মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

নারী ও শিশু নির্যাতনে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিত : ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৫

সংসদ রিপোর্টার ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, দেশে নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকার ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শক্ত অবস্থানে রয়েছেন। এসব নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত কাউকে ন্যূনতম ছাড় দেয়া হবে না। শিশু ও নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, অপহরণ কঠোরহস্তে দমনে ইতোমধ্যেই কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাতে জাতীয় সংসদে কার্যপ্রণালী বিধির ৭১ বিধিতে সরকারী দলের সংসদ সদস্য মামুনুর রশীদ কিরণের নোটিসের জবাব দিতে গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় মন্ত্রী নারী ও শিশু নির্যাতনরোধে সমাজের কর্তাব্যক্তিদেরও এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

নোটিসদাতা মামুনুর রশীদ কিরণ বলেন, দেশে পৈশাচিক নির্যাতনে শিশু হত্যা বেড়ে চলেছে। শিশু অপহরণ, ধর্ষণ, হত্যার ঘটনা আশঙ্কাজনক হারে বেড়েছে। ফলে আইনশৃঙ্খলা নিয়েও প্রশ্ন ওঠে। শিশু সামিউল, রাকিব, রাজনসহ বিভিন্ন শিশু হত্যাকা-ের কথা তুলে ধরে তিনি বলেন, এসব চিত্রের অন্তরালে অনেকাংশে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দুর্বলতা। আইনের সঠিক প্রয়োগের অভাবেই দিন দিন এমন হত্যার ঘটনা ঘটছে। তাই শিশুদের সুরক্ষা দেয়ার ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে আরও জোরালো পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে।

জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশের শিশুদের নিরাপত্তা ও ভয়হীন পরিবেশ নিশ্চিত করতে বর্তমান সরকার বদ্ধপরিকর। তবে এ জন্য শুধু সরকারই নয়, দেশের সচেতন জনগণ ও সমাজের নেতাদেরও কিছুটা দায়িত্ব রয়েছে। এ ব্যাপারে তাদেরও সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে এগিয়ে আসতে হবে। তিনি বলেন, আমরা কোন ঘটনাকেই তুচ্ছ বলে গণ্য করি না, প্রতিটি ঘটনাকে প্রাধান্য দিয়েই আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

শিশু ও নারী নির্যাতন বন্ধে সরকারের বিভিন্ন কঠোর পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, শিশু ও নারী নির্যাতন বন্ধে সরকার অত্যন্ত কঠোর অবস্থানে রয়েছে। সামিউল, রাজনসহ যেসব শিশু হত্যা ও নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে, সরকারের কঠোর পদক্ষেপের ফলে অতি দ্রুত সময়ের মধ্যে জড়িতদের শনাক্ত, গ্রেফতার, চার্জশীট দিয়ে আদালতে বিচারের মুখোমুখি করা হয়েছে। বিষয়টি সম্পর্কে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। নারী ও শিশু নির্যাতনকারীদের কাউকেই ন্যূনতম ছাড় দেয়া হচ্ছে না। জড়িত প্রত্যেকের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ কর হয়েছে

বুড়িগঙ্গাসহ ঢাকার চতুর্দিকের চারটি নদীই দূষিত ॥ শুধু বুড়িগঙ্গাই নয়, ঢাকার চতুর্দিকের চারটি নদীই মারাত্মক দূষিত বলে স্বীকার করলেন নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান। এজন্য শিল্পমালিকদের দায়ী করে তিনি বলেন, নদীগুলোকে দূষণমুক্ত করতে সরকার থেকে মহাপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে এবং বাস্তবায়ন চলছে। গৃহীত পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়িত হলে অবশ্যই নদীগুলো দূষণমুক্ত করা সম্ভব হবে।

প্রকাশিত : ৯ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৯/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

প্রথম পাতা



শীর্ষ সংবাদ: