২০ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ওয়াসার লেগুনে মাছ চাষ বন্ধে ৭ দফা নির্দেশনা


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঢাকা ওয়াসার সায়েদাবাদ ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের লেগুনে মাছ চাষ বন্ধে সাতদফা নির্দেশনা দিয়েছেন হাইকোর্ট। জনস্বার্থে দায়ের করা এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে জারি করা রুলের চূড়ান্ত শুনানি শেষে রবিবার এ রায় দেন বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী ও বিচারপতি মো. আশরাফুল কামালের হাইকোর্ট বেঞ্চ। আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ।

২০১১ সালে ১৩ জুলাই ‘ওয়াসা লেগুনে বিষাক্ত মাছ খাচ্ছে ঢাকার মানুষ’ শিরোনামে গণমাধ্যমে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন যুক্ত করে জনস্বার্থে একটি রিট আবেদন করা হয়। হাইকোর্ট ওই বছরের ১৪ নভেম্বর এ বিষয়ে রুল জারি করেন। এ রুলের শুনানি শেষে ওয়াসা লেগুনে মাছ চাষ বন্ধে সাতদফা নির্দেশনা দেন।

নির্দেশনাগুলো হলো- এক. আগামী দুই বছরের মধ্যে লেগুন এলাকার চারদিকে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ।

দুই. প্রতি দুই মাস পর পর ম্যাজিস্ট্রেটসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এবং মিডিয়ার উপস্থিতিতে ওষুধ প্রয়োগ করে সব মাছ ধ্বংস করা।

তিন. ওই এলাকার তদারকি করার জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক আনসার সদস্য ও নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ।

চার. লেগুন এলাকায় রাত্রিকালীন টহল জোরদার করা।

পাঁচ. ‘বিষাক্ত ক্ষতিকর মাছ চাষ করা এবং মাছ ধরা শাস্তিযোগ্য অপরাধ’ লেখা সম্বলিত প্রয়োজনীয় সংখ্যক সাইনবোর্ড স্থাপন করা।

ছায়. লেগুনে প্রয়োজনীয় সংস্কার ও সংরক্ষণের কাজ করা।

সাত. লেগুন এলাকায় জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে নাগরিক সমাজ গঠন করে মাছচাষ বন্ধে ব্যবস্থা নেওয়া।