২২ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

তাজিয়া মিছিলে বোমা আইএসের বিবৃতি উদ্দেশ্যমূলক ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী


সংসদ রিপোর্টার ॥ পবিত্র আশুরায় হোসেনি দালানে পবিত্র আশুরার দিন তাজিয়া মিছিলের প্রস্তুতিকালে গ্রেনেড হামলার দায় স্বীকার করে আন্তর্জাতিক জঙ্গী সংগঠন ইসলামিক স্টেটস (আইএস)-এর দেয়া বিবৃতিকে উদ্দেশ্যমূলক বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেছেন, আইএসের কোন অস্তিত্ব বাংলাদেশে নেই।

রবিবার জাতীয় সংসদে অনুষ্ঠিত স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিদেশী হত্যা ও পবিত্র আশুরায় গ্রেনেড হামলা একই সূত্রে গাঁথা। ইতোমধ্যে বিদেশী হত্যায় জড়িতরা চিহ্নিত হয়েছে। দ্রুতই তাদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে। এদিকে একের পর এক বিদেশী হত্যায় বৈঠকে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে সংসদীয় কমিটি।

কমিটির সভাপতি টিপু মুন্শির সভাপতিত্বে বৈঠকে কমিটি সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, মোঃ শামসুল হক টুকু, ওমর ফারুক চৌধুরী, আবুল কালাম আজাদ ও কামরুন নাহার চৌধুরী এবং সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, আমরা আগেও বলেছি, এখনও বলছি, সাংগঠনিকভাবে আইএসের অস্তিত্ব বাংলাদেশে নেই। আমাদের গোয়েন্দারা সেটা পায়নি। তবে আইএস জঙ্গী, আনসারুল্লাহ বাংলাটিম, ছাত্রশিবির এরা সব একই সূত্রে গাঁথা। তিনি বলেন, একটা কিছু হলেই তাৎক্ষণিকভাবে আইএস বিবৃতি দিচ্ছে। এটা প্রপাগান্ডা হতে পারে। আবার উদ্দেশ্যও থাকতে পারে। আমরা বিষয়টি তদন্ত করছি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, কোন একটা ঘটনা ঘটলে বিদেশী বন্ধুরা বাংলাদেশে আইএস আছে বলে যে মন্তব্য করে থাকেন, তা ঠিক না। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সতর্ক আছে। এখানে অন্য কোন সন্ত্রাসী থাকতে পারে। তদন্ত করছি, তদন্ত শেষ হলে তা স্পষ্ট হবে। কে কার সঙ্গে জড়িত। এই সকল ঘটনার পিছনে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র থাকতে পারে বলেও তিনি মন্তব্য করেন।

সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে কিছুটা উদ্বেগ প্রকাশ করে কমিটির সদস্য সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোঃ শামসুল হক টুকু সাংবাদিকদের বলেন, সবই তো ভাল ছিল। পূজাটা ভালভাবে কাটল। কিন্তু শেষ মুহূর্তে বোমা হামলা ঘটল। চাঁদেরও কলঙ্ক আছে। তেমন এটাও একটা কলঙ্ক হয়ে গেল।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: