষা করবে, তাদেরই নিরাপত্তা নেই। তাহলে সরকার কিভাবে দেশ পরিচালনা করবে। এজন্য দেশের মানুষ এখন পরিবর্তন চাচ্ছে।

সোমবার দুপুরে ভাসানী হলে টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির দ্বিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে এরশাদ বলেন, আমাকে জেলে রেখে আপনি অনেক অত্যাচার করেছেন। কিন্তু আজ আপনার নিজের ছোট ছেলে মারা গেছে তার লাশও দেখলেন না। আর বড় ছেলে বোমা হামলা মামলার অভিযোগে বিদেশে পালিয়ে বেড়াচ্ছে। পাপের শাস্তি ভোগ করছেন এখন আপনি। কিন্তু আমি এখন অনেক ভাল আছি।

তিনি আরও বলেন, জাতীয় পার্টির আমলে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সে সময়ে দেশে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে। কোথাও কোন দলীয়করণ হয়নি। পুলিশ দিয়ে গুলি করে মানুষ হত্যা করা হয়নি। সীমিত সম্পদের মধ্য দিয়েও রাষ্ট্র পরিচালিত হয়েছে। আমরা যদি মানুষ হত্যা, খুন, গুম করতাম তাহলে জেলে থেকেও পাঁচটি আসনে জয়লাভ করতে পারতাম না। আজ দেশে যে উন্নয়ন দেখছেন তার সবই এরশাদের সরকারের সময়ে হয়েছে। দেশে উপজেলা গঠন করেছিলাম। পরে বিএনপি এসে উপজেলা বাতিল করে দেয়। এতে কী লাভ হয়েছে বিএনপির। দেশের প্রতিটি উপজেলায় হাসপাতাল করেছি। এলজিইডি’র সৃষ্টিকর্তা আমি। এর মধ্য দিয়ে দেশে পাকা রাস্তা করে উন্নতি করেছি। যমুনা সেতু করেছিলাম বলে এখন উত্তরবঙ্গের ১৮ জেলার মানুষ রাজধানী ঢাকায় দ্রুত ও সহজে চলাচল করতে পারছে। তাই জাতীয় পার্টি আবার ক্ষমতায় এলে দেশে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত হবে, দেশ উন্নতি করবে। দেশের ১৬ কোটি মানুষ চেয়ে আছে জাতীয় পার্টির দিকে। টাঙ্গাইল জেলা জাতীয় পার্টির সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক আবুল কাশেমের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান বক্তা ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু এমপি। বক্তব্য রাখেনÑ প্রেসিডিয়াম সদস্য পানিসম্পদমন্ত্রী ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ ও মীর আব্দুস সবুর আসুদ, জেলা জাতীয় পার্টির সাবেক সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট সালাম চাকলাদার প্রমুখ।

সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে পার্টির চেয়ারম্যান এরশাদ আবুল কাশেমকে সভাপতি এবং মোজাম্মেল হককে সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করেন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: