১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

শাহাদাতের ঘটনায় বিব্রত বিসিবি


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ বছর পাকিস্তানের বিপক্ষে হোমসিরিজের টেস্ট দলে ছিলেন পেসার শাহাদাত হোসেন। ইনজুরির কারণে অবশ্য তারপর থেকে দলের বাইরে আছেন। তবে আবারও ফেরার রাস্তায় ছিলেন, চলমান এলিট প্লেয়ার্স কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ছিলেন তিনি। কিন্তু এখন তিনিই ফেরারি আসামি। রবিবার মিরপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেছিলেন গৃহকর্মী হারিয়ে গেছে এই মর্মে। কিন্তু সেদিনই হারিয়ে যাওয়া গৃহকর্মী থানায় এসে অভিযোগ করেন শারীরিক নির্যাতনের। শাহাদাত ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে এ নির্যাতনের অভিযোগ দায়েরের পর থেকেই শাহাদাত স্ত্রীসহ পলাতক। পুলিশ খুঁজছে তাদের। জাতীয় দলের একজন ক্রিকেটারের এমন ঘটনার সঙ্গে সংশ্লিষ্টতায় দারুণ বিব্রত বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। শাহাদাতের এমন কার্যকলাপ দেশের ক্রিকেটের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করবে বলে জানান বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন।

১১ বছর বয়সী গৃহকর্মী মাহবুবা আক্তার হ্যাপির ওপর নির্যাতন করায় এখন কোন ক্রিকেটারই তার পক্ষে কথা বলছেন না। বরং সমালোচনায় মুখর সবাই। শিশু হ্যাপির শারীরিক দুরাবস্থার চিত্র আহত করেছে দেশবাসীকেও। বিসিবির সিইও নিজামউদ্দিন সুজন বলেন, ‘এ ঘটনায় বিব্রত বিসিবি। একজন সিনিয়র ক্রিকেটার হিসেবে এ ধরনের আচরণ ওর কাছে প্রত্যাশিত নয়। এ ধরনের কাজে আমরা বিব্রত।’ এ বিষয়ে থানা থেকে কিংবা শাহাদাতের পক্ষ থেকে বিসিবির সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়নি। বিসিবি এ ঘটনায় শাহাদাতের পাশে দাঁড়াবে কি না জানতে চাইলে নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন বলেন, ‘এখনও আমরা বিষয়টা পরিষ্কার জানি না। শাহাদাত নিজে এ বিষয়ে বিসিবিকে কিছু জানায়নি। আমাদের তো বিষয়টা আগে বুঝতে হবে, জানতে হবে। এটা শুধু ওর ভাবমূর্তি না বাংলাদেশের ক্রিকেট খেলোয়াড় সম্পর্কে বাজে বার্তা যাচ্ছে। সবার মাঝে যেন এই বোধটা থাকে, খেলোয়াড়দের কাছে এটা আমাদের কাম্য। শুধু শাহাদাত নয় সবার কাছে। সে একটা দেশকে প্রতিনিধিত্ব করছে। মাশরাফি সাকিবদের সঙ্গে একই দলে খেলে শাহাদাত।’