১৫ ডিসেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

কুমিল্লায় সিটি সুপার মার্কেট উচ্ছেদে ফের নোটিস


মীর শাহ আলম, কুমিল্লা, ৬ সেপ্টেম্বর ॥ মহানগরীর কান্দিরপাড় এলাকায় অবৈধভাবে সরকারী জায়গায় নির্মাণাধীন সিটি সুপার মার্কেট উচ্ছেদে ফের নোটিস দেয়া হয়েছে। আদর্শ সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার ভূমি শামীম হোসেন স্বাক্ষরিত একটি চিঠি রবিবার কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে প্রেরণ করা হয়। এর আগে মার্কেটটি উচ্ছেদে গত ২৩ আগস্ট ওই কর্মকর্তার বরাবরে প্রথম নোটিস দেয়া হয়েছিল। পরবর্তীতে সিটি কর্পোরেশনের দেয়া নোটিসের জবাবে মালিকানার সপক্ষে উপযুক্ত কোন কাগজপত্র সংযুক্ত করতে না পারায় মার্কেটটি উচ্ছেদে ফের নোটিস দেয়া হয়। এদিকে এ মার্কেটটি উচ্ছেদে সহকারী কমিশনার ভূমি প্রথম নোটিস দেয়ার ৪ দিনের মাথায় তাকে বদলির আদেশ জারি করা হয়। এ নিয়ে নগরজুড়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২৪ জুলাই নগরীর কান্দিরপাড়ের টাউন হলের পূর্ব পাশের সংকীর্ণ সড়কসংলগ্ন ১৬ ফুট প্রস্থ ও ৩৪৪ ফুট দৈর্ঘ্যরে ৬ তলাবিশিষ্ট বাণিজ্যিক ভবন (সিটি মার্কেট) নির্মাণের দরপত্র আহ্বান করা হয়। ১৫ কোটি ৩৮ লাখ ১৪ হাজার ৭২৫ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে কাজটি পায় ঢাকার জামাল এ্যান্ড কোম্পানি ও ইসলাম ট্রেডিং কর্পোরেশন। পরে পৌনে ১ কোটি টাকা বরাদ্দ বাড়িয়ে ১৬ কোটি ১২ লাখ ৮৭ হাজার ১৯৭ টাকা করা হয়। সরু প্রস্থের ওই জায়গায় স্থায়ীভাবে বহুতল ভবন নির্মিত হলে পুরো নগরে ভয়াবহ যানজট ও জলাবদ্ধতা সৃষ্টির আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন নগরীর বিশিষ্টজনরা। এ নিয়ে বিভিন্ন পত্রিকায় খবর প্রকাশিত হলেও টনক নড়েনি সিটি কর্তৃপক্ষের। এদিকে নির্মাণাধীন ভবনটি সরিয়ে নিতে গত ২৩ আগস্ট সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে ৭ দিনের সময় দিয়ে চিঠি দেন আদর্শ সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি শামীম হোসেন। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার আব্দুল্লাহ জানান, বদলি একটি সাধারণ প্রক্রিয়া। সিটি কর্পোরেশনের মার্কেট অপসারণের বিষয়ে বর্তমান এসিল্যান্ড যে নোটিস দিয়েছে পরবর্তীতে যিনি দায়িত্ব পালন করবেন তিনিও ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখবেন। ব্যক্তি বদল হলেও পদ বদল হয়নি। এ নোটিসের সঙ্গে তার বদলি আদেশের কোন সম্পৃক্ততা নেই বলে তিনি দাবি করেন।