২৫ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট ৬ ঘন্টা পূর্বে  
Login   Register        
ADS

বিসিবির চাহিদা পূরণ আরেকটি দল বেড়ে


স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) অন্তত ৬ দল নিয়ে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগের (বিপিএল-টি২০) তৃতীয় আসর শুরু করতে চেয়েছে। সেই চাহিদা বিসিবির পূরণ হয়ে গেছে। নতুন-পুরনো মিলে আগেই ৫ প্রতিষ্ঠান বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজি হতে সব ধরনের শর্ত পূরণ করেছিল। এবার আরেকটি ফ্র্যাঞ্চাইজি যুক্ত হয়েছে। পুরনো দলগুলোর মধ্যে বরিশাল বার্নার্স বিসিবির দেয়া শর্ত পূরণ করেছে।

বিসিবির সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনই এমনটি জানিয়েছেন। বলেছেন, ‘এখন পর্যন্ত আমাদের কাছে পাঁচ দলের জামানত আছে। এর মধ্যে পুরনো দুটি ও নতুন তিনটি। তবে দেরিতে হলেও বরিশাল বার্নার্স পাওনা টাকা ও আমাদের নতুন আসরের জন্য সাড়ে পাঁচ কোটি টাকার জামানত দিয়েছে। আরও দুটি দলের সঙ্গে কথা হচ্ছে। হয় তো একটি দল টাকা দিয়েও দেবে। আমরা আর দেরি করতে চাচ্ছি না। বোর্ড মিটিং করে সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা থাকলেও আমরা বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলকে ক্ষমতা দিয়েছি, যেন তারাই সিদ্ধান্তটা নিয়ে ফেলে। কিন্তু একটি গাইডলাইন আমরা দিয়ে দিয়েছি সেভাবেই হবে। আমরা পরে সেটি বোর্ড মিটিংয়ে দেখব।’

বিপিএলে দল চালাতে এবার আগ্রহ দেখিয়েছিল নতুন ১১ প্রতিষ্ঠান। এরসঙ্গে পুরনো দুটি প্রতিষ্ঠান সিলেট রয়্যালস ও রংপুর রাইডার্সের মালিকও বিপিএলের সঙ্গে থাকার আগ্রহ দেখিয়েছে। কিন্তু যেই ১ কোটি টাকা পে-অর্ডার ও ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাবদ সাড়ে ৪ কোটি টাকা জামানত দিতে হবে এমন শর্ত প্রতিষ্ঠানগুলোর সামনে আসে, বিপিএলে দল চালাতে আগ্রহের কমতি দেখা যায়। মাত্র ৫ প্রতিষ্ঠান তাতে সাড়া দেয়। পুরনোদের মধ্যে সিলেট রয়্যালসের ফ্র্যাঞ্চাইজি রয়্যাল স্পোর্টিং লিমিটেড, রংপুর রাইডার্সের ফ্র্যাঞ্চাইজি আই স্পোর্টস এবং নতুনদের মধ্যে দুলাল ব্রাদার্স (ডিবিএল) গ্রুপ, বেক্সিমকো ও এক্সিওম টেকনোলজিস শর্ত পূরণ করে।

বিসিবি চেয়েছিল কম করে হলেও ৬ দল নিয়ে বিপিএল শুরু করতে। এ জন্য একটু সময় যেন বাড়িয়ে দেয় বিসিবি। নতুন আরও ৫ প্রতিষ্ঠান যে আগ্রহ দেখায়। কিন্তু তাদের ছাপিয়ে বরিশাল বার্নার্স শর্ত পূরণ করে দেয়। আগের পাওনা পরিশোধ করার সঙ্গে বিসিবির জামানত দেয়ার নতুন শর্তও পূরণ করে। যে বরিশাল বার্নার্স কিস্তিতে আগের পাওনা অর্থগুলো পরিশোধ করার কথা বলেছে, তারাই সব শর্ত পূরণ করে ফেলে। এতে করে বিসিবিরও ৬ দল নিয়ে বিপিএল করার চাহিদা পূরণ হয়ে যায়।

অবশ্য আরও দল বাড়ার সম্ভাবনা এখনও আছে। এমনটিই জানা গেল বিসিবি সূত্রে। অন্তত আরও ১টি প্রতিষ্ঠান বিপিএলে দল চালাতে আগ্রহী বলে জানা গেছে। দ্রুতই বিপিএলের ফ্র্যাঞ্চাইজিদের বিষয়ে বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিল সভায় বসবে বলেও জানা গেছে। আজ-কালের মধ্যেই সেই সভা হবে। সোম-মঙ্গলবারের মধ্যে কোন প্রতিষ্ঠানগুলো শেষপর্যন্ত বিপিএলে অংশ নিচ্ছে, তা জানিয়েও দেয়া হবে। বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিল চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা জানিয়েছেন, ‘তৃতীয় আসরের ফ্র্যাঞ্চাইজি বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে আগামী দুই-তিন দিনের মধ্যেই সভায় বসবে বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিল।’ বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলের সদস্য সচিব ইসমাইল হায়দার মল্লিক বলেছেন, ‘সোম-মঙ্গলবারের মধ্যে একটি সিদ্ধান্ত হবে আশা করি।’

বিসিবি সভাপতি বলেছিলেন, ‘আমরা পাঁচ দল নিয়েও বিপিএল করতে পারব। তবে আমাদের সব সময়ই চিন্তা ছিল অন্তত ছয় দল নিয়ে বিপিএল করার। এই চিন্তাটা আমাদের মৌলিক পরিকল্পনার মধ্যেই ছিল।’ সেই চিন্তার ফলও মিলে গেছে।

তবে পাওনা টাকা পরিশোধ করলেও বরিশাল বার্নার্স দলটিই যে বরিশাল বার্নার্সের মালিক পাবে এমনটি নয়। দল পরিবর্তনও হতে পারে। সেই ইঙ্গিতও দিলেন বিসিবি সভাপতি। বলেছেন, ‘যারা নির্দিষ্ট সময়ে টাকা দিয়েছে তাদেরই একজন বরিশাল দলটি নেয়ার কথা।

কিন্তু বরিশাল বার্নার্স যেহেতু টাকা দিলেও দেরিতে টাকা দিয়েছে তাদের আমরা সেটি দিতে পারব কিনা সন্দেহ আছে। কারণ যারা আগে টাকা দিয়েছে তাদের অধিকারটা তো আগেই থাকবে। এই বিষয়ে বিপিএল গবর্নিং কাউন্সিলকে ক্ষমতা দেয়া আছে। যদি তারা আলোচনা করে দিতে পারে দেবে।’ বরিশাল বার্নার্স দলটি আরেক মালিকপক্ষ পাক আর নতুন মালিক পাক; বিসিবির ৬ দল নিয়ে বিপিএল করার চাহিদা পূরণ হয়ে গেছে।

সম্পর্কিত:
পাতা থেকে: