২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ঈদের অডিও এ্যালবাম


সাজু আহমেদ ॥ পবিত্র ঈদ-উল-আযহাকে সামনে রেখে অডিও প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো বিশেষ বিশেষ এ্যালবাম প্রকাশ করে থাকে। গত ঈদ উল ফিতরে তিন শতাধিক এ্যালবাম প্রকাশ হলেও এবার এক্ষেত্রে অনেকটা কমতি লক্ষ করা গেছে। এর কারণ হিসেবে জানা গেছে গত ঈদের প্রায় বেশির ভাগ এ্যালবামই চলেনি। বিশেষ করে কোন শিল্পীর মৌলিক কোন গান শ্রোতারা খুঁজে পায়নি। গতবার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের অর্থ উঠিয়ে নিলেও ভাল গান তৈরিতে শিল্পীরা অনেকটাই হোচট খেয়েছেন। সেই বিষয়টি মাথায় রেখে এবার অনেক শিল্পীই আর ঝুঁকি নেননি বলে এবার এ্যালবামের সংখ্যা অনেক কম। তবে কয়েকটি প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বেশ কয়েকটি এ্যালবাম প্রকাশ করেছে। এরই ধারাবাহিকতায় এবারের ঈদে লেজার ভিশন আটটি, সঙ্গীতার ৮টি, সিডি চয়েস ১১টি, জি সিরিজ-অগ্নিবীণা ১৫টি, ঈগল মিউজিক ৮টি, সুরঞ্জলি চারটি এবং সিএমভি একটি এ্যালবাম প্রকাশ করেছে। এই প্রতিষ্ঠানগুলোর বাইরে আরও বেশ কিছু প্রতিষ্ঠানের এ্যালবাম রিলিজের অপেক্ষায়। বিভিন্ন প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানের ঈদ অডিও এ্যালবামের খবরাখবর নিয়ে এ আয়োজন।

লেজার ভিশনের ৮ এ্যালবাম : বরাবরের মতো এবারও কয়েকটি এ্যালবাম বাজারে এনেছে লেজার ভিশন। এর মধ্যে অন্যতম ‘হারানো সন্ধ্যায়’। এতে গান গেয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়, শ্রীকান্ত ও মিঠু আহমেদ। গীতিকার ডাঃ রাজীব চক্রবর্তী, বাসু, দেব প্রসাদ, রাজীব চৌধুরী ও তানভীর হক। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ডাঃ রাজীব চক্রবর্তী, বাসু, তানভীর হক। এ্যালবাম ‘প্রতিদিন’। এতে গেয়েছেন কিশোর, পুলক, মুহিন, রাজীব, পারভেজ, অনিক, নাহিদ, লাকি ও অপু। সুর ও সঙ্গীত অভিজিৎ চক্রবর্তী জিতু। গীতিকার কে, জিয়া। এ্যালবাম ‘রবিবাবুর গান’। ফাহমিদা নবী, বাপ্পা মজুমদার, সন্দীপন, টিপু, আবিদুর রেজা জুয়েল, অজয় মিত্র, নির্ঝর চৌধুরী, অর্নব মিত্র ও শায়লা রহমান। কথা ও সুর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। সঙ্গীতায়োজনে অজয় মিত্র। কণ্ঠশিল্পী শিমুল ইউসুফের এ্যালবাম ‘শিমূলের গান’। কথা ও সুর রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম, লালন, রজনীকান্ত, প্রণব রায়, হেমায়েত উদ্দিন আহমেদ, নুরুজ্জামান শেখ, আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরী, বদরুল হাসান, ফজলে লোহানী, আবিদুর রহমান, মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, ওসমান শওকত, ড. এনামুল হক, সমর দাস, আব্দুল লতীফ, খান আতাউর রহমান, মোহাম্মদ শাহনেওয়াজ, আলতাফ মাহমুদ। এ্যালবাম ‘গল্পটা তোকে নিয়ে’। শিল্পী ফাহমিদা নবী, বাসু, সুপ্তিকা, অপু সরকার, রফিকুল আলম, সুস্মিতা নন্দী, রাজু গাজী, ইতু সিনহা, মাটি, রুমানা আক্তার ইতি। গানের কথা আশীষ বৈদ্য, সুর ও সঙ্গীত বাসু। কণ্ঠশিল্পী আসফ খান ও রুমানা ইসলামের এ্যালবাম ‘এখন আর তখন’। গানের কথা মিলন খান, কবির বকুল, লোকমান হোসেন ফকির ও রফিক আহমেদ। সুর আসফ খান। মাহবুবা রহমানের এ্যালবাম ‘কালজয়ী গান’। কথা ও সুর খান আতাউর রহমান ও সমর দাস। এ্যালবাম ‘ভালবাসায় তুমি’। শিল্পী সৈয়দ আব্দুল হাদী, সুমনা বর্ধন, আফসানা রুনা, ইমরান, মঞ্জু শাহা, শামসুল আনোয়ার মুকুল, পিয়াঙ্কা গোপ, সোহেল মেহেদী, মুহিন ও রন্টি দাস।

সিডি চয়েসে ১১ এ্যালবাম : বরাবরই ভাল ভাল এ্যালবাম রিলিজ দেয়ার চেষ্টা করে সিডি চয়েস। তবে এবারের ঈদটি সিডি চয়েসের জন্য অন্য রকম একটি সময়। কারণ সিডি চয়েসে মালিকানায় এসেছে পরিবর্তন। আগের মালিক ইমদাদ সুমনের পরিবর্তে তার ছোট ভাই জহিরুল ইসলাম সোহেল সিডি চয়েসের হাল ধরেছেন। এরই ধারাবাহিকতায় প্রচারের আলোতে না এসে তিনি একাধারে এ্যালবাম প্রকাশ করছেন। মেধাবী শিল্পীদেরকে খুঁজে বের করে তাদের ব্রেক দিচ্ছেন। মোট কথা সিডি চয়েস নতুন করে ঘুরে দাড়াচ্ছে জহিরুল ইসলাম সোহেলের প্রাণান্ত চেষ্টায়। সেই চেষ্টায় ইতোমধ্যে বেশ কিছু এ্যালবাম বাজারে এসেছে। এর মধ্যে অন্যতম মিলনের একক এ্যালবাম ‘ডানাকাটা পরী’। এতে মোট গান রয়েছে ১১টি। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন, আরফিন রুমি, ইমরান ও রাফি। শিল্পী মিলন, ন্যান্সী, পূজা, রাদিত, স্বরলিপি। আর জে রাজুর দ্বিতীয় একক এ্যালবাম ‘সুহাসিনী-২’। এতে মোট গান রয়েছে ৮টি। গান লিখেছেন সুহৃদ সুফিয়ান, আর জে. রাজু, আফরিন জেসিকা ও আরবী আব্বাসী। সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন সজীব দাস। ইলিয়াস হোসেনের সুরে মিক্সড এ্যালবাম ‘অনেক কথা আছে’। মোট গান ৯টি। গান লিখেছেন জাহিদ আকবর, তারেক আনন্দ, রঞ্জুরেজা, এ এ লিমা ও মামুন। সঙ্গীত করেছেন রেজোয়ান শেখ। শিল্পী ইলিয়াস হোসাইন, তানজিনা রুমা, অরিন, স্বরলিপি, সিম্মি, দীপ্তি ইসলাম। অয়ন চাকলাদরের একক এ্যালবাম ‘দুই পৃথিবী’। মোট গান ২১টি। সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন ইমরান, এফ.এ. সুমন, অয়ন, তাহসিন, রেজোয়ান শেখ ও অনু মোস্তাফিজ। সহশিল্পী ন্যান্সী, স্বরলিপি, আশফা, তনুকা। রাজীব হোসেনের ব্যান্ড মিক্সড এ্যালবাম ‘অহেতুক’। এতে মোট গান ৯টি রয়েছে। গান লিখেছেন মনিরুল ইসলাম রানা, ফারহাসানা হোসেন, তারেক বিন ফিরোজ, হুসাইন সুমন। সুর করেছেন রাজীব হোসেন। সঙ্গীত করেছেন অহেতুক ব্যান্ড। শিল্পী রাজীব ও মেহেদী হাসান। লুইপার একক এ্যালবাম ‘ছায়াবাজি’। মোট গান ৭টি। সহশিল্পী কিশোর। সুবীর নন্দীর একক এ্যালবাম ‘সুরঞ্জনা’। এ এ্যালবামের মোট গান ৮টি গান লিখেছেন মোয়াজ্জেম হোসেন ফিরোজ। সুর ও সঙ্গীত করেছেন মোঃ গোলাম সারোয়ার। অয়ন চাকলদার ফিচারিং ‘আমরা আমরা-২’। এ্যালবামে ১২টি লিখেছেন ¯েœহাশীষ ঘোষ, সুর করেছন অয়ন, মিলন, বেলাল খান, সাগর। সঙ্গীত পরিচালনা করেছন অয়ন চাকলাদার। শিল্পী ইমরান, পূজা, জুয়েল মোর্শেদ, বেলাল খান, কাজী শুভ, তৌসিফ, মিলন, সাগর, এম এস রানা ও আব্দুল্লাহ। তৌসিফ ফিচারিং এ্যালবাম ‘ভালবাসার বায়না’। এ্যালবামের মোট ৫টি গান লিখেছেন জুয়েল মাহমুদ, জাহিদ আকবর, রবিউল ইসলাম জীবন। সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন তৌসিফ। এ্যালবামের শিল্পী তৌসিফ, লুইপা, ফারাবী, স্মরলিপি। মিক্সড এ্যালবাম ‘পুরুষ নির্যাতন’। মোট গান ১০টি। সঙ্গীত আয়োজন করেছেন রাফি, শিহাব শাহিন, রেজোয়ান, এম.এম.পি রনি। শিল্পী কাজী শুভ, মিলন, স্বরলিপি, সাফায়েত, সাগর, লুইপা, মুনা। চয়েস সুপার স্টার মিক্সড ‘সাত জনম’। মোট গান ৯টি। সঙ্গীত আয়োজন করেছেন রাফি, অয়ন, বেলাল খান, মুশফিক লিটু, মিলন মাহমুদ। শিল্পী কাজী শুভ, পূজা, ঝিলিক, বেলাল খান, লিজা, মিলন, আরফান।

ঈগল মিউজিকের ৮ এ্যালবাম : তুহিন-ইমরান-বেলালের ‘প্রেমকাব্য’। এ্যালবামে শফিক তুহিন, ইমরান ও বেলাল তিনটি করে গান গেয়েছেন এখানে। গান লিখছেন ফয়সাল রাব্বিকীন। আর এ তিন তারকা ছাড়াও এ্যালবামের গানগুলোর সুর সঙ্গীতায়োজন করেছেন সজীব দাশ, ফাজবীর তাজ, রাফি, মার্শাল প্রমুখ। সালমা-সজল-ঐশীর মিক্সড এ্যালবাম ‘খুব খেয়াল কইরা’। গান লিখেছেন ইশতিয়াক আহমেদ। সুর করেছেন লুৎফর হাসান। সঙ্গীত আয়োজন করেছেন শাহরিয়ার মার্শেল ও রেজোয়ান শেখ। এ্যাবামে ফোক ধারার ছয়টি গান রয়েছে। ৩৩ শিল্পীর এ্যালবাম ‘চাটগাঁ এক্সপ্রেস’। এ্যালবামের সবক’টি গানের গীতিকার জীবক বড়ুয়া। তাঁরই উদ্যোগে প্রকাশিত এ এ্যালবামে মোট ১৩টি গান গেয়েছেন সাব্বির, নিশিতা, রাশেদ, রন্টি দাস, সন্দীপন, বৃষ্টি মুৎসুদ্দী ও মুন। গানগুলোর সুর করেছেন ইফতেখারুল লেনিন, আরিয়ান, সাব্বির, রাশেদ, জীবক বড়ুয়া ও দেবেন্দ্রনাথ চ্যাটার্জী,সঙ্গীতায়োজন করেছেন ইফতেখারুল লেনিন, সাব্বির জামান ও অমিত চ্যাটার্জী। কিশোরের পঞ্চম একক এ্যালবাম ‘স্বপ্ন স্বপ্ন লাগে’ এ্যালবামে গান রয়েছে ৭টি। সবগুলো গানের শিল্পী, সুর এবং সঙ্গীত পরিচালনাও করেছেন কিশোর । নকুল কুমার বিশ্বাসের এ্যালবাম ‘বিশ্ব থেকে হারাবে না পবিত্র কোরআন। ৭টি গানের এ্যালবামের গীতিকার, সুরকার এবং শিল্পী নকুল কুমার বিশ্বাস। ইংল্যান্ড প্রবাসী নবীন শিল্পী নাদিয়ার এ্যালবাম ‘নাদিয়া’। এ্যালবামে গান রয়েছে ১০টি। এর মধ্যে ৫টি ডুয়েট এবং ৫টি একক। গানগুলো গেয়েছেন ইমরান, নাদিয়া, অয়ন চাকলাদার, মিলন ও স্বাধীন। গীতিকার ফয়সাল রাব্বেকীন, স্নেহাশীষ ঘোষ, শ্রাবণ সাব্বীর, সায়েদ আতিক, রাব্বী আর বি ও পলাশ উদ্দীন। সঙ্গীতায়োজন করেছেন অয়ন চাকলাদার, ইমরান ও রেজোয়ান শেখ। দেশবরেণ্য কণ্ঠশিল্পী খালিদ হাসান মিলুর সন্তান প্রতীক ও প্রীতম হাসানের সুর ও সঙ্গীতে শাহ্? মাহমুদের তৃতীয় একক এ্যালবাম ‘প্রেম সাধনা’। এ্যালবামে মোট ৮টি গান রয়েছে। লিখেছেন কাবন্দ রাইয়ান ও মেহেদী হাসান লিমন। সমীর ফিচারিং তরুণ কণ্ঠশিল্পী নিশাদের ‘কলমিলতা’। এ্যালবামে ৮টি গান রয়েছে। এর মধ্যে একটি ডুয়েট গানও রয়েছে, যেখানে সহশিল্পী লিসপা লায়লা। গানগুলোর সুর করেছেন ফিরোজ কবীর ডলার, লুৎফর হাসান, সমীর এবং প্রয়াত কণ্ঠশিল্পী ওস্তাদ মোঃ মোজাম্মেল হক। সঙ্গীতায়োজন করেছেন এস কে সমীর।

সুরঞ্জলির চার এ্যালবাম : বেলাল খান, কণা, পুজা ও নদীর মিক্সড এ্যালবাম অচিনপুর। এ্যালবামের গীতিকার রবিউল ইসলাম জীবন, আরমান সিদ্দিকী, সজীব শাহরিয়ার ও সোহানী হোসাইন। সুরকার বেলাল খান, সঙ্গীত জে, কে। শিল্পী ইলিয়াস হোসাইন ও অরিনের এ্যালবাম ‘উড়ব চল’। এ্যালবামের গীতিকার জাহিদ আকবর, সফিক, রঞ্জু রেজা, মামুন, মোঃ সোহেল। সুরকার ইলিয়াস হোসাইন, সঙ্গীত রেজওয়ান শেখ। এ্যালবাম ‘ভাবছি তোকে’। শিল্পী শফিক তুহিন, বেলাল খান, ইলিয়াস হোসাইন, রাফাত, হ্যাপি, শাহেদ রনি, রানা, বন্যা, শম্পা, আদিল ও মোহন। গীতিকার শশী রেজা, সুরকার ও সঙ্গীত রেজওয়ান শেখ ও বেলাল খান। এ্যালবাম ‘নাটাই সুঁতো। শিল্পী মিলন এবং ডুয়েট গেয়েছেন শাকিলা সাকি ও নির্ঝর। গীতিকার রবিউল ইসলাম রবি, সুদীপ কুমার দ্বীপ, মাহমুদ শাওন, শামীম বাবু, সঙ্গীতঃ রাজা বশির ও মোঃ রবিন ইসলাম।

সঙ্গীতার ৮ এ্যালবাম : গামছা পলাশের সলো এ্যালবাম ‘মন বন্ধুয়ারে’। এ্যালামের গানগুলো লিখেছেন মাজহারুল ইসলাম ও কেয়া নুর। সবগুলো গানের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন আহমেদ কিসলু। শাহারিদ বেলালের কথায় ও রেজওয়ানের সঙ্গীত মিশ্র এ্যালবাম ‘মন বুঝিস না তুই। রাফাত, টুম্পা, শাহারিদ বেলাল প্রমুখ। মন্টি ও নন্দিতার ডুয়েট এ্যালবাম ‘মন প্রজাপতি’। সবগুলো গানের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন উজ্জ্বল সিনহা। হাসিবুল হকের সলো এ্যালবাম ‘অন্য আমি’। গানের কথাগুলো লিখেছেন তিনি নিজে। গানগুলোর সঙ্গীত আয়োজন করেছেন ইরফান টিপু। পুজা ও তাহসান খানের সিঙ্গেল গানের এ্যালবাম ‘অনুভবে তুমি’। লিখেছেন ফয়সাল রাব্বিকীন, সুর ও সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন তাহসান খান। প্রমির সলো এ্যালবাম ‘প্রান্তি’। টি আর রোমান্সের সলো এ্যালবাম ‘রোমান্স’। সবগুলো গানের সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন রোমান্স নিজে। এছাড়া ‘সেফটি পিন’ নামে একটি মিশ্র এ্যালবাম প্রকাশ করেছে সঙ্গীতা।

জি সিরিজ-অগ্নিবীনার ১৫ এ্যালবাম : জি সিরিজ অগ্নিবীনা প্রতিবারের মতো এবারও নতুন এ্যালবাম প্রকাশ করেছে। দীর্ঘ সময় পর নতুন রূপে হাজির হলেন আরমিন সুমন। জল জমিন শিরোনামের একক এ্যালবাম দিয়ে সঙ্গীতাঙ্গনে শ্রোতাপ্রিয়তা পেয়েছেন অনেক আগেই। এবার ঈদ উপলক্ষে আসছে সঙ্গীত শিল্পী আরিমন সুমনের দ্বিতীয় একক এ্যালবাম ‘বসন্ত হাওয়া’। এ্যালবামে রয়েছে আটটি গান। এ্যালবামের সুর এবং সঙ্গীতায়োজন করেছেন জনপ্রিয় সঙ্গীত পরিচালক এফ এ সুমন। এফ এ সুমনের সঙ্গীতে অ এর ‘সখা’। অপলার রায়ের নজরুলের সঙ্গীতের এ্যালবাম ‘আজা নাচে নটরাজ’। বিলু সিদ্দিকী ও গোলাম হায়দারের কণ্ঠে রবীন্দ্র সঙ্গীতের এ্যালবাম ‘আলোর নাচন পাতায় পাতায়’। ওয়াসিম পাগলা সলো এ্যালবাম ‘আমার আমি’। গানগুলো সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন এফ এ সুমন, মাটির মামিন ও ওয়াসিম পাগলা নিজে। এ্যালবাম ‘ক্যাফে কাজি’। নার্গিস রহমানের কন্ঠে রবীন্দ্র সঙ্গীতের এ্যালবাম ‘একটুকু ছোঁয়া লাগে’। ফকির সিরাজীর সলো এ্যালবাম ‘বদলে গেলো বাংলাদেশ’। ফাহিম ফয়সালের সলো এ্যালবাম ‘ভালবাসার শেষ খেয়াল’। এ্যালবাম ‘বাঁধন মিশ্র’। রাজিবের সলো এ্যালবাম ‘তোমার আমি’। এহসান রাহীর সলো এ্যালবাম ‘এখানে দুজনে’। লেলিনের সলো এ্যালবাম ‘ক্ল্যাসিক’। রিয়াদের সলো এ্যালবাম ‘বিষণœœ’। জোহানের সলো এ্যালবাম ‘জোহান’ উল্লেখযোগ্য।