২৪ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

নেতা-মন্ত্রীদের লাগামহীন মন্তব্যে ক্ষুব্ধ মোদি


বিহার ভোট যখন মধ্যগগনে, তখন বিজেপির নেতা-মন্ত্রীদের একের পর এক লাগামছাড়া মন্তব্যে ক্ষুব্ধ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এই সব মন্তব্য শাসক দলের নেতাদের অসহিষ্ণু মনোভাবকেই সামনে এনে দিয়েছে। যার জেরে বিতর্ক ছড়িয়েছে গোটা ভারতে। বিহারে বিজেপির ভোটবক্সে সেই বিতর্কের বিরূপ প্রতিক্রিয়া হতে পারে বলে আশঙ্কায় বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বই। এই পরিস্থিতি সামাল দিতে দল বা সরকারের কী রণকৌশল হবে, তা ঠিক করতেই এখন হিমসিম খাচ্ছেন মোদি থেকে অমিত শাহ।

খবর আনন্দবাজার পত্রিকার।

কিন্তু তার পরেও দাদরির আঁচ বিজেপির গায়ে ভাল মতোই লাগছে। অভিযোগ উঠছে, বিহারের ভোটকে সামনে রেখেই মেরুকরণের রাজনীতি করতে চাইছে বিজেপি। ঠিক যেমনটি তারা করেছিল উত্তরপ্রদেশে লোকসভা ভোটের আগে। কিন্তু বিহার ও উত্তরপ্রদেশ এক নয়। ফলে, উস্কানিমূলক মন্তব্যের জেরে বিহারে উল্টো প্যাঁচে পড়ছে তারা। লালু-নীতীশেরা বলার সুযোগ পেয়েছেন যে, বিজেপির সাম্প্রদায়িক চেহারাটা আবার সামনে এসে গিয়েছে।

অথচ বিহারে প্রচারে গিয়ে বারবার উন্নয়নের প্রসঙ্গই তুলে ধরেছেন মোদি। কিন্তু দাদরির ঘটনা বা এম এম কালবার্গি, গোবিন্দ পানসারের হত্যা, তার সেই প্রচারকেই আড়াল করে দিচ্ছে। অসহিষ্ণুতা ঘিরে বিতর্ককেই মূল বিষয় করে তুলতে চাইছেন বিরোধীরা। তাতে ইন্ধন জোগাচ্ছে বিজেপি নেতাদেরই একাংশের লাগামহীন মন্তব্য। ফলে ক্ষুব্ধ হন মোদি।

সম্পর্কিত: