১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৫ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ফরিদপুরে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে সন্ত্রাসী হাবিব নিহত


নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ২৫ অক্টোবর ॥ পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হাবিবুর রহমান হাবিব (৩২) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। পুলিশ জানায়, নিহত হাবিব পুলিশের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ছিল। তার নামে ডাকাতি, হত্যা, ধর্ষণ, মাদক, চাঁদাবাজিসহ ৯টি মামলা রয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন অভিযানে থাকা সৈকত নামে ডিবির এক কনস্টেবল। ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি পিস্তল, তিন রাউন্ড গুলি, ২টি চাপাতি ও ১টি রক্তমাখা ছুরি উদ্ধার করেছে।

শুক্রবার রাত ১০টায় শহরের পূর্ব খাবাসপুর লঞ্চঘাট জোড়া ব্রিজের নিচে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। নিহত হাবিব ফরিদপুর শহরের পূর্ব খাবাসপুর এলাকার বাসিন্দা। সে এই এলাকার মৃত আব্দুল খালেক মিয়ার ছোট ছেলে।

ফরিদপুর জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ কামরুজ্জামান জানায়, হাবিব ও তার লোকজন ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছেন, গোপন সূত্রে এমন খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালায়। ডিবি পুলিশের একটি দল তাকে আটক করতে ওই স্থানে গেলে পুলিশের ওপর হামলা চালায় হাবির ও তার সহযোগীরা। এ সময় হামলাকারীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে সৈকত হোসেন নামে ডিবি পুলিশের এক কনস্টেবল গুরুতর আহত হন। আত্মরক্ষায় পুলিশের অন্য সদস্যরা পাল্টা গুলি চালালে হামলাকারীরা পালিয়ে যান। পরে ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় হাবিবকে উদ্ধার করে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। বর্তমানে তার মরদেহ ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। নিহত হাবিব ডাকাতি, হত্যা, ধর্ষণ, মাদক, চাঁদাবাজিসহ ৯টি মামলার এজাহাভুরক্ত আসামি। এর মধ্যে ৪টি মামলায় তার বিরুদ্ধে চার্জশীট হয়েছে। আহত ডিবি পুলিশ সদস্য সৈকত ফরিদপুরে প্রাইভেট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: