মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
২২ সেপ্টেম্বর ২০১৭, ৭ আশ্বিন ১৪২৪, শুক্রবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

বার কাউন্সিল নির্বাচনের ফল চ্যালেঞ্জ করে রিট

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ০৫:৪২ পি. এম.

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনের ভোট ফের গণনার জন্য হাইকোর্টে রিট করেছেন সুপ্রীমকোর্টের আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

রিটে বাংলাদেশ কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও সাধারণ সদস্য পদে একজন বিজয়ীকে বিবাদী করা হয়েছে। হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রবিবার রিটটি করা হয়।

এর আগে, বৃহস্পতিবার আবারও ভোট গণনা করে ফলাফল ঘোষণার জন্য একটি লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছিলেন আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ। নোটিশে আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এর জবাব দিতে বলা হয়েছে। তা না হলে এ ব্যাপারে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হবে বলেও জানানো হয় নোটিশে।

নিয়ম অনুযায়ী বুধবারের বার কাউন্সিলের নির্বাচনের সব ফলাফল হিসাব করে বৃহস্পতিবার সকালে কাউন্সিলের চেয়ারম্যান এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আনুষ্ঠানিকভাবে ফল ঘোষণা করেন।

ঘোষিত ফল অনুযায়ী, কাউন্সিলের ১৪টি সদস্য পদে আওয়ামী সমর্থক আইনজীবীদের মোর্চা সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ (সাদা প্যানেল) পেয়েছে ১১টি পদ। আর বিএনপির সমর্থক জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য প্যানেল (নীল প্যানেল) পেয়েছে তিনটি পদ।

ইউনুছ আলী আকন্দ সাংবাদিকদের বলেন, ‘বার কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ও এ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে আসা ফল ঘোষণা করেছেন। কিন্তু বাংলাদেশ লিগ্যাল প্র্যাকটিশনারস ও বার কাউন্সিল অর্ডার-১৯৭২ এর বিধিমালার ১৫ (২) বিধি অনুসারে সারাদেশের সব কেন্দ্র থেকে ব্যালট পেপার আসার পর কাউন্সিলের চেয়ারম্যানকে সব ব্যালট গুনে ফল ঘোষণা করতে হয়। কিন্তু এবার তা মানা হয়নি। ফলে বিধি ভঙ্গ করা হয়েছে। তাই ফলাফল চ্যালেঞ্জ করে রিট আবেদনটি করা হয়।’

২৬ আগস্ট সারাদেশের ৭৭টি কেন্দ্রে বার কাউন্সিলের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে ভোটার ছিলেন ৪৩ হাজার ৩০২ জন।

চূড়ান্ত ফল অনুসারে কাউন্সিলের সাধারণ সদস্যের সাতটি আসনের মধ্যে পাঁচটিতে আওয়ামী লীগপন্থী আইনজীবীরা জয় লাভ করেছেন। বিএনপি-সমর্থিত আইনজীবীরা সাধারণ সদস্যের দু’টি আসনে জিতেছেন।

কাউন্সিলের বাকি সাতটি অঞ্চলভিত্তিক গ্রুপ সদস্যের মধ্যে ছয়টিতে জিতেছেন আওয়ামী লীগপন্থী আইনজীবীরা। বিএনপি-সমর্থিত আইনজীবীদের মধ্যে শুধু মো. কাইমুল হক কাউন্সিলের গ্রুপ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

প্রকাশিত : ৬ সেপ্টেম্বর ২০১৫, ০৫:৪২ পি. এম.

০৬/০৯/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: