মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

দুই মামলায় এমপি লিটনের জামিন আবেদন ফের নামঞ্জুর

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাইবান্ধা, ২৫ অক্টোবর ॥ সুন্দরগঞ্জে শিশু শাহাদত হোসেন সৌরভকে গুলি করে হত্যাচেষ্টা এবং হাফিজার রহমান ম-ল নামে এক ব্যক্তির বাড়ি ভাংচুরের পৃথক দুটি মামলায় গ্রেফতারকৃত গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম লিটনের জামিন আবেদনের দ্বিতীয় দফা শুনানি রবিবার অনুষ্ঠিত হয়। শুনানি শেষে বিচারক সুন্দরগঞ্জ আমলী আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ওয়াহিদুজ্জামান সৌরভকে গুলি করার মামলায় জামিনের আবেদন না মঞ্জুর করেন। বসতবাড়ি ভাংচুরের অপর মামলাটির রায়ও না মঞ্জুর করা হয়েছে। এইদিন এমপি লিটনকে জেলখানা থেকে আদালতে হাজির করা হয়নি। অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাইনুল হাসান ইউসুফ ছুটিতে থাকায় সুন্দরগঞ্জ উপজেলার আমলী আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মামলা দুটির শুনানি করেন।

এমপি লিটনের আইনজীবীরা গত ২১ অক্টোবর বুধবার আদালতে জামিনের আবেদন করেন। রবিবার বেলা ১২টায় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সুন্দরগঞ্জ আদালতে জামিনের আবেদন করা হলে বিচারক অতিরিক্ত চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ মাইনুল হাসান ইউসুফ আবেদনটি গ্রহণ করে আগামী ২৫ অক্টোবরের শুনানির দিন ধার্য করেন। এমপি লিটনের অন্যতম আইনজীবী এ্যাডভোকেট মোঃ সিরাজুল ইসলাম বাবু জামিনের শুনানি করেন। অপর পক্ষে পুলিশের জিআরও ও সরকারী পক্ষের আইনজীবী শুনানিতে অংশ নেন।

গত ২ অক্টোবর ভোরে সুন্দরগঞ্জ উপজেলার দহবন্দ ইউনিয়নের গোপালচরণ এলাকায় এমপি লিটনের পিস্তুলের গুলিতে আহত হয় শিশু সৌরভ। ওই গ্রামের সাজু মিয়ার ছেলে সৌরভ গোপালচরণ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণীর ছাত্র। শিশুটি এখনও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের শিশু সার্জারি বিভাগে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় সৌরভের বাবা বাদী হয়ে ৩ অক্টোবর এমপি লিটনকে আসামি করে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এছাড়া এমপি লিটনের বিরুদ্ধে বাড়িঘর ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগে ৬ অক্টোবর সুন্দরগঞ্জ থানায় আরও একটি মামলা করেন সর্বানন্দ ইউনিয়নের উত্তর সাহাবাজ গ্রামের বাসিন্দা লিটনের প্রতিবেশী হাফিজার রহমান নামে এক ব্যক্তি। এই দুটি ঘটনায় দায়েরকৃত দুটি মামলায় শুনানি একই সঙ্গে অনুষ্ঠিত হয়। এতে শিশু হত্যার প্রচেষ্টা মামলার জামিন আবেদন না মঞ্জুর করা হয়। এছাড়া বসতবাড়ি ভাংচুরের পৃথক মামলার রায়ও না মঞ্জুর করা হয়েছে।

এমপি লিটনকে গত ১৫ অক্টোবর আদালতে হাজির করার দিন আদালত এই মামলার পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করে দিয়েছে শিশু সৌরভকে গুলির ঘটনায় ১২ ডিসেম্বর ও বসতবাড়ি ভাংচুরের মামলার ১৪ ডিসেম্বর। মামলা দুটির মুল শুনানি ওই তারিখে অনুষ্ঠিত হবে বলেই আদালত সূত্রে জানা গেছে।

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৫

২৬/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: