১৮ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

রাকিব হত্যা মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ ॥ পরবর্তী তারিখ বুধবার


‍স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা অফিস ॥ খুলনায় আলোচিত শিশু রাকিব হত্যা মামলায় রবিবার তদন্ত কর্মকর্তা ও রাকিবের লাশের ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসকসহ তিনজন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। খুলনা মহানগর দায়রা জজ আদালতে ভারপ্রাপ্ত বিচারক দিলরুবা সুলতানা তাদের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন। এ নিয়ে এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের কাজ শেষ হলো। মোট ৪০ জন সাক্ষীর মধ্যে ৩৮ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন। আগামী ২৮ অক্টোবর বুধবার মামলার ফৌজদাফর কার্যবিধির ৩৪২ ধারায় আসামিদের পরীক্ষার জন্য দিন ধার্য করেছে আদালত।

বাদীপক্ষের আইনজীবী ও বাংলাদেশ মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থা, খুলনার সমন্বয়কারী এ্যাডভোকেট মোমিনুল ইসলাম জানান, রবিবার খুলনা মহানগর দায়রা জজ আদালতে রাকিব হত্যা মামলায় ৩ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়েছে। সাক্ষ্য প্রদানকারীরা হলেন- মামলার তদন্ত কর্মকর্তা খুলনা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজী মোস্তাক আহমেদ, রাকিবের মরদেহের ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ডাঃ ওয়াহিদ মাহমুদ ও এবং গুড হেলথ ক্লিনিকের অফিসার প্রভাত চন্দ্র গোলদার। বাদীপক্ষের আইনজীবী আরও জানান, এ মামলায় মোট ৪০ সাক্ষীর মধ্যে ৩৮ জন সাক্ষ্য দিয়েছেন। বাকি দুইজনের সাক্ষ্য প্রদানের প্রয়োজন না থাকায় আদালত আগামী ২৮ অক্টোবর বুধবার ফৌজদারি কার্যবিধির ৩৪২ ধারায় আসামিদের পরীক্ষার (বক্তব্য শোনা) জন্য দিন ধার্য করেছেন।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই কাজী মোস্তাক আহমেদ গত ২৫ আগস্ট এজাহারভুক্ত তিন আসামিকে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। এর আগে আসামি তিনজনই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছে। গত ৬ সেপ্টেম্বর মামলাটির বিচার কার্য শুরুর জন্য মহানগর দায়রা জজ আদালতে প্রেরণ করা হয়। ৫ অক্টোবর আসামি শরীফ, মিন্টু মিয়া ও বিউটি বেগমের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করা হয়। এক কর্মস্থল ছেড়ে অন্যস্থানে যোগ দেয়ায় শিশু রাকিবকে গত ৩ আগস্ট বিকেলে মোটরসাইকেলে হাওয়া দেয়া কম্প্রেসার মেশিনের পাইপের মুখ মলদ্বারে ঢুকিয়ে পেটে হাওয়া দেয়ায় তার মৃত্যু হয়।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: