মূলত পরিষ্কার, তাপমাত্রা ২২.৮ °C
 
২৫ এপ্রিল ২০১৭, ১২ বৈশাখ ১৪২৪, মঙ্গলবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

কক্সবাজার ও চট্টগ্রাম নিয়ে মহাপরিকল্পনা নেয়া হয়েছে ॥ ও . কাদের

প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, উখিয়া, ২৩ অক্টোবর ॥ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এমপি বলেছেন, শীঘ্রই কক্সবাজার-চট্টগ্রাম সড়ককে চারলেনে উন্নীত করা হবে। বর্তমান আওয়ামী লীগ সরকার চট্টগ্রাম ও কক্সবাজারকে নিয়ে মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে। সরকার সীমান্ত সুরক্ষা করতে ৬৯৫ কিমি সড়ক নির্মাণের কাজ শীঘ্রই চালু করা হবে। মেরিন ড্রাইভ সড়কের সেতু দিয়ে দেশী-বিদেশী পর্যটকরা এখন নিরাপদে চলাচল করতে পারবে। নির্বিঘেœ পর্যটকরা পরিবার-পরিজনসহ সকলকে নিয়ে সমুদ্র ভ্রমণে আসতে পারবে।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টায় উখিয়ার জালিয়াপালং ইউনিয়নের মেরিন ড্রাইভ সড়কের ইনানী বড়খাল ও ছোটখাল সেতু উদ্বোধনকালে এসব কথা বলেন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এ সময় বক্তব্য রাখেন, ১৬ ইসিবি পরিচালক এসডব্লিউও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোঃ আবদুল ওহাব, প্রকল্প পরিচালক, লে. কর্নেল মোঃ মনোয়ারুল ইসলাম সরদার পিএসসি, ১৬ ইসিবির ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক ও প্রকল্প কর্মকর্তা মেজর মোঃ মাহবুবুর রহমান পিএসসি, কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোঃ আলী হোসেন, জেলা পুলিশ সুপার শ্যামল কুমার নাথ।

সেতুমন্ত্রী বলেন, সোনাদিয়া সমুদ্র বন্দর স্থাপন, মাতারবাড়ী সংযোগ পাওয়ার স্টেশন ও কর্ণফুলী টানেল নির্মাণ ২০১৭ সালের জুনের মধ্যে সমাপ্ত হবে বলে আশা করছি। কক্সবাজার-টেকনাফ মেরিনড্রাইভ সড়ক প্রকল্পের ইনানী বড়খাল ও ছোটখাল সেতু দুটি গুরুত্বপূর্ণ। সেতু দুটির দৈর্ঘ্য ৪৪.২ মিটার ও ৩১.৮৪ মিটার। ব্যয় ধরা হয়েছে বড় খালের আট শ’ ৩৭ কোটি ২৬ লাখ টাকা আর ছোট খালের সেতুর ব্যয় ধরা হয়েছে ৬০৫ কোটি ৬০ লাখ টাকা। সেতু দুটি যোগাযোগ ব্যবস্থাকে বহুলাংশে উন্নীত করেছে এবং সংযোগ ব্যবস্থায় জেলা শহরের সঙ্গে অন্যান্য উপজেলার দূরত্ব অনেকাংশে কমে এসেছে। সেতু দুটি বাংলাদেশÑমিয়ানমারের মধ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে সক্ষম হবে। মেরিন ড্রাইভ সড়কের সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে বিশাল ও দীর্ঘ সমুদ্র সৈকত অবলোকন এবং দেশী ও বিদেশী পর্যটকদের আরও বেশি আকৃষ্ট করতে সক্ষম হবে।

প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৫

২৪/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

অন্য খবর



শীর্ষ সংবাদ: