২১ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৩ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলার দায় জামায়াত-বিএনপির


বিশেষ প্রতিনিধি ॥ পুরান ঢাকার হোসেনী দালানে শিয়া সম্প্রদায়ের পবিত্র আশুরার মিছিলপূর্ব প্রস্তুতিকালে বোমা হামলার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতকে দায়ী করেছে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। দলটির সিনিয়র নেতাদের দাবি, দেশকে অস্থিতিশীল করা ও সরকারের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাতে যারা বোমা হামলা করছে, বিদেশীদের হত্যা করছে- তারা বিএনপি-জামায়াতের লোক। একজন বিদেশে বসে হয়ত দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য বিভিন্ন চক্রান্ত-ষড়যন্ত্র করছেন। সেই চক্রান্তের অংশ হিসেবেই এই হামলার ঘটনা ঘটতে পারে। তবে যারাই এসব ষড়যন্ত্র-চক্রান্তের সঙ্গে জড়িত তারা কেউ-ই রেহাই পাবে না।

শনি ও রবিবার দু’দিন আওয়ামী লীগের আনুষ্ঠানিক ব্রিফিং এবং দলের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে সিনিয়র নেতারা এসব অভিযোগ করেন। আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য ও কেন্দ্রীয় ১৪ দলের মুখপাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম লন্ডনে অবস্থানরত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার প্রতি ইঙ্গিত করে বলেন, এসব ঘটনা ঘটার কারণ, একজন বিদেশে বসে হয়ত দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য চক্রান্ত চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। পুরান ঢাকার বোমা হামলার ঘটনার সঙ্গে ওই ষড়যন্ত্রের যোগসূত্র থাকতে পারে।

শনিবার রাজধানীর শিল্পকলা একাডেমিতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাফল্য নিয়ে যুবলীগ আয়োজিত ‘তোমার কীর্তি মোদের গর্ব’ শীর্ষক সংবাদচিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সভায় তিনি আরও বলেন, পবিত্র তাজিয়া মিছিলের ওপর কিভাবে হামলা হলো চিন্তা করতে হবে। মাত্র একদিন আগেই দুর্গাপূজার উৎসব শান্তিপূর্ণভাবে শেষ হয়েছে। একটা ঘটনাও ঘটেনি। তবে তাজিয়া মিছিলে হঠাৎ করে মধ্যরাতে এ হামলা কেন? শেখ হাসিনা সাম্প্রতিকালে যত অর্জন করেছেন, সেই মুহূর্তে এই ঘটনা কেন? তবে এসব ঘটনার কারণ খুব পরিষ্কার, কেননা খুব তাড়াতাড়ি একাত্তরের দু’জন ঘাতকের দ- কার্যকর হতে যাচ্ছে।

খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ করে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, সাহস থাকলে সামনে এসে লড়াই করুন। বিদেশে বসে যারা ষড়যন্ত্র-চক্রান্ত করে তারা কাপুরুষ। আওয়ামী লীগ এমন একটা সংগঠন, যারা সামনে থেকে লড়াই করতে পছন্দ করে। বিদেশে থেকে লড়াই করে না। তিনি বলেন, বিদেশে ষড়যন্ত্র করবেন না। আপনাদের সঙ্গে আবার লড়াই হবে ২০১৯ সালে। সেই লড়াইয়ে আওয়ামী লীগ আবারও জয়ী হবে ইনশা আল্লাহ। যুবলীগ চেয়ারম্যান ওমর ফারুক চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেনÑ সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী, যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ প্রমুখ।

হামলাকারী অপশক্তি বিএনপি-জামায়াতÑ হানিফ ॥ আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম হানিফ এমপি পবিত্র আশুরা উপলক্ষে শিয়া সম্প্রদায়ের তাজিয়া মিছিলের প্রস্তুতিকালে বোমা হামলার তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেছেন, যারা পেট্রোলবোমায় মানুষ পুড়িয়ে মেরে সরকার পতনে ব্যর্থ হয়েছিল, তারাই তাজিয়া মিছিলে হামলা এবং বিদেশী নাগরিক হত্যাসহ সাম্প্রতিক সময়ের সকল হত্যার সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। আসলে তারা সরকারের উন্নয়ন কর্মকা-ে ঈর্ষান্বিত হয়ে যে কোন মূল্যে দেশকে অস্থিতিশীল করার জন্য এ ধরনের ঘটনার মদদ দিচ্ছে। আর সেই অপশক্তি যে বিএনপি-জামায়াত তা দেশবাসী জানে। তবে হামলাকারী যারাই হোক না কেন, তাদের দ্রুত গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়া হবে।

শনিবার দুপুরে ধানম-ির আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের এক যৌথ সভা শেষে প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি আরও বলেন, দেশে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া কয়েকটি হত্যাকা- দেখে বোঝা যায়, এ হত্যাকা-গুলো অত্যন্ত পরিকল্পিত এবং রাজনৈতিক। আর এ হত্যাকা-গুলোর তদন্তে দেখা যায়Ñ ডাকাতি, ছিনতাই বা ব্যক্তিগত শত্রুতার জের ধরে এসব ঘটনা নয়। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগদানরত অবস্থায় তাকে বিব্রত করার জন্য দেশে হত্যাকা- ঘটানো হয়েছে। হত্যাকা-গুলোর বেনিফিশিয়ারি কারা তাও বিবেচনা করতে হবে। এ ধরনের হামলা প্রতিহত করার জন্য দেশের মানুষকে সচেতন হয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সহায়তা করতে হবে।

লন্ডনে গিয়ে নতুন খেলায় মেতেছেন খালেদা জিয়াÑ ড. হাছান ॥ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া লন্ডনে গিয়ে ষড়যন্ত্র করে নতুন খেলায় মেতে উঠেছেন। বিদেশীদের ওপর হামলা ও তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলা তারই অংশ।

রবিবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদ আয়োজিত ‘তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলার প্রতিবাদে’ এক সমাবেশে তিনি আরও বলেন, তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলা কোন বিচ্ছিন্ন ঘটনা নয়। দেশকে অস্থিতিশীল এবং পাকিস্তান বা আফগানিস্তান বানানোর চেষ্টায় বিএনপি-জামায়াতের পৃষ্ঠপোষকতায় এই হামলার ঘটনা ঘটেছে।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের সময় বিএনপি-জামায়াত পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করেছে। চলতি বছরের প্রথমদিকে একই কায়দায় তারা মানুষ হত্যা করেছে। এসব ষড়যন্ত্র এবং হত্যা করে তারা ব্যর্থ হয়েছে। এখন আবার নতুন ষড়যন্ত্র করে গার্মেন্টস, বিদেশী বিনিয়োগ বন্ধ করার জন্য চেষ্টা চালাচ্ছে। এরই অংশ হচ্ছে বিদেশী হত্যা ও তাজিয়া মিছিলে বোমা হামলা।

সরাসরি বিএনপি-জামায়াতকে দায়ী করলেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ॥ পুরান ঢাকার ইমামবাড়ায় শিয়াদের তাজিয়া মিছিলে হামলার জন্য সরাসরি বিএনপি-জামায়াত জোটকে দায়ী করেছেন খাদ্যমন্ত্রী এ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম।

শনিবার সকালে হামলাস্থল নাজিম উদ্দিন রোডের হোসেনী দালান চত্বরে পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে কামরুল ইসলাম বলেন, দুই বিদেশী হত্যা, গাবতলীতে পুলিশ হত্যা এবং শিয়াদের তাজিয়া মিছিলে বোমা মেরে মানুষ হত্যায় একই গোষ্ঠী জড়িত।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: