২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ২ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

ইয়েমেনে সৌদি জোটের বিমান হামলা ॥ নিহত ২০


অনলাইন ডেস্ক ॥ উত্তর ইয়েমেনে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন আরব জোট বাহিনীর বিমান হামলায় অন্ততপক্ষে ২০ জন নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় নৃগোষ্ঠীগুলোর সদস্যরা।

হুতি হামলায় ১০ সৌদি সেনাসহ জোট বাহিনীর অন্ততপক্ষে ৬০ সেনা নিহত হওয়ার প্রতিক্রিয়ায় রবিবার এ হামলা চালানো হয়।

এছাড়া নিজেদের সেনা নিহত প্রতিক্রিয়ায় শনিবার রাত থেকে শুরু করে রোববার রাতভর ইয়েমেনের বিভিন্ন এলাকায় হুতিদের ও দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট আলি আব্দুল্লাহ সালেহর অনুগত সেনাদের অবস্থানগুলো লক্ষ করে হামলা চালায় জোট বাহিনীর বিমানগুলো।

স্থানীয় অধিবাসীরা জানিয়েছে, রাজধানী সানার উত্তরাংশে অবস্থিত আল-ইমাম বিশ্ববিদ্যালয়েও বিমান হামলা হয়েছে।

তবে সানার উত্তরের আল-জউফ প্রদেশে সবচেয়ে প্রাণঘাতী হামলাটি চালানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন ওই এলাকার বাসিন্দারা। এখানে হুতিদের গুলিবর্ষণে নিহত এক নেতার বাড়িতে বিমান হামলা চালানো হয়।

জোট বাহিনীর বিমানগুলো ভুল করে নিজেদের পক্ষের অবস্থানে এ হামলা চালিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

এতে ওই এলাকার আরব জোট বাহিনীর পক্ষভুক্ত অন্ততপক্ষে ২০ জন নিহত হন।

এ বিষয়ে মন্তব্যের জন্য যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও জোট বাহিনীর কোনো মুখপাত্রকে তাৎক্ষণিকভাবে পাওয়া যায়নি।

সানার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, রোববার দুপুর পর্যন্ত চালানো একটানা হামলায় দুজন নিহত হয়েছেন ও বেশ কিছু ভবন বিধ্বস্ত হয়ে মাটিতে মিশে গেছে।

আল-সাবিন মাতৃসদন ও শিশু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বিমান হামলায় তাদের হাসপাতালেরও ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে এবং রোগীরা হাসপাতালের ভিতরে আটকা পড়েছে।

রোগীদের উদ্ধার করতে আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সহায়তা চেয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

বেসামরিক অবস্থানগুলোর উপর বিমান হামলা চালানোর কথা অস্বীকার করেছে সৌদি নেতৃত্বাধীন জোট। কিন্তু শনিবার সানায় হুতিদের অবস্থান লক্ষ করে জোট বাহিনীর বিমান হামলার সময় দুটি পরিবারের অন্ততপক্ষে ২৭ জন সদস্য নিহত হন বলে জানিয়েছেন হাসপাতাল কর্মকর্তারা।

শুক্রবার মারিব টাউনে জোট বাহিনীর অবস্থান লক্ষ করে চালানো হুতিদের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় আরব আমিরাতের ৪৫ সেনা, সৌদি আরবের ১০, বাহরাইনের পাঁচ ও ইয়েমেনের প্রবাসী সরকারের পক্ষের চার সেনা নিহত হন।