২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৮ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

কেশবপুর প্রাথমিক শিক্ষা অফিসারের অপসসারনের দাবিতে শিক্ষকদের বিক্ষোভ


নিজস্ব সংবাদদাতা, কেশবপুর॥ কেশবপুরের সেই আলোচিত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার আনিছুর রহমানের বিরুদ্ধে বিদ্যালয় উন্নয়ন প্রকল্পের বরাদ্দসহ বিভিন্ন খাত থেকে ২০ লাখ টাকা আতœসাতের অভিযোগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা দূর্নীতিবাজ শিক্ষা অফিসারের অপসারণের দাবিতে আনন্দোল শুরু করেছেন। রবিবার তারা শিক্ষা অফিসারের অপসারনের দাবিতে শহরে বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ, শিক্ষা অফিস ঘেরাও, উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। শিক্ষা অফিসার আনিসুর রহমানের বিরুদ্ধে এ সকল অভিযোগ নিয়ে গত ৮ জুলাই দৈনিক জনকণ্ঠে একটি রিপোর্ট প্রকাশিত হয়। প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে গত ২৭ আগষ্ট ওই রিপোর্টের তদন্তও করা হয়।

প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রনালয়ের সহকারী পরিচালক মির্জা মোঃ আব্দুল্লাহ গত ২৭ আগস্ট দৈনিক জনকণ্ঠের প্রকাশিত রিপোর্টের তদন্ত করতে কেশবপুর আসেন। এ সময় তাঁর সাথে যশোর জেলার সহকারী প্রাথমিক অফিসার জাহাঙ্গীর আলম ও ঢাকা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের উচ্চমান সহকারী শহিদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। তথ্যপ্রামন ও বিভিন্ন বিদ্যালয় পরিদর্শন করে তিনি শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে প্রকাশিত রিপোর্টের সত্যতা পেয়েছেন বলে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানিয়েছিলেন। একটি সুত্র জানায়, প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির কতিপয় নেতার যোগসাজসেই শিক্ষা অফিসার সীমাহীন দূর্নীতির সুযোগ পেয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা সরকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম বাবু জানান, উপজেলা শিক্ষা অফিসারের বিরুদ্ধে নানা ধরনের অভিযোগে তাকে অপসারনের দাবিতে আমরা আনন্দোল শুরু করেছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে তাকে অপসারনের আশ্বাস দিয়েছেন। যদি তা না হয় তবে আমরা পরবর্তীতে কর্মসূচি গ্রহন করব। শিক্ষা অফিসার আনিছুর রহমানকে বার বার মোবাইল করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। উপজেলা নির্বাহী অফিসার শরীফ রায়হান কবির জানান, শিক্ষকদের অভিযোগ পেয়েছি তবে যেহেতু তিনি আমার অফিসার তাই তার ব্যাপারে আমি কিছু বলতে চাইনা।