মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৯ আশ্বিন ১৪২৪, রবিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

কুষ্টিয়ায় আ’লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ ॥ আহত ২০

প্রকাশিত : ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা, কুষ্টিয়া, ৭ সেপ্টেম্বর ॥ কুষ্টিয়ায় আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষে অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। সোমবার সকালে মিরপুর উপজেলার মশান এলাকার গৌড়দহ গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। আহতদের কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়। এলাকাবাসীরা জানায়, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও জমিজমা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে গৌড়দহ গ্রামের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আয়নাল ম-ল এবং আওয়ামী লীগ সমর্থিত বর্তমান ইউপি সদস্য উফান মেম্বরের মধ্যে বিরোধ চলে আসছে। এ বিরোধের জের ধরে সোমবার বেলা ১১টার দিকে উভয় পক্ষই লাঠিসোঁটা নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

সিলেটে গুলিবিদ্ধ ১০ নেতাকর্মী

স্টাফ রিপোর্টার সিলেট থেকে জানান, আধিপত্য বিস্তার নিয়ে শহরের বালুচর এলাকায় ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষে ১০ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। রবিবার রাত সাড়ে ১০টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হিরণ মাহমুদ নিপু ও ছাত্রলীগের সায়েফ গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

জানা যায় বালুচর এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে নিপু গ্রুপ ও সায়েফ গ্রুপের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে রবিবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উভয় গ্রুপ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

চুয়াডাঙ্গায় আহত দুই

নিজস্ব সংবাদদাতা চুয়াডাঙ্গা থেকে জানান, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে চুয়াডাঙ্গায় ছাত্রলীগের দুই কর্মীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। ভাঙচুর করা হয়েছে বাড়িঘর-মোটরসাইকেল। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে শহরের গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মোতায়েন করা হয়েছে অতিরিক্ত পুলিশ। রবিবার রাতে শহরের জীবননগর বাসস্ট্যান্ড এলাকায় হামলার ঘটনা ঘটে । আহতদের চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতরা হলেনÑ মিজু আহমেদ ও শিমু চৌধুরী।

সিরাজগঞ্জে হত্যার দায়ে ১৪ জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার, সিরাজগঞ্জ ॥ উল্লাপাড়া উপজেলার কৃষক নুরুল ইসলামকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় একই পরিবারের ৩ জন এবং পিতা-পুত্রসহ ১৪ জনের সশ্রম কারাদ- দিয়েছেন সিরাজগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত ১-এর বিচারক ড. ইমান আলী সেখ। সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টায় আসামিদের উপস্থিতিতে এ রায় দেয়া হয়। দ-প্রাপ্ত আসামিরা হলেন উপজেলার পুঠিয়া গ্রামের ফজলুল হক (৪৫)তার স্ত্রী মর্জিনা বেগম (৪০) ছেলে আব্দুল মমিন, আব্দুল কুদ্দুস তার ছেলে আবু বকর সিদ্দিক, আশরাফুল ইসলাম (২৭) বিষা ম-ল (৩০), বাবর আলী আয়নাল হোসেন (২৮), বাবলু , শামসুল, আমিনুর রহমান, হায়দার আলী বেলাল হোসেন রেজাউল। অন্য ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না তাদের বেকসুর খালাষ দিয়েছে আদালত। ২০১২ সালে ঐ কৃষককে পিটিয়ে হত্যা করে আসামিরা।

খুলনায় অস্ত্র আইনে যুবকের ১৭ বছর

স্টাফ রিপোর্টার খুলনা অফিস থেকে জানান, অস্ত্র আইনের মামলার পৃথক ধারায় মোঃ আলমগীর মোল্লা (৩৬) নামের এক আসামিকে ১৭ বছর সশ্রম কারাদ- দিয়েছেন আদালত। সোমবার ৪নং বিশেষ ট্রাইব্যুনালের বিচারক মোঃ নুরুল ইসলাম আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ সন্দেহাতীতভাবে প্রমাণিত হওয়ায় এ দ-াদেশ প্রদান করেন। এ মামলার রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এম এম সাজ্জাদ আলী জানান, আদালত আসামিকে অবৈধভাবে আগ্নেয়াস্ত্র পিস্তল নিজ হেফাজতে রাখার দায়ে ১০ বছর সশ্রম কারাদ- এবং নিজের দখলে অবৈধ ছোরা রাখার দায়ে ৭ বছর সশ্রম কারাদ-সহ মোট ১৭ বছর সশ্রম কারাদ- প্রদান করেছেন।

প্রকাশিত : ৮ সেপ্টেম্বর ২০১৫

০৮/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: