১৭ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

সংসদে ফিরোজ রশীদের আক্ষেপ, হাজী সেলিমের গান.......


সংসদ রিপোর্টার ॥ রাজউকের পূর্বাচল প্রকল্পে নিজের এবং ছেলে প্লট না পাওয়ায় জাতীয় সংসদে আক্ষেপ প্রকাশ করেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ। জবাবে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম স্বরচিত একটি গান গাইলে সংসদে বেশ হাস্যরসের সৃষ্টি হয়।

রবিবার সংসদ অধিবেশনে মাগরিবের নামাজের বিরতির পর বিক্ষিপ্ত পয়েন্ট অব অর্ডারে ফ্লোর নিয়ে কাজী ফিরোজ রশীদ একটি দৈনিক পত্রিকার বরাত দিয়ে বলেন, রাজউকের পৌনে ৫শ’টি প্লট জালিয়াতি হয়েছে। পূর্তমন্ত্রী বলেছেন, তাঁর সময়ে এটি হয়নি। ৬ হাজার একর বিশাল জায়গা নিয়ে জালিয়াতি হলো, কে জবাব দেবে? আক্ষেপ করে তিনি বলেন, ওয়ান-ইলেভেনের শেষের দিকে প্লটের জন্য দরখাস্ত আহ্বান করা হলো। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ থেকে আমরা ২১ জন আবেদন করলাম। ততদিনে নির্বাচন হয়ে গেছে। আওয়ামী লীগ সরকার গঠনের পর মন্ত্রী আবদুল মান্নান খান প্লট বরাদ্দ শুরু করলেন। ২১ জনের মধ্যে ১৯ জন প্লট বরাদ্দ পেলেন, পেলাম না শুধু দুইজন। আমি ও আমার ছেলে। মন্ত্রী সাহেবের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানালেন, আমরা ভিন্ন রাজনীতি করি বলে প্লট বরাদ্দ দেয়া হয়নি। এ নিয়ে জানতে চাইবেন না প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ আছে। ক্ষোভ প্রকাশ করে কাজী ফিরোজ রশীদ বলেন, তাহলে প্রধানমন্ত্রী কী মন্ত্রীকে দিয়ে পৌনে পাঁচশটি প্লটে জালিয়াতি করিয়েছেন?

এরপর স্পীকারের কাছে ফ্লোর নেন স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য হাজী মোহাম্মদ সেলিম। বক্তব্য দিতে উঠেই তিনি গান ধরেন। বলেন- থাকব না আর এদেশে/ চলে যাব অন্য দেশে..। ফিরোজ ভাই (কাজী ফিরোজ রশীদ) জায়গা জমি কিছুই থাকবে না। আমাদের সবাইকে খালি হাতেই যেতে হবে। এ সময় সংসদে হাস্যরসের সৃষ্টি হয়।