মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৩ আগস্ট ২০১৭, ৮ ভাদ্র ১৪২৪, বুধবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বিদ্যুত বিভাগের সকল কোম্পানির জন্য অভিন্ন চাকরিবিধি হচ্ছে

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৫

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বিদ্যুত বিভাগের অধিভুক্ত সকল কোম্পানির জন্য অভিন্ন চাকরিবিধি তৈরি করা হচ্ছে। এখন কোম্পানি ভেদে ভিন্ন ভিন্ন চাকরিবিধি অনুসরণ করা হয়। এতে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সুযোগ-সুবিধা প্রাপ্তিতে ভিন্নতা সৃষ্টি হয়। এতে বৈষম্যর শিকার কর্মীদের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করছে। বিদ্যুত বিভাগের অধীনস্থ কোম্পানিগুলোর এই সঙ্কট দূর করতে সকল কোম্পানি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমান সুযোগ প্রদান করার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে।

বিদ্যুত বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. কায়কাউস আহমদকে প্রধান করে রবিবার একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই কমিটিকে আগামী এক সপ্তাহের মধ্যে এ বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। বিশেষত বিদ্যুত উৎপাদন এবং বিতরণ পর্যায়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে সুযোগ-সুবিধার ভিন্নতা রয়েছে। বেশিরভাগ বিদ্যুত কেন্দ্র দেশের প্রত্যন্ত এলাকায় হওয়ায় এসব জায়গার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আর্থিক উৎসাহ ভাতা দেয়া হয় যা বিতরণ কোম্পানির কর্মীরা পান না।

বিদ্যুত বিভাগ বলছে এই পদ্ধতি কার্যকর হলে ইলেক্ট্রিসিটি জেনারেশন কোম্পানি অব বাংলাদেশ (ইজিসিবি), আশুগঞ্জ পাওয়ার স্টেশন কোম্পানি লিমিডেট (এপিএসসিএল), রুরাল পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড (আরপিসিএল), নর্থওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি (এনডব্লিউপিজিসিএল), কোল পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি (সিপিজিসিএল), পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ (পিজিসিবি), ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ডিপিডিসি), ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো), ওয়েস্টজোন পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি (ওজোপাডিকো) এর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সুবিধা সমান হয়ে যাবে।

রবিবার বিদ্যুত, জ্বালানি এবং খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপুর সভাপতিত্বে মন্ত্রণালয়ে এ সংক্রান্ত একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। ওই বৈঠকে দ্রুত একই ধরনের চাকরিবিধি তৈরি সিদ্ধান্ত হয়েছে। তবে উৎপাদন পর্যায়ের কর্মীদের বেশি সুবিধা দেয়ার প্রসঙ্গটি বৈঠকে আলোচিত হয়। এসব বিষয় সমন্বয় করে কমিটিকে সুপারিশ জমা দিতে বলা হয়েছে। বৈঠকে পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহাম্মদ হোসাইন ‘ইউনিফর্ম সার্ভিস রুলস ফর পাওয়ার সেক্টর কোম্পানিস’ বিষয়ে একটি উপস্থাপনায় বিস্তারিত তুলে ধরেন। এতে বলা হয়েছে উৎপাদন, সঞ্চালন এবং বিতরণ এই তিন পর্যায়ে কর্পোরেট সংস্কৃতি গড়ে উঠবে। যা এই খাতে দক্ষমতার মান উন্নয়ন করবে। তবে বিদ্যুত বিভাগের একাধিক কর্মকর্তার সঙ্গে আলাপ করে জানা গেছে অতীতেও সকল কোম্পানির জন্য অভিন্ন চাকরিবিধি তৈরির উদ্যোগ নিয়ে কার্যকর করা যায়নি। এক্ষেত্রে যারা বেশি সুযোগ-সুবিধা পান তারা অধিকার ছাড়তে না চাওয়ায় সমস্যা সৃষ্টি হয়। তবে এক্ষেত্রে সকলের সুবিধা সমান হলে যারা কম সুবিধা পান তাদের বাড়িয়ে দিলেই সঙ্কট দূর করা সম্ভব হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

প্রকাশিত : ২৬ অক্টোবর ২০১৫

২৬/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

শেষের পাতা



শীর্ষ সংবাদ: