মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ জুলাই ২০১৭, ৯ শ্রাবণ ১৪২৪, সোমবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

আবার এক সঙ্গে সাকিব-সৌম্য

প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৫
আবার এক সঙ্গে  সাকিব-সৌম্য
  • ২০১৩ সালের চ্যাম্পিয়ন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সে খেলেছেন এ দুই ক্রিকেটার, এবার বিপিএলে ১৬ পাকিস্তানী, সাকিবের দলে একমাত্র পাক ক্রিকেটার পেসার ওয়াহাব

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ আগের দুই আসরে ভিন্ন দু‘টি দলে খেলেছেন। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ (বিপিএল) টি২০ ক্রিকেটের প্রথম আসরে খুলনা রয়েল বেঙ্গলসের হয়ে এবং পরের বছর দ্বিতীয় আসরে ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে খেলেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ২০১৩ সালের দ্বিতীয় সেই বিপিএলে তিনি সতীর্থ হিসেবে পেয়েছিলেন তরুণ উদীয়মান সৌম্য সরকারকে। যদিও তখন সৌম্য তেমন জনপ্রিয় ও পরিচিত মুখ ছিলেন না। কিন্তু গত এক বছরের মধ্যেই তিনি দেশের অন্যতম জনপ্রিয় একজন তারকায় পরিণত হয়েছেন। দুই বছর আগে একই দলে থেকে শিরোপা উৎসব করেছেন গ্ল্যাডিয়েটর্সের হয়ে। এবার এ দুই তারকা ঠাঁই নিয়েছেন নতুন ঠিকানায়। রংপুর রাইডার্স আইকন হিসেবে সাকিবকে পেয়েছে এবং ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজে’ একেবারে প্রথম সুযোগেই সৌম্যকে ভিড়িয়েছে দলে। এবার এ দুই তারকার জন্য চ্যালেঞ্জ গ্ল্যাডিয়েটর্সের পর রংপুরকে চ্যাম্পিয়ন করার। একই দলে আছেন পাকিস্তানী তারকা ওয়াহাব রিয়াজ। যার সঙ্গে এ বছর পাকিস্তান দলের বাংলাদেশ সফরের সময় টেস্ট সিরিজে ম্যাচের ভেতরে বচসা হয়েছিল। সেই ওয়াহাব এবার আইকন ও অধিনায়ক সাকিবের নেতৃত্বে খেলবেন একই দলে।

বিপিএলের প্রথম আসরে ছিল পাকিস্তানী তারকা ক্রিকেটারদের ভিড়। সেব আসরে ১৬ পাক ক্রিকেটার ৬ ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে খেলেছিলেন। কিন্তু দ্বিতীয় আসরে কোন পাক ক্রিকেটার ছিলেন না। কারণ বাংলাদেশ ক্রিকেট দল নিরাপত্তা শঙ্কায় পাকিস্তান সফর বাতিল করার কারণে। ২০১৩ সালের শুরুতেই পাকিস্তান সফরে যাওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশ দলের। পরে ওই বছর পাক ক্রিকেটারদের ছাড়াই বিপিএল হয়েছে। এক বছর বন্ধ থাকার পর এবার নতুন করে মাঠে গড়াচ্ছে বিপিএল। নতুন ৬ দল মোট ১৬ পাক ক্রিকেটারকে অন্তর্ভুক্ত করেছে এবার। প্রথমবারের মতো এ আসরে খেলবেন পাক পেসার ওয়াহাব রিয়াজ। চড়া মেজাজের কারণে যার বিশ্বে রয়েছে আলাদা এক পরিচিতি। এ বছর পাকিস্তান দলের বাংলাদেশ সফরের সময়েও সেটা দেখা গেছে। বাংলাদেশী অলরাউন্ডার সাকিবের সঙ্গে মাঠেই বাক-বিত-ায় জড়িয়েছিলেন তিনি। মজার বিষয় হচ্ছে এবার সেই ওয়াহাবকে খেলতে হবে সাকিবেরই নেতৃত্বে। পূর্বের দলগুলোর মধ্যে নামে ও ফ্র্যাঞ্চাইজি হিসেবে টিকে যাওয়া একমাত্র দলটি রংপুরের হয়ে খেলবেন ওয়াহাব। আর এ দলটির আইকন সাকিব দলনেতা হওয়ার সম্ভাবনাও প্রচুর। সেক্ষেত্রে এবার দু’জনকে শলাপরামর্শ করতে হবে প্রতিপক্ষ ব্যাটসম্যানকে ঘায়েলের।

সাকিবের সঙ্গে একই দলে আছেন তরুণ উদীয়মান ওপেনার সৌম্য। গত বছর থেকে যার উত্থান। জিম্বাবুইয়ের বিরুদ্ধে ঘরের মাটিতে একটি মাত্র ওয়ানডে খেলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে যাত্রা শুরু হয় সৌম্যের। এরপর বিশ্বকাপও খেলেন তিনি। খুব বড় কোন ইনিংস খেলতে না পারলেও দারুণ আলো ছড়িয়ে নিজের মধ্যে মেধা আছে সেটার পরিচয় দিতে সক্ষম হয়েছিলেন। পরবর্তীতে এপ্রিলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ঢাকায় অপরাজিত ১২৭ রানের একটি বিস্ফোরক ইনিংসে খেলে নিজেকে তামিম ইকবালের পর আরেকজন আক্রমণাত্মক ও নির্ভরযোগ্য ওপেনার হিসেবে প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন। এ কারণে লটারিতে প্রথম দল হিসেবে কোন খেলোয়াড় পছন্দ করার সুযোগ পেয়েই সৌম্যকে দলে নিয়ে নেয় রংপুর। এর আগে ২০১৩ সালের দ্বিতীয় বিপিএলে সৌম্য ৫ ম্যাচে ব্যাটিং করে রান করেছিলেন মাত্র ৩৩। সে বছর সাকিব প্রথমবার গ্ল্যাডিয়েটর্সে সতীর্থ হিসেবে পেয়েছিলেন এ তরুণকে। বর্তমানে দু’জন জাতীয় দলের সতীর্থ, প্রথমশ্রেণীর ক্রিকেট আসর জাতীয় ক্রিকেট লীগে (এনসিএল) খুলনা বিভাগীয় দলে সতীর্থ। তবে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগ, বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ (বিসিএল) দু’জন ভিন্ন দলের।

গ্ল্যাডিয়েটর্স টানা দ্বিতীয়বারের মতো চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল ২০১৩ সালে। গর্বিত সদস্য ছিলেন সাকিব-সৌম্য। সাকিবের পাশাপাশি এখন সৌম্য অন্যতম তারকা এবং যেকোন দলের অপরিহার্য ব্যাটসম্যান। তাই দু’জনের জন্য চ্যালেঞ্জ এবার রংপুরকে চ্যাম্পিয়ন করার। এবার ১৬ পাক ক্রিকেটারের মধ্যে মাত্র একজন রংপুর দলে আছেন। সর্বাধিক ৫ জন পাকিস্তানীকে দলে ভিড়িয়েছে ঢাকা ডিইনামাইটস। মোহাম্মদ ইরফান, ইয়াসির শাহ, নাসির জামশেদ, সোহেল খান ও শাহজাইব হাসান। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সে দু’জন-শোয়েব মালিক ও আহমেদ শেহজাদ। চিটাগাং ভাইকিংসে চারজন- মোহাম্মদ আমির, কামরান আকমল, উমর আকমল ও সাঈদ আজমল। বরিশাল বুলসে দু’জন- মোহাম্মদ সামি ও ইমাদ ওয়াসিম। সিলেট সুপারস্টারসে শহীদ আফ্রিদি ও সোহেল তানভীর।

প্রকাশিত : ২৪ অক্টোবর ২০১৫

২৪/১০/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: