২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

গণপরিবহন ভাড়া কমানোর দাবিতে প্রতীক অনশন


স্টাফ রিপোর্টার ॥ গণপরিবহণের ভাড়া কমানোর দাবিতে প্রতীক অনশন করেছে যাত্রী কল্যাণ সমিতি। এতে অংশ নিয়ে বিভিন্ন সেক্টরের প্রতিনিধিরা বলেছেন, ভাড়া বাড়লে মানুষের ভোগান্তি বাড়বে। তাছাড়া ২০১৩ সালের গণপরিবহনের জন্য সরকার নির্ধারিত ভাড়ার তালিকা মানা হচ্ছে না। আন্তঃজেলা রুটসহ বেশিরভাগ পরিবহনে যাত্রীদের কাছ থেকে বাড়তি ভাড়া আদায় করা হচ্ছে। এদিক বিবেচনা করে আগের সরকার নির্ধারিত ভাড়া কার্যকর করার দাবি জানানো হয়েছে।

সোমবার সমিতির উদ্যোগে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত অনশন কর্মসূচীতে নেতৃবৃন্দ আরও বলেন, জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধির আগেই মালিক-শ্রমিকদের স্বার্থে সিএনজিচালিত অটোরিক্সার ভাড়া ৬০ ভাগ বাড়াতে বিআরটিএ প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। নামে মাত্র জ্বালানির মূল্য বৃদ্ধি পেলেও বাস ভাড়া ২৫ ভাগ বাড়ানোর চেষ্টা চলছে।

তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ হোসেন জিল্লুর রহমান বলেন, রাষ্ট্রের দায়িত্ব জনগণের কল্যাণ নিশ্চিত করা। বর্তমান সময়ে গ্যাস ও বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি সম্পূর্ণ অযৌক্তিক, সরকার এর পক্ষে কোন যুক্তি উপস্থাপন করতে পারেনি। ফলে বাসভাড়াসহ অন্যান্য গণপরিবহনের ভাড়া বৃদ্ধি পাবে। এতে সাধারণ জনগণের ভোগান্তি বাড়বে।

বক্তারা বলেন, যাত্রী সাধারণের প্রতিনিধির মতামত উপেক্ষা করে বাস ও সিএনজিচালিত অটোরিক্সার ভাড়া নির্ধারণ করা হলে যাত্রী স্বার্থ চরমভাবে লঙঘিত হবে।

সংগঠনের দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ করে উপস্থিত ছিলেন বাসদম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রাজেকুজ্জামান রতন, সিপিবি কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য রুহিন হোসেন প্রিন্স, কনজ্যুমার এ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ক্যাব) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য এসএম নাজের হোসাইন, ভলান্টারি কনজ্যুমার এ্যান্ড ট্রেনিং এওয়ারনেস সোসাইটি (ভোক্তা) নির্বাহী পরিচালক খলিলুর রহমান সজল, প্রমুখ।